পশ্চিম তীরে ইসরায়েলের অবৈধ বসতি নির্মাণের বিরোধিতা যুক্তরাষ্ট্রের

ঢাকা, বুধবার   ০৮ ডিসেম্বর ২০২১,   অগ্রহায়ণ ২৪ ১৪২৮,   ০২ জমাদিউল আউয়াল ১৪৪৩

পশ্চিম তীরে ইসরায়েলের অবৈধ বসতি নির্মাণের বিরোধিতা যুক্তরাষ্ট্রের

আন্তর্জাতিক ডেস্ক ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

 প্রকাশিত: ১৮:৪২ ২৭ অক্টোবর ২০২১  

ছবি: নেড প্রাইস

ছবি: নেড প্রাইস

অধিকৃত পশ্চিম তীরে নতুন করে ইহুদি বসতি স্থাপনের ইসরায়েলি পরিকল্পনার ‘তীব্র বিরোধিতা’ করেছে যুক্তরাষ্ট্র।

মঙ্গলবার মার্কিন পররাষ্ট্র দপ্তরের মুখপাত্র নেড প্রাইস বলেন, যুক্তরাষ্ট্র পশ্চিম তীরে ইসরায়েলের অবৈধ বসতি তৈরির প্রকল্প সমর্থন করে না।

ফিলিস্তিনির ভূমি পশ্চিম তীর দীর্ঘদিন ধরেই অবৈধভাবে দখল করে রেখেছে ইহুদিবাদি ইসরায়েল। আন্তর্জাতিক আইনের চোখে ওই জমি ফিলিস্তিনের। কিন্তু যত দিন যাচ্ছে পশ্চিম তীরে নিজেদের আধিপত্য বাড়াচ্ছে ইসরায়েল। সম্প্রতি সেখানে আরো এক হাজার ৩০০ ফ্ল্যাটের হাউসিং তৈরির টেন্ডার হয়েছে।

সাংবাদিকদের সঙ্গে আলাপকালে নেড প্রাইস বলেন, ‘মার্কিন প্রশাসন ইসরায়েলের পরিকল্পনার বিষয়ে গভীরভাবে উদ্বিগ্ন। তাদের এ ধরনের কর্মকাণ্ডের ফলে ‘টু স্টেট’ সমাধানের যে চেষ্টা চলছে, তা ক্ষতিগ্রস্ত হবে এবং ওই অঞ্চলে উত্তেজনা আরো বৃদ্ধি পাবে।’

ইসরায়েলের কট্টর ডানপন্থী প্রধানমন্ত্রী নাফতালি বেনেটের সরকারের পক্ষ থেকে বলা হয়েছে, পশ্চিম তীরে ইহুদিদের অস্তিত্ব তৈরি করা অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ। সেই লক্ষ্যেই এগোচ্ছে তারা।

১৯৬৭ সালে ৬ দিনের আরব-ইসরায়েল যুদ্ধের সময় পশ্চিম তীর দখল করে ইসরায়েল। এর পর থেকে বিভিন্ন দফায় সেখানে বসতি স্থাপন করেছে দেশটি।

এদিকে নতুন করে বসতি স্থাপনের এই পরিকল্পনার নিন্দা জানিয়েছেন ফিলিস্তিনের প্রধানমন্ত্রী মোহাম্মদ শাতায়াহ। সাপ্তাহিক মন্ত্রিসভার বৈঠকে তিনি ইসরায়েলের এই বসতি নির্মাণকে ফিলিস্তিনিদের ওপর ‘আগ্রাসন’ বলে বর্ণনা করেন। এ সময় ইসরায়েলি আগ্রাসন ঠেকাতে বিশ্বের অন্যান্য দেশ বিশেষ করে যুক্তরাষ্ট্রের প্রতি আহ্বান জানান তিনি।

ডেইলি বাংলাদেশ/মাহাদী

English HighlightsREAD MORE »