বাইডেনের শপথ অনুষ্ঠানে ‘নিউক্লিয়ার ফুটবল’ হস্তান্তর নিয়ে জটিলতা

ঢাকা, মঙ্গলবার   ০৯ মার্চ ২০২১,   ফাল্গুন ২৪ ১৪২৭,   ২৪ রজব ১৪৪২

বাইডেনের শপথ অনুষ্ঠানে ‘নিউক্লিয়ার ফুটবল’ হস্তান্তর নিয়ে জটিলতা

আন্তর্জাতিক ডেস্ক ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

 প্রকাশিত: ১১:০৯ ২০ জানুয়ারি ২০২১  

ছবি: সংগৃহীত

ছবি: সংগৃহীত

মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের প্রথা অনুযায়ী শপথ গ্রহণ অনুষ্ঠানে বিদায়ী প্রেসিডেন্ট নতুন প্রেসিডেন্টের হাতে ‘নিউক্লিয়ার ফুটবল’ বা বিশেষ ধরনের ব্রিফকেস তুলে দেন। যা ব্যবহার করে প্রেসিডেন্টরা পারমানবিক হামলার অনুমোদন দিতে পারেন। কিন্তু যুক্তরাষ্ট্রের ৪৬তম প্রেসিডেন্ট হিসেবে জো বাইডেনের শপথ গ্রহণের অনুষ্ঠানে উপস্থিত থাকবেন না বর্তমান প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। ফলে এই নিউক্লিয়ার ফুটবল হস্তান্তর নিয়ে জটিলতা দেখা দিয়েছে।

জানা গেছে, আগামীকাল যখন বাইডেন শপথ নেবেন, তখন ট্রাম্প থাকবেন ফ্লোরিডায় মার-এ-লাগোতে। এটি রেওয়াজ ভাঙা ঘটনা। এখন মুশকিল হলো বিদায়ী প্রেসিডেন্ট অভিষেক অনুষ্ঠানে না থাকলে, ‘নিউক্লিয়ার ফুটবল’ হস্তান্তর হবে কীভাবে?

মার্কিন প্রেসিডেন্ট যেখানেই যাতায়াত করুন না কেন, সবখানেই তার সঙ্গে ৪৫ পাউন্ড ওজনের একটি বিশেষ ব্রিফকেস থাকে। এই বিশেষ ব্রিফকেসকে বলে নিউক্লিয়ার ফুটবল। প্রেসিডেন্টের সঙ্গে থাকা সামরিক লোকজন এই নিউক্লিয়ার ফুটবল বহন করেন। আর প্রেসিডেন্টের পকেটে একটি কার্ডে থাকে নিউক্লিয়ার কোড। নিউক্লিয়ার কোডের এই কার্ডকে ‘বিস্কুট’ বলা হয়। মার্কিন প্রেসিডেন্টের অভিষেক অনুষ্ঠানের অন্যতম গুরুত্বপূর্ণ একটি বিষয় হচ্ছে এই নিউক্লিয়ার ফুটবলের হস্তান্তর।

সংবাদমাধ্যম সিএনএন’র এক প্রতিবেদনে উল্লেখ করা হয়েছে, এই নিউক্লিয়ার ফুটবল নামের এই বিশেষ ব্রিফকেসটিতে থাকে পারমাণবিক বোমা হামলা চালানোর সরঞ্জাম, যা ব্যবহার করে এ ধরনের হামলার অনুমোদন দিতে পারেন প্রেসিডেন্ট। ক্ষমতা গ্রহণের পর থেকে ক্ষমতা ছাড়ার আগ পর্যন্ত একজন সামরিক কর্মকর্তা প্রেসিডেন্টের সঙ্গে সব সময় এই ব্রিফকেস নিয়ে ঘোরেন। ফলে ২০ জানুয়ারি স্থানীয় সময় বেলা ১২টা পর্যন্ত এই ব্রিফকেসটি ট্রাম্পের সঙ্গেই থাকবে। সাধারণত, অভিষেক অনুষ্ঠানে নতুন মার্কিন প্রেসিডেন্ট শপথ পাঠ করার সময় তার কাছে দাঁড়ানো এক সামরিক কর্মকর্তার হাতে পূর্বসূরির সঙ্গে থাকা সামরিক কর্মকর্তা এই নিউক্লিয়ার ফুটবল তুলে দেন।

