প্রেমের প্রস্তাব না মানায় রেস্টুরেন্টে তরুণীকে মেরে পোশাক ছিঁড়ল যুবক

ঢাকা, বুধবার   ১৪ এপ্রিল ২০২১,   বৈশাখ ১ ১৪২৮,   ০১ রমজান ১৪৪২

প্রেমের প্রস্তাব না মানায় রেস্টুরেন্টে তরুণীকে মেরে পোশাক ছিঁড়ল যুবক

আন্তর্জাতিক ডেস্ক ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

 প্রকাশিত: ১২:৩৪ ১৯ ফেব্রুয়ারি ২০২১   আপডেট: ১২:৩৫ ১৯ ফেব্রুয়ারি ২০২১

প্রতীকী ছবি

প্রতীকী ছবি

ভালবাসা মানুষকে কোমল করে তোলে। আবার এই ভালবাসাই কখনো কখনো হিংস্র করে তোলে মানুষকে। যার পরিস্থিতি হয় ভয়াবহ। এমনই ঘটনার সাক্ষী হলো ভারতের বেঙ্গালুরু।

ভারতীয় সংবাদমাধ্যম নিউজ ১৮’র এক প্রতিবেদন থেকে জানা গেছে, রেস্টুরেন্টে প্রেমের প্রস্তাব না মেনে নেয়ায় তরুণীকে মারধর করে পোশাক ছিঁড়ে ফেলে এক যুবক। গত শনিবার কর্ণাটকের রাজধানী বেঙ্গালুরুর একটি রেস্ট্রো-বারে এ ঘটনা ঘটে।

পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, ২৪ বছরের এক যুবতীকে ওই রেস্টুরেন্টে বসেই প্রেমে এবং পরে বিয়ের প্রস্তাব দিয়েছিল এক যুবক। উত্তরে ওই তরুণী জানান, এ বিষয়ে ভাবতে তাকে কিছুটা সময় দিতে হবে। ভাবনাচিন্তা না করে এখনই কোনো সিদ্ধান্ত নিতে পারছেন না তিনি। একথা শুনেই রেগে অগ্নিশর্মা হয়ে ওঠে ওই যুবক। অতর্কিতে আক্রমণ করে তরুণীকে। তাকে মারধর করে এবং তার ৪৫ হাজার টাকা দামের মোবাইল ফোনটিও ছিনিয়ে নেয় সে। ধস্তাধ্বস্তিতে ছিঁড়ে যায় ওই তরুণীর পোশাকও।

পুলিশের কাছে ওই তরুণী অভিযোগ করেন, তার ওই পুরুষ বন্ধুটির নাম এরিক চার্লস। কয়েকজন বন্ধুর সঙ্গে সন্ধে ৬টার দিকে ওই রেস্টুরেন্টে গিয়েছিলেন তিনি। সেখানেই কিছুক্ষণ পরে এসে পৌঁছয় চার্লস। তাকে সকলের সামনেই প্রপোজ করে। কিন্তু তৎক্ষণাৎ কোনো উত্তর দিতে পারেননি তিনি। বরং তিনি চার্লসকে বলেছিলেন, তাকে একটু সময় দেয়ার জন্য। এ বিষয়ে বাবা-মায়ের সঙ্গে তাকে একটু কথা বলতে হবে বলেও জানান ওই তরুণী। তারপরেই নিজের সিদ্ধান্তের কথা চার্লসকে জানাতে পারবেন তিনি।

আর এতেই ক্ষেপে যায় চার্লস নামের ওই যুবক। তরুণীকে থাপ্পড় মারে সে। তার মোবাইল ফোন নষ্ট করে। ভেঙে দেয় ডেবিট কার্ডও। এরপর তরুণীর মোবাইল ফোন নিয়ে পালিয়ে যায় চার্লস।
পরে আহত অবস্থায় ওই তরুণীকে স্থানীয় একটি হাসপাতালে নিয়ে যান তার বন্ধুরা। প্রাথমিক চিকিৎসার পর স্থানীয় অশোকনগর থানায় চার্লসের বিরুদ্ধে অভিযোগ দায়ের করেন ওই তরুণী।

ডেইলি বাংলাদেশ/জেএইচএফ