পর্ন সাইট খুললে তথ্য যাবে পুলিশের কাছে!

ঢাকা, রোববার   ১৮ এপ্রিল ২০২১,   বৈশাখ ৬ ১৪২৮,   ০৫ রমজান ১৪৪২

পর্ন সাইট খুললে তথ্য যাবে পুলিশের কাছে!

আন্তর্জাতিক ডেস্ক ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

 প্রকাশিত: ২০:১৮ ২৬ ফেব্রুয়ারি ২০২১  

ছবি: প্রতীকী

ছবি: প্রতীকী

ইন্টারনেটের কারণে গোটা বিশ্বই এখন হাতের মুঠোয় চলে এসেছে। বিশ্বের নানা প্রান্তের খবর জানাসহ ব্যক্তিগত ও ব্যবসা-বাণিজ্যিক কাজেও সহজেই একে অপরের সঙ্গে যোগাযোগ করতে পারছেন সবাই। ইন্টারনেটে ভাল কাজের সঙ্গে অনেকে পর্ন সাইট খুলছেন, যা ক্ষতি করছে যুবসমাজের। এবার সেই পর্ন সাইট কারা খুলছেন তা নজরদারি করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে ভারতের উত্তর প্রদেশ সরকার।

ভারতীয় সংবাদমাধ্যমসমূহ জানিয়েছে, কেউ পর্ন সাইট খুললেই সেই তথ্য চলে যাবে পুলিশের কাছে। ভবিষ্যতে তা নিয়ে ঝামেলায় পড়তে হতে পারে বলেও জানানো হয়েছে। এ ছাড়া নারীর সুরক্ষার জন্য উত্তর প্রদেশ পুলিশ একটি বিশেষ দল গঠন করেছে। যার নাম ‘ইউপি উইমেন পাওয়ারলাইন ১০৯০’।

ইউপি পুলিশের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তা নীরা রাওয়াত জানান, ১০৯০ নম্বরে ফোন দিয়ে যে কেউ নারীদের বিরুদ্ধে সহিংসতা রুখতে তথ্য সরবারহ করতে পারবেন। এ ছাড়া কেউ যারা পর্ন সার্চ করেছে তাদেরও সচেতন করা হবে যেন ভবিষ্যতে কোনো অপরাধ না ঘটতে পারে।

তিনি আরও জানান, পর্ন সার্চ করা মানুষের তালিকা পুলিশের কাছে থাকবে। ফলে এলাকায় নারীদের প্রতি সহিংসতায় জড়িত কোনো অপরাধী থাকলে তাকে খুঁজে বের করার প্রক্রিয়া সহজ হবে।

জানা গেছে, ‘উম্ফ’ নামের একটি সংস্থাকে এই গুরুত্বপূর্ণ দায়িত্ব দেয়া হয়েছে। যারা উত্তর প্রদেশ রাজ্যে ইন্টারনেটে সার্চ করা তথ্য বিশ্লেষণ করবে। কোনও ব্যক্তি যদি পর্ন দেখেন, সেই তথ্য জমা পড়বে বিশ্লেষক দলের নথিতে। এই সংক্রান্ত একটি সতর্কবার্তা পাঠানো হবে সেই ব্যক্তিকেও।

নীরা গণমাধ্যমকে আরো জানান, উত্তর প্রদেশে প্রায় ১১ দশমিক ১৬ কোটি ইন্টারনেট ব্যবহারকারী রয়েছে। আমরা সব ব্যবহারকারীর কাছেই পৌঁছাতে চাই।

এই নতুন পরিকল্পনা অনুযায়ী, লখনৌর কিছু পাবলিক জায়গায় কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তা ব্যবহার করে নারীদের মুখের ভঙ্গিমা দেখে আক্রান্তকে নির্ণয় করা যাবে এবং পুলিশে জানানো যাবে।

যদিও এই আইনটি নিয়ে এরইমধ্যেই সমালোচনা শুরু হয়েছে। অনেকেই বলেছেন নারীদের গোপনীয়তার বিষয়টি এতে রক্ষা করা সম্ভব নয়।

সূত্র: নিউজ ১৮

ডেইলি বাংলাদেশ/মাহাদী