ভারতে করোনায় একদিনে সর্বোচ্চ ৪৩২৯ জনের মৃত্যু

ঢাকা, শনিবার   ১২ জুন ২০২১,   জ্যৈষ্ঠ ২৯ ১৪২৮,   ০১ জ্বিলকদ ১৪৪২

ভারতে করোনায় একদিনে সর্বোচ্চ ৪৩২৯ জনের মৃত্যু

আন্তর্জাতিক ডেস্ক ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

 প্রকাশিত: ১১:৪০ ১৮ মে ২০২১   আপডেট: ১১:৫২ ১৮ মে ২০২১

ছবি: সংগৃহীত

ছবি: সংগৃহীত

করোনাভাইরাসে ভারতে গত ২৪ ঘণ্টায় ৪ হাজার ৩২৯ জনের মৃত্যু হয়েছে। মহামারি পর্বে এখন পর্যন্ত এটি সর্বোচ্চ মৃত্যু। এই সময়ে দেশটিতে আক্রান্ত হয়েছেন ২ লাখ ৬৩ হাজার ৫৫৩ জন। 

মঙ্গলবার ভারতের কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের পরিসংখ্যান অনুসারে, দেশটিতে গত ২৪ ঘণ্টায় আক্রান্ত হয়েছেন  ২ লাখ ৬৩ হাজার ৫৫৩ জন। এ নিয়ে দেশটিতে মোট আক্রান্তের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়িয়েছে ২ কোটি ৫২ লাখ ২৮ হাজার ৯৯৬ জন। গত ২৪ ঘণ্টায় মারা গেছেন ৪ হাজার ৩২৯ জন। এতে মৃতের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়িয়েছে হয়েছে ২ লাখ ৭৮ হাজার ৭১৯ জন। 

জানা গেছে, দেশটির মহারাষ্ট্র, দিল্লি, উত্তরপ্রদেশ, ছত্তীসগঢ়, গুজরাট, মধ্যপ্রদেশ, বিহার, কেরালার মতো রাজ্যগুলোতে সংক্রমণ কমছে। তবে তামিলনাড়ু, কর্নাটক, অন্ধ্রপ্রদেশের সংক্রমণ পরিস্থিতি এখনও লাগামাছাড়া। পশ্চিমবঙ্গেও গত ২৪ ঘণ্টায় আক্রান্ত হয়েছেন ১৯ হাজার ৩ জন।

ভারতজুড়ে করোনার ভ্যাকসিন কার্যক্রম চালু থাকলেও স্বাস্থ্যসেবা খাত অনেকটাই ভেঙে পড়েছে। রোগী সামলাতে হিমশিম খাচ্ছে হাসপাতালগুলো। অভাব দেখা দিয়েছে অক্সিজেন ও প্রয়োজনীয় ওষুধেরও। অক্সিজেনের অভাবে হাসপাতালগুলোতে ইতোমধ্যেই বহু রোগীর মৃত্যু হয়েছে।

এদিকে করোনার সংক্রমণ ঠেকাতে দেশটির বিভিন্ন রাজ্যে লকডাউন দেয়া হয়েছে।

বিশেষজ্ঞরা এখন ভারতে করোনার তৃতীয় ঢেউয়ের আশঙ্কা করছেন। তারা বলছেন, তৃতীয় ঢেউ ঠেকানো যাবে না, বরং ভ্যাকসিন আরও উন্নত করতে হবে।

২০১৯ সালের ডিসেম্বরে চীনের হুবেই প্রদেশের উহানে প্রথম করোনার অস্তিত্ব শনাক্ত হয়। এরপর সারাবিশ্বে তা ছড়িয়ে পড়ে।

ডেইলি বাংলাদেশ/আরএএইচ/টিআরএইচ