এই নিউক্লিয়ার ফুটবলের মাধ্যমে বোমা হামলা চালানোর অনুমোদন দিতে ট্রাম্পের কাছে থাকা বিস্কুটটি কার্যকর থাকবে আগামীকাল বুধবার স্থানীয় সময় বেলা ১১টা ৫৯ মিনিট ৫৯ সেকেন্ড পর্যন্ত। এরপরই এটি স্বয়ংক্রিয়ভাবে অকার্যকর হয়ে যাবে

বিশ্লেষকেরা বলছেন, এ ক্ষেত্রে অন্তত দুটি ব্রিফকেস থাকবে। এর একটি থাকবে ট্রাম্পের সঙ্গে। অন্যটি থাকবে ক্যাপিটল হিলে অভিষেক অনুষ্ঠানস্থলে। এটি ক্ষমতা হস্তান্তর প্রক্রিয়াকে কঠিন করে তুলল। এটি কোনো ঝঞ্ঝাট ছাড়া সম্পন্ন করাটা এক বড় চ্যালেঞ্জ।

এ বিষয়ে বুলেটিন অব দ্য অ্যাটমিক সায়েন্টিস্টের অনাবাসিক সিনিয়র ফেলো স্টিফেন শোয়ার্টজ সিএনএনকে বলেন, এবার এর হস্তান্তর প্রক্রিয়া অন্য বছরগুলোর চেয়ে আলাদা হবে। পারমাণবিক অস্ত্রের ওপর প্রেসিডেন্টের নিয়ন্ত্রণের হস্তান্তর খুবই নিরাপদ হওয়া দরকার। কোনো কিছুতেই এর ব্যত্যয় হওয়া উচিত নয়। এত দিন এটি ছিল।

সামরিক বিশেষজ্ঞরা মনে করেন, দু জায়গায় দুটি নিউক্লিয়ার ফুটবল থাকলেও এ নিয়ে বড় ঝুঁকি নেই। সাধারণ মানুষের ধারণা নিউক্লিয়ার ফুটবলে বোধ হয় এমন কোনো কোড বা বোতাম রয়েছে, যা টিপলেই প্রেসিডেন্ট সরাসরি কোথাও পারমাণবিক বোমা হামলা চালাতে পারবেন। কিন্তু আদতে বিষয়টি এমন নয়। এই নিউক্লিয়ার ফুটবল হচ্ছে, এমন কিছু সরঞ্জামের সমন্বয়, যার মাধ্যমে প্রেসিডেন্ট কোনো পারমাণবিক হামলা চালানোর অনুমোদনটি দিতে পারেন।

স্টিফেন শোয়ার্টজ জানান, এ ধরনের তিন থেকে চারটি নিউক্লিয়ার ফুটবল রয়েছে। এগুলোর একটি প্রেসিডেন্ট ও একটি ভাইস প্রেসিডেন্টের সঙ্গে থাকে। এর বাইরে আরেকটি নিউক্লিয়ার ফুটবল রাখা হয়, অভিষেক অনুষ্ঠান, স্টেট অব দ্য ইউনিয়নসহ বিশেষ কিছু অনুষ্ঠানে প্রদর্শনের জন্য। এই নিউক্লিয়ার ফুটবলের মাধ্যমে বোমা হামলা চালানোর অনুমোদন দিতে ট্রাম্পের কাছে থাকা বিস্কুটটি কার্যকর থাকবে আগামীকাল বুধবার স্থানীয় সময় বেলা ১১টা ৫৯ মিনিট ৫৯ সেকেন্ড পর্যন্ত। এরপরই এটি স্বয়ংক্রিয়ভাবে অকার্যকর হয়ে যাবে।

তিনি আরো জানান, ঠিক ওই সময়েই এই অনুমোদন দেওয়ার ক্ষমতাটি পাবেন বাইডেন। ফলে ট্রাম্প যদি ১২টা ১ মিনিটে কোথাও হামলা চালানোর অনুমোদন দেন, তবে সংশ্লিষ্ট সামরিক কর্মকর্তাদের কর্তব্য হয়ে দাঁড়াবে সে আদেশ অগ্রাহ্য করা। জো বাইডেন ও কমলা হ্যারিস অনুরূপ দুটি বিস্কুট সকাল নাগাদই পেয়ে যাবেন, যা বেলা ঠিক ১২টায় সক্রিয় হবে।

ডেইলি বাংলাদেশ/আরএএইচ