নতুন মাদক ‘ডিওবি’ উদ্ধার, এসেছে পোল্যান্ড থেকে 

ঢাকা, মঙ্গলবার   ৩০ নভেম্বর ২০২১,   অগ্রহায়ণ ১৭ ১৪২৮,   ২৩ রবিউস সানি ১৪৪৩

নতুন মাদক ‘ডিওবি’ উদ্ধার, এসেছে পোল্যান্ড থেকে 

খুলনা প্রতিনিধি ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

 প্রকাশিত: ১১:৪৯ ২৪ নভেম্বর ২০২১   আপডেট: ১২:১০ ২৪ নভেম্বর ২০২১

উদ্ধাকৃত মাদক এলএসডি ও ডিওবি

উদ্ধাকৃত মাদক এলএসডি ও ডিওবি

খুলনায় ভয়াবহ মাদক ‘ডিওবি’ (ডাইমিথোক্সিবোমো এমফিটামিন) উদ্ধার করেছে মাদক নিয়ন্ত্রণ অধিদফতর। এলএসডির মতো দেখতে এই মাদক দেশে প্রথম ধরা পড়ল। পোল্যান্ড থেকে বিটকয়েন দিয়ে ক্রয় করা হয় এই মাদক। পরে কুরিয়ার সার্ভিসের মাধ্যমে দেশে আসে। 

গত ২২ নভেম্বর খুলনায় মাদকের এই চালান আটক করে মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদফতর। এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন ঢাকা মেট্রো (উত্তর কার্যালয়) মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদফতরের উপ-পরিচালক মো. রাশেদুজ্জামান।

তিনি বলেন, খুলনা মহানগরীর বিভিন্ন জায়গায় অভিযান চালায়ে তিনজনকে গ্রেফতার করে ঢাকা মেট্রো (উত্তর কার্যালয়) মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদফতরের একটি বিশেষ টিম। তাদের কাছ থেকে ১০ পিস এলএসডি এবং ৯০ পিস  ডিওবি উদ্ধার হয়। উদ্ধারকৃত মাদকের দাম ১০ লাখ টাকা।


গ্রেফতারকৃতরা হলেন- মো. আসিফ আহমেদ শুভ (৩১), অর্ণব কুমার শর্মা (৩০) এবং সুন্দরবন কুরিয়ার সার্ভিসের ম্যানেজার মো. মামুনুর রশিদ। 

মো. রাশেদুজ্জামান বলেন, ব্রোমো-২, ৫-ডাইমিথোক্সি এমফিটামিন- যা সাধারণত ডাইমিথোক্সি বোমো এমফিটামাইন, ব্রোল এমফিটামিন, ব্রোমো-ডিএমএ অথবা ডিওবি নামক নতুন একটি মাদক। দেখতে এলএসডির মতো। একটি কী-ওয়ার্ড-এর সূত্র ধরে জানতে পারি দেশে নতুন মাদক এসেছে। গত আগস্ট মাস থেকে অনুসন্ধান করতে থাকি। পরে কয়েকটি চক্রকে আমরা গ্রেফতার করি। তাদের দেওয়া তথ্য থেকে এলএসডি ও ডিওবি মাদকের চক্রটির সন্ধান পাই।

তিনি বলেন, গত ২১ নভেম্বর সুন্দরবন কুরিয়ার সার্ভিসের এলিফ্যান্ট রোড শাখা হতে ৫টি এলএসডি জব্দ করা হয়। পরে জানতে পারি মূল হোতা খুলনায় অবস্থান করছে। এরপর ২২ নভেম্বর সকালে ঢাকা হতে খুলনায় এসে দুপুর ২টায় মহানগরীর বয়রা মুজগুন্নী এলাকায় অভিযান পরিচালনা করেন টিমের সদস্যরা। পরে মুজগুন্নী আবাসিক এলাকার বাসিন্দা মৃত আফসার উদ্দিনের ছেলে মো. আসিফ আহমেদ শুভকে ১০ পিস এলএসডিসহ আটক করা হয়। প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে শুভ জানায়, ৫টি এলএসডি সুন্দরবন কুরিয়ার সার্ভিসের ম্যানেজার মামুনুর রশীদের সহায়তায় তথ্য গোপন করে ঢাকায় পাঠানো হয়েছে। তার বন্ধু অর্ণব কুমার শর্মার বাসায় বিপুল পরিমাণ ডিওবি মাদক আছে। এরপর অর্ণব কুমার শর্মার বাসায় অভিযান পরিচালনা করে ৯০ পিস ডিওবি মাদক উদ্ধার করা হয়।

উপ-পরিচালক রাশেদুজ্জামান বলেন, এলএসডির চেয়েও ভয়াবহ মাদক ডিওবি। ডার্কওয়েব ব্যবহার করে বিটকয়েনে পেমেন্ট করে পোস্ট অফিসের মাধ্যমে পোল্যান্ড থেকে ডিওবি মাদক দেশে এনেছে। এই মাদক সেবন করে তার রেভ্যুলেশনারি চিন্তাভাবনা জাগ্রত হয়। এর মাধ্যমে সে পৃথিবীতে পরিবর্তন আনতে চায়।

তিনি আরও বলেন, গ্রেফতারকৃত আসামিদের বিরুদ্ধে মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ আইনে , ২০১৮ (সংশোধিত ২০২০) ধারায় মামলা করা হয়েছে।  

ডেইলি বাংলাদেশ/আরএডি