হত্যার পর মায়ের মাংস খেল ছেলে, ১৫ বছরের কারাদণ্ড

ঢাকা, শনিবার   ৩১ জুলাই ২০২১,   শ্রাবণ ১৬ ১৪২৮,   ২০ জ্বিলহজ্জ ১৪৪২

হত্যার পর মায়ের মাংস খেল ছেলে, ১৫ বছরের কারাদণ্ড

আন্তর্জাতিক ডেস্ক ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

 প্রকাশিত: ২০:৩২ ১৬ জুন ২০২১  

ছবি: সংগৃহীত

ছবি: সংগৃহীত

স্পেনে নিজের মাকে হত্যার পর মাংস খাওয়ার ঘটনায় ২৮ বছরের এক যুবককে ১৫ বছরের কারাদণ্ড দিয়েছে আদালত। খবর বিবিসির।

স্থানীয় সময় বুধবার এ রায় ঘোষণা করা হয়। দণ্ডিত যুবকের নাম আলবার্তো স্যানচেজ গোমেজ।

২০১৯ সালে সানচেজ গোমেজকে নিজের মায়ের বাসা থেকে গ্রেফতার করে পুলিশ। ওই সময় প্লাস্টিক কন্টেইনার থেকে তার মায়ের শরীরের বিভিন্ন অঙ্গ উদ্ধার করা হয়।

আদালতে সানচেজ জানান, কথা কাটাকাটির সময় নিজের মাকে শ্বাসরোধে হত্যা করেন তিনি। হত্যার পর মায়ের শরীর কেটে টুকরো টুকরো করেন সানচেজ। পরবর্তী দুই সপ্তাহ ধরে মায়ের মাংস রান্না করে খান তিনি। কিছু অংশ তার কুকুরকেও খাওয়ান।

তিনি আরো জানান, ওই হত্যাকাণ্ডের সময় তার বয়স ছিল ২৬ বছর। তখন তিনি মানসিকভাবে ভারসাম্যহীন ছিলেন। তবে আদালত তার যুক্তি খারিজ করে দেন।

মাকে হত্যার ঘটনায় সানচেজকে ১৫ বছরের কারাদণ্ড দেয় আদালত। একই সঙ্গে মায়ের মরদেহ বিকৃত করায় আরো পাঁচ মাসের কারাদণ্ড দেয়া হয়। এছাড়া ক্ষতিপূরণ বাবদ তার ভাইকে ৬০ হাজার ইউরো দিতে নির্দেশ দিয়েছেন আদালত।

মারিয়া সোলেদাদ গোমেজের বিষয়ে তার এক বন্ধু উদ্বেগ প্রকাশ করার পর ২০১৯ সালের ফেব্রুয়ারিতে পূর্বাঞ্চলীয় মাদ্রিদে তার বাড়িতে পৌঁছায় পুলিশ।

ডেইলি বাংলাদেশ/এমআর