অ্যাপল-অ্যামাজনকে ২০ কোটি ইউরো জরিমানা

ঢাকা, রোববার   ০৫ ডিসেম্বর ২০২১,   অগ্রহায়ণ ২১ ১৪২৮,   ২৮ রবিউস সানি ১৪৪৩

অ্যাপল-অ্যামাজনকে ২০ কোটি ইউরো জরিমানা

আন্তর্জাতিক ডেস্ক ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

 প্রকাশিত: ১৬:৩৮ ২৪ নভেম্বর ২০২১  

ছবি: সংগৃহীত

ছবি: সংগৃহীত

অ্যামাজন ও অ্যাপলকে ২০ কোটি ইউরোর বেশি জরিমানা করেছে ইতালির অ্যান্ট্রিটাস্ট নিয়ন্ত্রক কর্তৃপক্ষ। অ্যাপল ও বিটস পণ্য বিক্রির ক্ষেত্রে দুই প্রতিষ্ঠান প্রতিযোগিতাবিমুখ সহযোগিতায় অংশ নিয়েছে এমন অভিযোগের পরিপ্রেক্ষিতে জরিমানা করা হয়েছে উভয় প্রতিষ্ঠানকে।

ইতালির নিয়ন্ত্রক কর্তৃপক্ষ এ বিষয়ে মঙ্গলবার দেওয়া এক বিবৃতিতে বলেছে, ২০১৮ সালের ৩১ অক্টোবরের এক সমঝোতা চুক্তির অধীনে ইতালিতে অ্যাপল ও বিটস পণ্যের অফিশিয়াল ও আনঅফিশিয়াল বিক্রেতাদের ইতালীয় অ্যামাজন সাইট ব্যবহারে নিষেধাজ্ঞা আরোপ করা হয়েছিল। ফলে ওই পণ্যগুলোর বিক্রির অনুমতি বৈষম্যমূলকভাবে কেবল অ্যামাজন এবং নির্ধারিত পক্ষ পায়।

সংবাদমাধ্যম রয়টার্স জানিয়েছে, ইতালির বাজার নিয়ন্ত্রক সংস্থা বলছে দুই প্রতিষ্ঠানের সমঝোতা চুক্তি ইউরোপিয়ান ইউনিয়নের নীতির পরিপন্থী। ওই ঘটনায় ছয় কোটি ৮৭ লাখ ইউরো জরিমানা করা হয়েছে অ্যামাজনকে। অ্যাপলকে জরিমানা করা হয়েছে ১৩ কোটি ৪৫ লাখ ইউরো। একইসঙ্গে দুই প্রতিষ্ঠানকে বেআইনি নিষেধাজ্ঞা উঠিয়ে নিতে বলেছে বাজার নিয়ন্ত্রক সংস্থাটি।

অ্যামাজন জানিয়েছে, প্রস্তাবিত জরিমানা অসামঞ্জস্যপূর্ণ ও অযৌক্তিক। আমরা কোনো বিক্রেতাকে বাদ দেই না বরং আমাদের ব্যবসায়িক মডেল তাদের সাফল্যর ওপর নির্ভর করে। তবে অ্যাপল ইতালির প্রতিযোগিতা কর্তৃপক্ষের প্রতি শ্রদ্ধা রেখে জানায়, আমরা অন্যায় বা ভুল কিছু করিনি।

অ্যাপল বলছে, নির্বাচিত রিসেলারদের সঙ্গে একত্রে কাজ করলে ভোক্তাদের সুরক্ষা নিশ্চিত হয়। ভোক্তারা আসল পণ্য পায় বলে জানায় অ্যাপল। নকল পণ্য সরবরাহ করা খুবই বিপজ্জনক। ভোক্তাদের আসল পণ্য নিশ্চিত করতেই আমরা আমাদের রিসেলারদের সঙ্গে একত্রে কাজ করি। বিশ্বের সব দেশেই অ্যাপেলের একটি দল কাজ করে। যারা ভোক্তাদের আসল পণ্য নিশ্চিত করার জন্য সংশ্লিষ্ট দেশের আইন প্রয়োগকারী সংস্থা, শুল্ক ও ব্যবসায়ীদের সঙ্গে কাজ করে।

ডেইলি বাংলাদেশ/আরএএইচ