রাজশাহীতে বিএনপির তিন কমিটি ঘিরে অন্তর্দ্বন্দ্ব

ঢাকা, শনিবার   ২৭ নভেম্বর ২০২১,   অগ্রহায়ণ ১৩ ১৪২৮,   ২০ রবিউস সানি ১৪৪৩

রাজশাহীতে বিএনপির তিন কমিটি ঘিরে অন্তর্দ্বন্দ্ব

বাঘা (রাজশাহী) প্রতিনিধি ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

 প্রকাশিত: ১৩:৪৬ ২৬ নভেম্বর ২০২১  

বিএনপির লোগো

বিএনপির লোগো

রাজশাহীর বাঘা উপজেলার বাজুবাঘা ইউনিয়নের একটি ওয়ার্ডে বিএনপির কমিটি গঠন নিয়ে অর্ন্তদ্বন্দ্বে জড়িয়ে পড়েছেন নেতাকর্মীরা। এ ইউনিয়নের ৩ নম্বর ওয়ার্ডে তিনটি কমিটি গঠন করা হয়েছে।

উপজেলা বিএনপির আহ্বায়ক কমিটির নেতারা এসব কমিটির অনুমোদন দিয়েছেন বলে দলীয় সূত্রে জানা গেছে।

বাজুবাঘা ইউনিয়ন বিএনপির সাবেক সভাপতি নজরুল ইসলাম জানান, বিষয়টি জেলা বিএনপির আহ্বায়ক কমিটিকে জানানো হয়েছে।

তিনি আরো জানান, ২০১৮ সালে কমিটি গঠনের বাজুবাঘা ইউনিয়ন বিএনপির কমিটি বিলুপ্ত ঘোষণা করা হয়। এরপর দ্বন্দ্বের কারণে কোনো আহ্বায়ক কমিটি গঠন করা হয়নি। উপজেলা বিএনপির নেতারা ঘরে বসে এসব কমিটির অনুমোদন দিয়েছেন।

দলীয় সূত্রে জানা গেছে, ২০২০ সালের ১২ জানুয়ারি বাজুবাঘা ইউনিয়নের ৩ নম্বর ওয়ার্ডে চাঁন মিয়াকে সভাপতি ও জালাল উদ্দিনকে সাধারণ সম্পাদক করে কমিটি গঠন করা হয়। ১৩ জানুয়ারি ৫১ সদস্যের পূর্ণাঙ্গ কমিটি ঘোষণা করা হয়। এর বেশ কয়েকদিন পর মুকুল আলীকে সভাপতি ও জামাল উদ্দিনকে সাধারণ সম্পাদক করে আরেক কমিটির অনুমোদন দেওয়া হয়।

সবশেষ ২০২১ সালের ১০ নভেম্বর চাঁন মিয়াকে সভাপতি ও জালাল উদ্দিনকে সাধারণ সম্পাদক করে ৫১ সদস্যের কমিটির অনুমোদন দেয় উপজেলা বিএনপি। এখন বাজুবাঘা ইউনিয়নের ৩নং ওয়ার্ডে সবগুলো কমিটির নেতাকর্মীরা সক্রিয় হয়ে উঠেছেন। এতে দলের ভেতরে দ্বন্দ্ব দেখা দিয়েছে।

সবশেষ অনুমোদিত কমিটির সভাপতি চাঁন মিয়া বলেন, আগের সব কমিটি বাতিল করেই নতুন কমিটির অনুমোদন দেওয়া হয়েছে। এ কমিটিই সার্বিক কার্যক্রম পরিচালনা করবে। 

বাঘা উপজেলা বিএনপির আহ্বায়ক কমিটির সদস্য সচিব আশরাফ আলী মলিন বলেন, যারা ইউনিয়ন কমিটির সভাপতি-সাধারণ সম্পাদক হতে চান- তারাই দ্বন্দ্ব সৃষ্টি করছেন। বাজুবাঘা ইউনিয়নের ৩নং ওয়ার্ডে এখন একটি কমিটিই আছে।

ডেইলি বাংলাদেশ/এআর