আকাশে বিস্ফোরণ, নেমে এল রাশি রাশি আগুনের গোলা!

ঢাকা, মঙ্গলবার   ০৩ আগস্ট ২০২১,   শ্রাবণ ১৯ ১৪২৮,   ২৩ জ্বিলহজ্জ ১৪৪২

আকাশে বিস্ফোরণ, নেমে এল রাশি রাশি আগুনের গোলা!

আন্তর্জাতিক ডেস্ক ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

 প্রকাশিত: ১৫:৫৫ ২৮ মার্চ ২০২১   আপডেট: ১৬:০৪ ২৮ মার্চ ২০২১

ছবি: সংগৃহীত

ছবি: সংগৃহীত

হঠাৎ করেই শোনা গেল বিরাট বিস্ফোরণের শব্দ। এরপরেই আকাশ থেকে নেমে আসতে দেখা গেল রাশি রাশি আগুনের গোলা। এমন ঘটনা দেখে অনেকের মাঝে অতঙ্ক ছড়িয়ে পড়ে। বড় উল্কাপিণ্ড মনে হয় পৃথিবীর বায়ূমণ্ডলে প্রবেশ করে খণ্ড-বিখণ্ড হয়ে গেছে।

সম্প্রতি এমন ঘটনা ঘটেছে যুক্তরাষ্ট্রের সিয়াটলের উত্তর-পশ্চিম প্রশান্ত মহাসাগরের ওপরের আকাশে। এদিন রাতে যাদের আকাশের দিকে চোখ পড়েছিল তারা সবাই ভয় পেয়ে গেছিলেন। 

ভয়ে অনেকেই ভেবেছিলেন হয়তো কোনো উল্কাপিণ্ড ধেয়ে আসছে পৃথিবীর দিকে। আর সেটা বায়ুমণ্ডলের সঙ্গে সংঘর্ষ হয়ে তা জ্বলে-পুড়ে সেটার ধ্বংসাবশেষ পৃথিবীতে আচঁড়ে পড়ছে। এ কারণেই হয়তো আকাশ থেকে নেমে আসছে আগুনের গোলা।

গত ২৫ মার্চ রাতে ঘটনাটি ঘটে। এই ঘটনার ভিডিও সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ছড়িয়ে পড়লে তা নিয়ে রীতিমতো শোরগোল শুরু হয়ে যায়। একের পর এক পোস্টে ভেসে যায় ফেসবুক, টুইটার, ইনস্টাগ্রাম। বিশেষজ্ঞরা জানান, যে এটা কোনো উল্কাপিণ্ড ছিল না।

আমেরিকার ‘ন্যাশনাল ওয়েদার সার্ভিস (এনডব্লিউএস)’ টুইট করে জানায়, ‘সিয়াটলে রাতের আকাশে যে আগুনের গোলা আকাশ থেকে নেমে আসতে দেখা গেছে সেগুলো মূলত স্পেসএক্সের ‘ফ্যালকন-৯’ রকেটের দ্বিতীয় পর্যায়ের ধ্বংসাবশেষ’।

টুইটে আরও জানানো হয়, আকাশে ওই আগুনের গোলাগুলোকে উজ্জ্বল উল্কাপিণ্ডের মতো লাগছিল ঠিকই, কিন্তু আসলে সেটা আগুনের গোলা নয়। কারণ, বায়ুমণ্ডলের সঙ্গে সংঘর্ষের পর উল্কাপিণ্ড আরও অনেক বেশি গতিবেগে নিচে নেমে আসে। কিন্তু সিয়াটলের ঘটনায় তা হয়নি।

গত ৪ মার্চ ফ্যালকন-৯ রকেট উৎক্ষেপণ করে এলন মাস্কের সংস্থা স্পেসএক্স। ফ্যালকন-৯ রকেটের দ্বিতীয় পর্যায়ে একটি ইঞ্জিন থাকে। পৃথিবীর কক্ষপথে স্যাটেলাইট স্থাপন করার পর আর কোনো কাজ থাকে না। তখন সেটা মহাকাশের আবর্জনা বা ‘স্পেস জাঙ্ক’ হয়ে যায়। সেগুলোই পরে পৃথিবীর দিকে নেমে আসলে বায়ুমণ্ডলের সঙ্গে সংঘর্ষ হয়। আর তখনই আগুনের গোলার মতো দেখা যায়।

ভিডিওটি দেখুন:

সূত্র: বিবিসি

ডেইলি বাংলাদেশ/মাহাদী