সৌদির নারীদের থেকে পুরুষের বেতন কম

ঢাকা, বুধবার   ২০ অক্টোবর ২০২১,   কার্তিক ৫ ১৪২৮,   ১২ রবিউল আউয়াল ১৪৪৩

সৌদির নারীদের থেকে পুরুষের বেতন কম

আন্তর্জাতিক ডেস্ক ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

 প্রকাশিত: ০৬:১৪ ১৯ সেপ্টেম্বর ২০২১   আপডেট: ০৬:২৪ ১৯ সেপ্টেম্বর ২০২১

সৌদির নারীদের থেকে পুরুষের বেতন কম। ছবি: সংগৃহীত

সৌদির নারীদের থেকে পুরুষের বেতন কম। ছবি: সংগৃহীত

গোড়া রক্ষণশীল সমাজ ব্যবস্থা থেকে আস্তে আস্তে বেরিয়ে আসছে সৌদি আরব। যুবরাজ মোহাম্মদ বিন সালমানের হাত ধরে আসছে এই পরিবর্তন। দেশটিতে সামাজিক ও অর্থনৈতিক সংস্কারের উদ্যোগ নিয়েছেন তিনি। তার সংস্কার পরিকল্পনা ‘ভিশন ২০৩০’ অনুসারে নারীদের ওপর থেকে নিষেধাজ্ঞা গুলো একে একে তুলে নেয়া হয়েছে।

অভিভাবকদের অনুমতি ছাড়া প্রাপ্তবয়স্ক নারীদের বাইরে থাকার বিধিনিষেধও প্রত্যাহার করা হয়েছে। পরিবারে নারীদের ক্ষমতা বাড়ানো হয়েছে। গাড়ি চালনা থেকে শুরু করে দেশটির সেনাবাহিনীতেও নিয়োগ পাচ্ছেন নারীরা। তবে দেশটিতে নারীদের তুলনায় কম হারে বেতন পাচ্ছেন পুরুষরা।

দেশটির মানবসম্পদ ও সামাজিক উন্নয়ন মন্ত্রণালয়ের তথ্যের ভিত্তিতে আল-ওয়াতান পত্রিকার একটি প্রতিবেদনের উদ্ধৃতি দিয়ে এ তথ্য প্রকাশ করেছে সৌদি গেজেট। খবর মিডলইস্ট ডট ইন টুয়েন্টি ফোর।

প্রতিবেদনে বলা হয়, সৌদি আরবে পুরুষদের তুলনায় নারীদের গড় বেতন বেশি। ২০২০ সালে নারীদের গড় মাসিক বেতন ছিল ৪১০৫ রিয়াল আর পুরুষদের বেতন ছিল ৩৯৪৪ 

যদিও প্রতিবেদন বলছে, এ সময়ে নারীদের বার্ষিক বেতন বৃদ্ধি পেলেও সামগ্রিকভাবে লিঙ্গবৈষম্য পুরোপুরি দূর হয়নি। তথ্য বিশ্লেষণে দেখা যায় ব্যক্তিমালিকানাধীন প্রতিষ্ঠানগুলোতে পুরুষদের গড় বেতন ছিল ১৮২০ ডলার, আর নারী সহকর্মীদের বেতন ছিল ১১৯০ ডলার।

প্রসঙ্গত, রক্ষণশীলতা থেকে বেরিয়ে সমাজে গুরুত্বপূর্ণ হয়ে উঠছে সৌদি নারীরা। সৌদি আরবের অনেক নারী এখন চাকরি করছেন। ধর্মীয় রক্ষণশীলতার কারণে দেশটিতে এতদিন নারীদের চাকরি করতে তেমন দেখা না গেলেও এখন শ্রমবাজারে উল্লেখ্যযোগ্য হারে নারীর সংখ্যা বাড়ছে।

জ্বালানি তেল বেচে রাজকীয় জীবনযাপনের যে আয়েশ দেশটি এতদিন ভোগ করেছে তা নিয়ে শঙ্কা থেকেই সৌদির রূপান্তরিত সমাজে নারীরা গুরুত্বপূর্ণ হয়ে উঠেছে। সৌদির ডি-ফ্যাক্টো নেতা ক্রাউন প্রিন্স যুবরাজ সালমানও তাই নানা সংস্কার প্রকল্প শুরু করেছেন।

ডেইলি বাংলাদেশ/এসএ