হাসপাতালে মরদেহ খুবলে খাওয়ার চেষ্টা কুকুরের

ঢাকা, রোববার   ১৭ জানুয়ারি ২০২১,   মাঘ ৪ ১৪২৭,   ০২ জমাদিউস সানি ১৪৪২

হাসপাতালে মরদেহ খুবলে খাওয়ার চেষ্টা কুকুরের

আন্তর্জাতিক ডেস্ক ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

 প্রকাশিত: ১৩:২৮ ২৭ নভেম্বর ২০২০   আপডেট: ১৩:৩৮ ২৭ নভেম্বর ২০২০

ছবি: সংগৃহীত

ছবি: সংগৃহীত

হাসপাতালের সিঁড়ির পাশে স্ট্রেচারে সাদা কাপড়ে ঢাকা একটি দেহ। বৃহস্পতিবার রাস্তার একটি কুকুর সেই দেহ খুবলে খাওয়ার চেষ্টা করছে। ভারতের উত্তরপ্রদেশের সম্বল জেলার সরকারি হাসপাতালে এ ঘটনা ঘটেছে। 

ঘটনার ২০ সেকেন্ডের একটি ভিডিও প্রকাশ্যে আসতেই শিউড়ে উঠেছেন সবাই। সমালোচনার ঝড় সব মহলে। গত বুধবার আলিগড়ে এক সদ্যজাতের মৃত্যুর পর তার পরিবার অভিযোগ করেছিল, মৃত শিশুর দেহে কুকুর বা বিড়ালের আঁচড়ের চিহ্ন রয়েছে। তার পর প্রকাশ্যে এলো এই ঘটনা। 

মৃতের পরিবার সূত্রে জানা গেছে, বৃহস্পতিবার বিকালে পথদুর্ঘটনায় জখম হয় মেয়েটি। তার বাবা চরণ সিংহ সংবাদ সংস্থা এএনআইকে বলেন, ‘প্রায় দেড় ঘণ্টা ধরে হাসপাতালের স্ট্রেচারে ফেলে রাখা হয়েছিল মরদেহটি। খুব অবহেলা করেন হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ।’ 

জানা গেছে, হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ রাস্তার কুকুর ঢুকে পড়ার ঘটনার কথা স্বীকার করলেও অবহেলার অভিযোগ অস্বীকার করেন।

হাসপাতাল কর্তৃপক্ষের দাবি, রাস্তার কুকুর হাসপাতালে ঢুকে পড়ার সমস্যা দীর্ঘদিনের। স্থানীয় পৌরসভা ও প্রশাসনকে এর আগে চিঠি লিখে জানানো হলেও কোনো ব্যবস্থা নেয়া হয়নি। যদিও বৃহস্পতিবারের ওই ঘটনার জন্য তাদের কোনো দায় নেই বলেও জানিয়েছেন হাসপাতালের চিফ মেডিকেল সুপারিনটেন্ডেন্ট। উল্টো মৃতের পরিবারের ওপরই দোষ চাপাচ্ছেন তারা।

ওই হাসপাতালের চিকিৎসক সুশীল বর্মা বলেন, ‘করণীয় সব কিছু করার পর দেহ পরিবারের হাতে তুলে দেওয়া হয়। পরিবার ময়নাতদন্ত চায়নি। তারা দেহ নিয়ে যেতে চেয়েছিলেন। পরিবারের লোকই হয়তো কয়েক মিনিটের জন্য দেহ ফেলে রেখেছিল। তখনই ওই ঘটনা ঘটে।’ 

তবে, এই ঘটনা প্রকাশ্যে আসার পর হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ এক ওয়ার্ড বয় এবং এক সাফাইকর্মীকে সাসপেন্ড করেছে।

সূত্র: আনন্দবাজার পত্রিকা

ডেইলি বাংলাদেশ/আরএএইচ