ইসরায়েলের বিরুদ্ধে ‘যুদ্ধাপরাধ’ তদন্তে যুক্তরাষ্ট্রের বাধা

ঢাকা, বুধবার   ২১ এপ্রিল ২০২১,   বৈশাখ ৯ ১৪২৮,   ০৮ রমজান ১৪৪২

ইসরায়েলের বিরুদ্ধে ‘যুদ্ধাপরাধ’ তদন্তে যুক্তরাষ্ট্রের বাধা

আন্তর্জাতিক ডেস্ক ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

 প্রকাশিত: ১৯:২৫ ৫ মার্চ ২০২১  

ছবি: কমলা হ্যারিস ও বেনিয়ামিন নেতানিয়াহু

ছবি: কমলা হ্যারিস ও বেনিয়ামিন নেতানিয়াহু

ইসরায়েলের বিরুদ্ধে ফিলিস্তিনি ভূমিতে যুদ্ধাপরাধ সংঘটনের অভিযোগে আন্তর্জাতিক অপরাধ আদালতের (আইসিসি) তদন্ত শুরুর বিপক্ষে অবস্থান নিয়েছে যুক্তরাষ্ট্র।

বৃহস্পতিবার মার্কিন ভাইস প্রেসিডেন্ট কমলা হ্যারিস নিজেই ইসরায়েলি প্রধানমন্ত্রী বেনিয়ামিন নেতানিয়াহুকে ফোন করে বিষয়টি নিয়ে আশ্বস্ত করেছেন বলে হোয়াইট হাউসের বরাত দিয়ে জানিয়েছে বার্তা সংস্থা রয়টার্স।

বাইডেনের সহযোগী হিসেবে হোয়াইট হাউসে দায়িত্ব গ্রহণের পর বৃহস্পতিবার (৪ মার্চ) প্রথমবারের মতো ঘনিষ্ঠ মিত্র ইসরায়েলি প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে টেলিফোনে কথা বলেছেন হ্যারিস। আন্তর্জাতিক অপরাধ আদালত আনুষ্ঠানিকভাবে ইসরায়েলের যুদ্ধাপরাধ তদন্তের ঘোষণা দেয়ার একদিন পরেই নেতানিয়াহুর কাছে ফোন করেন যুক্তরাষ্ট্রের নতুন ভাইস প্রেসিডেন্ট।

হোয়াইট হাউস বিবৃতির মাধ্যমে জানিয়েছে, নেতানিয়াহু ও হ্যারিস উভয়েই তাদের সরকারের পক্ষ থেকে ইসরায়েলি কর্মকর্তাদের ওপর আন্তর্জাতিক অপরাধ আদালতের বিচারিক প্রচেষ্টার বিরোধিতার কথা উল্লেখ করেছেন। দুই নেতা আঞ্চলিক নিরাপত্তা, বিশেষ করে ইরানের পরমাণু কর্মসূচি এবং ‘বিপজ্জনক’ আচরণের বিষয়ে সহযোগিতা বৃদ্ধি অব্যাহত রাখতে সম্মত হয়েছেন।

বিবৃতিতে বলা হয়, ইসরায়েলের নিরাপত্তা রক্ষায় যুক্তরাষ্ট্রের প্রতিশ্রুতি অটল রাখার বিষয়ে গুরুত্বারোপ করেছেন কমলা হ্যারিস।

ইসরায়েলে ব্যাপক করোনা টিকাদান কর্মসূচির জন্য নেতানিয়াহুকে এদিন অভিনন্দনও জানিয়েছেন মার্কিন ভাইস প্রেসিডেন্ট। পাশাপাশি করোনা ভাইরাস মহামারি, সবুজ জ্বালানিসহ বিভিন্ন বিষয়ে পারস্পরিক সহযোগিতা বৃদ্ধিতে সম্মত হয়েছেন দুই নেতা।

ইসরায়েলের যুদ্ধাপরাধ তদন্ত নিয়ে দীর্ঘদিন কাজ করা ফাতু বেনসৌদাকে আইসিসির চিফ প্রসিকিউটরের পদ থেকে সরে যেতে হবে আগামী জুনে। তবে এর আগেই গত বুধবার (৩ মার্চ) ফিলিস্তিনে সম্ভাব্য যুদ্ধাপরাধ অভিযোগের আনুষ্ঠানিক তদন্ত শুরুর ঘোষণা দিয়েছেন তিনি। এরপর বিষয়টি এগিয়ে নেবেন বেনসৌদার স্থলাভিষিক্ত হতে চলা ব্রিটিশ আইনজীবী করিম খান।

বুধবারের বিবৃতিতে ফাতু বেনসৌদা বলেছেন, ফিলিস্তিনের পরিস্থিতি বিবেচনায় আন্তর্জাতিক অপরাধ আদালতের প্রসিকিউটরের কার্যালয়ের তদন্ত শুরুর বিষয়টি নিশ্চিত করছি। তদন্তটি পুরোপুরি স্বাধীন, নিরপেক্ষ ও প্রভাবমুক্ত, ভয় বা পক্ষপাতহীনভাবে পরিচালিত হবে।

আন্তর্জাতিক আদালতের এই তদন্ত প্রক্রিয়ায় শুরু থেকেই তীব্র প্রতিবাদ জানিয়ে আসছে ইসরায়েল। তারা আইসিসির সদস্যও নয়।

ইসরায়েলিদের বিরুদ্ধে ওঠা অভিযোগকে ‘ভুয়া যুদ্ধাপরাধ’ মন্তব্য করে বুধবার আন্তর্জাতিক আদালতের তদন্ত শুরুর তীব্র নিন্দা জানিয়েছেন নেতানিয়াহু।

তাদের ঘনিষ্ঠ মিত্র যুক্তরাষ্ট্রও আন্তর্জাতিক অপরাধ আদালতের যুদ্ধাপরাধ তদন্ত শুরুতে গভীর ‘উদ্বেগ ও হতাশা’ প্রকাশ করেছে। মার্কিনিদের দাবি, ইসরায়েল আইসিসির সদস্য না হওয়ায় তাদের বিরুদ্ধে তদন্তের এখতিয়ার নেই আদালতের।

বাইডেন প্রশাসনের পররাষ্ট্রমন্ত্রী অ্যান্টনি ব্লিনকেন এক বিবৃতিতে বলেছেন, ইসরায়েল আইসিসির কোনো পক্ষ নয় এবং আদালতের এখতিয়ারে সম্মতিও দেয়নি। ইসরায়েলি কর্মকর্তাদের ওপর আইসিসির এখতিয়ার প্রয়োগের প্রচেষ্টায় আমাদের গুরুতর উদ্বেগ রয়েছে।

ডেইলি বাংলাদেশ/মাহাদী