ঋণের টাকা চাওয়ায় ব্যাংক কর্মকর্তার ওপর হামলা

ঢাকা, রোববার   ০৫ ডিসেম্বর ২০২১,   অগ্রহায়ণ ২১ ১৪২৮,   ২৮ রবিউস সানি ১৪৪৩

ঋণের টাকা চাওয়ায় ব্যাংক কর্মকর্তার ওপর হামলা

ফেনী প্রতিনিধি ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

 প্রকাশিত: ১৮:৪১ ২৪ নভেম্বর ২০২১  

ছবি: ডেইলি বাংলাদেশ

ছবি: ডেইলি বাংলাদেশ

ফেনী শহরের শহীদ শহীদুল্লাহ কায়সার সড়কের মেসার্স ইউছুফ মাল্টি ট্রেডার্সে ঋণের টাকা চাইতে গিয়ে মার খেয়ে ফিরেছেন আবদুল্লাহ আল মামুন নামের এক ব্যাংক কর্মকর্তা। 

তিনি যমুনা ব্যাংক ফেনী শাখার এক্সিকিউটিভ অফিসার হিসেবে কর্মরত। ঘটনার পর থেকে ব্যাংক কর্মকর্তাদের মাঝে ক্ষোভ বিরাজ করছে। মঙ্গলবার সন্ধ্যায় হামলাকারী ব্যবসায়ীর গ্রেফতার ও বিচার দাবিতে ব্যাংকার্স ফোরাম প্রতিবাদ সভা করেছে।

পুলিশ ও ভুক্তভোগী সূত্র জানায়, শহরের শহীদুল্লাহ কায়সার সড়কের উপশম জেনারেল হাসপাতাল সংলগ্ন মেসার্স ইউছুফ মাল্টি ট্রেডার্সের মালিক ও সোনাগাজীর বগাদানা ইউনিয়নের আলমপুর গ্রামের বেপারী বাড়ির রুস্তম আলীর ছেলে মোহাম্মদ আবু ইউছুফ যমুনা ব্যাংক ফেনী শাখা থেকে ২০১৬ সালে ২৫ লাখ টাকা ঋণ নেন। ২০১৯ সালের ঋণের মেয়াদ শেষ হয়ে গেলেও তিনি ঋণের কিস্তির টাকা পরিশোধ করেননি। 

চলতি বছরের গত ৮ নভেম্বর পর্যন্ত হিসাব অনুযায়ী ৪ লাখ ৬৫ হাজার ৮০২ টাকা ব্যাংক কতৃর্পক্ষ তার কাছে পাওনা রয়েছে। এর প্রেক্ষিতে তাকে লিগ্যাল নোটিশও দেওয়া হয়। সোমবার দুপুরে ব্যাংকের এক্সিকিউটিভ অফিসার আবদুল্লাহ আল মামুন ও অ্যাসিস্টেন্ট অফিসার জসিম উদ্দিন তার দোকানে যান। ইউছুফের কাছে ঋণের পাওনা টাকা চাওয়া মাত্র তিনি গালমন্দ করেন। একপর্যায়ে মামুনকে কিল-ঘুষি ও পিটিয়ে আহত করেন।

আবদুল্লাহ আল মামুন জানান, ঋণের পাওনা টাকা চাইতে গেলে ইউছুফ ক্ষুদ্ধ হয়ে তার ওপর হামলা চালান। এলোপাতাড়ি কিল-ঘুষি ও এসএস পাইপের আঘাতে বাম হাতে আঘাতপ্রাপ্ত হয়েছেন। তিনি ফেনী জেনারেল হাসপাতালে প্রাথমিক চিকিৎসা নিয়েছেন। এ ঘটনায় তিনি বাদী হয়ে ফেনী মডেল থানায় মামলা দায়ের করেছেন।

ফেনী মডেল থানার ওসি মো. নিজাম উদ্দিন ব্যাংক কর্মকর্তার ওপর হামলার ঘটনায় মামলা দায়েরের সত্যতা নিশ্চিত করেছেন। তিনি জানান, ঘটনার পর থেকে আসামি আবু ইউছুফ পলাতক রয়েছেন। তাকে গ্রেফতারে পুলিশ চেষ্টা করছে।

এদিকে মঙ্গলবার সন্ধ্যায় ফেনী ব্যাংকার্স ফোরাম হামলার ঘটনায় প্রতিবাদ সভা করেছে। ফোরামের সাধারণ সম্পাদক কামাল উদ্দিনের পরিচালনায় সভায় সভাপতিত্ব করেন ফোরামের সভাপতি সামছুল করিম মজুমদার। তারা ঘটনায় জড়িত আবু ইউছুফকে অবিলম্বে গ্রেফতার ও দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবি জানান। অন্যথায় ব্যাংকার্স ফোরামের পক্ষ থেকে কর্মসূচি দেওয়া হবে বলে ঘোষণা দেন।

ডেইলি বাংলাদেশ/আরএম