লটারি জিতে মহাকাশে যাচ্ছেন মা-মেয়ে

ঢাকা, বৃহস্পতিবার   ০২ ডিসেম্বর ২০২১,   অগ্রহায়ণ ১৮ ১৪২৮,   ২৫ রবিউস সানি ১৪৪৩

লটারি জিতে মহাকাশে যাচ্ছেন মা-মেয়ে

আন্তর্জাতিক ডেস্ক ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

 প্রকাশিত: ১৯:১৫ ২৫ নভেম্বর ২০২১   আপডেট: ১৯:২৮ ২৫ নভেম্বর ২০২১

ছবি: রিচার্ড ব্র্যানসন ও কেইশা শাহাফ

ছবি: রিচার্ড ব্র্যানসন ও কেইশা শাহাফ

ব্রিটিশ ধনকুবের রিচার্ড ব্র্যানসনের কোম্পানি ভার্জিন গ্যালাকটিক একটি লটারির আয়োজন করেছিল। লটারি বিজয়ীদের বিনামূল্যে মহাকাশে পাঠাবে তারা। এর মাধ্যমে প্রথম বারের মতো ওই প্রতিষ্ঠানটি মহাকাশে পর্যটক পাঠাবে বলে জানিয়েছে। ক্যারিবীয় দ্বীপপুঞ্জের দেশ এন্টিগুয়া ও বারমুডার এক স্বাস্থ্যবিষয়ক পরামর্শক ওই লটারিতে মহাকাশে যাওয়ার দুইটি টিকিট জিতেছেন, যার মূল্য প্রায় ১০ লাখ ডলার। যিনি টিকিট জিতেছেন তিনি তার মেয়েকে সঙ্গে নিয়ে মহাকাশে পাড়ি দেবেন বলে জানা গেছে।

বুধবার (২৪ নভেম্বর) ভার্জিন গ্যালাকটিক ওই নারীর টিকিট জয়ের কথা জানিয়েছে।

লটারিতে দুই টিকিট জেতা ৪৪ বছর বয়সী ওই নারীর নাম কেইশা শাহাফ। তার মেয়ে বিজ্ঞানের শিক্ষার্থী, পড়াশোনা করছে যুক্তরাজ্যে। মেয়েটির স্বপ্ন, একদিন মার্কিন মহাকাশ গবেষণা সংস্থা নাসার হয়ে কাজ করবে সে। তাই মেয়েকে নিয়ে মহাকাশে যেতে চান কেইশা।

টিকিট জয়ের খবরটি কেইশা পেয়েছেন ভার্জিন গ্যালাকটিকের প্রতিষ্ঠাতা রিচার্ড ব্র্যানসনের কাছে। নভেম্বরের শুরুতে কেইশার বাড়িতে গিয়ে চমকে দেন ব্র্যানসন।

কেইশা শাহাফ এএফপিকে বলেন, ‘আমার মনে হচ্ছিল আমি শুধু জুম অ্যাপ্লিকেশন ব্যবহার করে কথা বলছিলাম। যখন আমি দেখলাম, রিচার্ড ব্র্যানসন আমার ঘরে ঢুকছেন, তখন আমি চিৎকার করতে শুরু করি। সেই শৈশব থেকে আমার মহাকাশ যাওয়ার আগ্রহ। এটি হবে আমার জীবনের সবচেয়ে সেরা অ্যাডভেঞ্চারের সুযোগ।’

ওমাজ প্ল্যাটফর্ম নামে মার্কিন কোম্পানির মাধ্যমে ভার্জিন গ্যালাকটিক কর্তৃক আয়োজিত একটি তহবিল সংগ্রহকারী লটারিতে নাম লেখানোর পর শাহাফ পুরস্কার জিতেছেন। এর মাধ্যমে ১৭ লাখ ডলার সংগ্রহ করা হয়েছে। এই অর্থ ‘স্পেস ফর হিউম্যানিটি’ নামের মহাকাশ নিয়ে কাজ করা একটি সেবরকারি প্রতিষ্ঠানকে দেওয়া হবে।

তবে কত ডলার দিয়ে কেইশা লটারি কিনেছিলেন এখনো সে তথ্য প্রকাশ করা হয়নি। তবে এতে সর্বনিম্ন ১০ ডলার দিতে হয়েছে বলে ধারণা করা হচ্ছে।

ভার্জিন গ্যালাকটিক এক বিবৃতিতে জানিয়েছে, লটারিতে এক লাখ ৬৫ হাজার মানুষ অংশ নেয়। মহাকাশে ভ্রমণের পথ উন্মুক্ত করতে যাচ্ছে ভার্জিন গ্যালাকটিক। ফলে বহু মানুষ মহাকাশে ভ্রমণের সুযোগ পেতে যাচ্ছেন। ব্যাপক আলোচনা হচ্ছে মহাকাশ পর্যটন নিয়ে। যদিও মহাকাশে ভ্রমণ অত্যন্ত ব্যয়বহুল।

ব্র্যানসন জানান, সকল শ্রেণিপেশার মানুষকে মহাকাশে ভ্রমণের সুযোগ করে দিতেই গত দুই দশক ধরে তার কোম্পানি কাজ করছে। এর আগে জুলাইতে ব্লু অরিজেনের মালিক জেফ বেজোসকে টেক্কা দিয়ে সঙ্গীদের নিয়ে মহাকাশ ভ্রমণে যান ব্র্যানসন।

কোম্পানির এক মুখপাত্র জানান, যারা প্রথম বারের মতো মহাকাশ ভ্রমণে যাবেন তাদের মধ্যে কেইশা একজন। তবে তিনি কোন লাইনে সুযোগ পাবেন তা এখনো বলা যাচ্ছে না। কারণ এরই মধ্যে কোম্পনি ৭০০ টিকিট বিক্রি করেছে। ২০০৫ থেকে ২০১৪ সাল পর্যন্ত ৬০০ টিকিট বিক্রি হয়েছে। তখন প্রতিটি টিকিটের মূল্য পড়েছে আড়াই লাখ ডলার। বাকি ১০০ টিকিট বিক্রি হয়েছে চলতি বছরের আগস্টের মধ্যে। প্রতিটি টিকিটের মূল্য পড়েছে সাড়ে চার লাখ ডলার।

বাণিজ্যিকভাবে ফ্লাইট শুরুর আগে কোম্পানি এক হাজার টিকিট বিক্রির লক্ষ্যমাত্রা নির্ধারণ করেছে। ২০২২ সালের শেষের দিকে প্রথম ফ্লাইট যাত্রা করতে পারে।

ডেইলি বাংলাদেশ/মাহাদী