ইউক্রেন নিয়ে বিতর্কিত মন্তব্য; জার্মানির নৌবাহিনী প্রধানের পদত্যাগ

ঢাকা, বুধবার   ১৮ মে ২০২২,   ৪ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯,   ১৬ শাওয়াল ১৪৪৩

Beximco LPG Gas

ইউক্রেন নিয়ে বিতর্কিত মন্তব্য; জার্মানির নৌবাহিনী প্রধানের পদত্যাগ

আন্তর্জাতিক ডেস্ক ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

 প্রকাশিত: ১৪:৪১ ২৩ জানুয়ারি ২০২২   আপডেট: ১৪:৪২ ২৩ জানুয়ারি ২০২২

ছবি: সংগৃহীত

ছবি: সংগৃহীত

রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিনকে সম্মান করা উচিত বলে মন্তব্য করার পর জার্মান নৌবাহিনীর প্রধান পদত্যাগে বাধ্য হয়েছেন। শনিবার এক বিবৃতিতে ভাইস অ্যাডমিরাল কেই-আখিম শোনবাক বলেন, প্রতিরক্ষামন্ত্রী ক্রিস্টিন ল্যাম্বব্রেক্টকে আমি আমার দায়িত্ব থেকে অব্যাহতি দেয়ার কথা বলেছি। মন্ত্রী আমার পদত্যাগপত্র গ্রহণ করেছেন।

শুক্রবার ভারতে একটি গবেষণা প্রতিষ্ঠানের এক আলোচনায় শোনবাক বলেন, পুতিন সম্মান পাওয়ার যোগ্য এবং ক্রিমিয়াকে কখনো উদ্ধার করতে পারবে না ইউক্রেন। তার এই বক্তব্যের ভিডিও পরে সামাজিক যোগাযোগের মাধ্যমে ছড়িয়ে পড়ে এবং এ নিয়ে জার্মানিসহ পশ্চিমা জগতে সমালোচনা সৃষ্টি হয়।

ভারতে অনুষ্ঠিত ওই আলোচনায় সভায় অ্যাডমিরাল শোনবাক আরো বলেন, “পুতিন সত্যিই সম্মান চান। কাউকে খুব কম মূল্যে এমনকি বিনা মূল্যে সম্মান করা যায়। তিনি সত্যিই যা চান সহজে তাকে সেই সম্মান দেয়া যায় এবং সম্ভবত তিনি সে সম্মান পাওয়ার যোগ্য।” জার্মান নৌবাহিনীর প্রধান রাশিয়াকে প্রাচীন ও গুরুত্বপূর্ণ দেশ বলেও উল্লেখ করেন।

আরো পড়ুন: বিয়ের আসরেই হবু স্ত্রীকে চড় মারলেন যুবক

শোনবাক তার বক্তৃতায় বলেন, ক্রিমিয়া উপদ্বীপ হাতছাড়া হয়েছে। এটি আর কখনো ফিরে আসবে না- এটিই বাস্তবতা।

অ্যাডমিরাল শোনবাক এমন বক্তব্য দিলেও জার্মানিসহ পশ্চিমা দেশগুলো মনে করে- “রাশিয়া নিজেই ক্রিমিয়া উপদ্বীপকে দখল করেছে। ২০১৪ সালে ক্রিমিয়া উপদ্বীপ গণভোটের মাধ্যমে ইউক্রেন থেকে বিচ্ছিন্ন হয় এবং রাশিয়া ফেডারেশনে যোগ দেয়।

পদত্যাগ করার বিষয়ে শোনবাক বলেন, আমি মনে করি জার্মান নৌবাহিনী, সামরিক বাহিনী সর্বোপরি জার্মান সরকারের আরো ক্ষতি ঠেকাতে এটি জরুরি ছিল।

ডেইলি বাংলাদেশ/আরএএইচ

English HighlightsREAD MORE »