ভারতের বাতাস নোংরা: ট্রাম্প

ঢাকা, মঙ্গলবার   ০১ ডিসেম্বর ২০২০,   অগ্রহায়ণ ১৭ ১৪২৭,   ১৪ রবিউস সানি ১৪৪২

ভারতের বাতাস নোংরা: ট্রাম্প

আন্তর্জাতিক ডেস্ক ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

 প্রকাশিত: ১৪:৫৩ ২৩ অক্টোবর ২০২০   আপডেট: ১৪:৫৯ ২৩ অক্টোবর ২০২০

ছবি: সংগৃহীত

ছবি: সংগৃহীত

প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির স্বচ্ছ ভারত অভিযানের সাফল্যকে প্রশ্নের মুখে ফেললেন মার্কিন প্রেডিসেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। পাশাপাশি বৃহস্পতিবার বিশ্ব উষ্ণায়ন প্রতিরোধে ভারতের দায়বদ্ধতা নিয়েও খোঁচা দিয়েছেন তিনি। ট্রাম্পের ভাষায়, ভারতের বাতাসেই নোংরা রয়েছে।

বৃহস্পতিবার শেষবারের মতো বিতর্কে মুখোমুখি হন প্রেসিডেন্ট ও রিপাবলিকান প্রার্থী ডোনাল্ড ট্রাম্প ও ডেমোক্র্যাটিক প্রার্থী জো বাইডেন। সেখানে জলবায়ু পরিবর্তন সংক্রান্ত প্যারিস চুক্তি থেকে সরে আসা প্রসঙ্গে চীন, রাশিয়া ও ভারতের সমালোচনা করেন ট্রাম্প। 

তিনি বলেন, চীনের অবস্থা দেখুন। কী রকম নোংরা একটি দেশ। রাশিয়া বা ভারতকে দেখুন। কী নোংরা, দূষিত বাতাস।
মোদি সরকারের বিরুদ্ধে অতিরিক্ত আমদানি শুল্ক বসিয়ে আন্তর্জাতিক মুক্ত বাণিজ্যের পরিপন্থী আচরণেরও অভিযোগ করেছেন ট্রাম্প। এমনকি প্রশ্ন তুলেছেন ভারতে করোনায় মৃতের প্রকৃত সংখ্যা নিয়েও।

ট্রাম্প বলেছেন, আমি প্যারিস চুক্তি রক্ষা করতে গিয়ে লাখ লাখ চাকরি, হাজার হাজার সংস্থাকে ছাড়তে পারবো না। তার অভিযোগ, ভারত ও চীনের কলকারখানাগুলো দূষণ ছড়ালেও সেগুলো বন্ধ করতে আন্তর্জাতিক তৎপরতা নেই । কিন্তু পরিবেশ রক্ষার দোহাই দিয়ে যুক্তরাষ্ট্রকে চাপে ফেলার চেষ্টা চলছে।

মোদির সঙ্গে ট্রাম্পের বেশ ভালো সম্পর্ক রয়েছে বলে দাবি করেন ভারতীয় কর্মকর্তারা। কিন্তু প্রথম প্রেসিডেন্সিয়াল বিতর্কের মতো শেষ বিতর্কেও ভারতকে নিয়ে সমালোচনা করেছেন ট্রাম্প। কিন্তু হঠাৎ করেই ট্রাম্প কেন তার অবস্থান বদলালেন?

বিশ্লেষকদের একাংশ মনে করছে চলতি মার্কিন নির্বাচনে ২০ লাখ ভারতীয় ভোটের বড় অংশই যে ডেমোক্র্যাটরা পেতে চলেছে, তা এরইমধ্যে স্পষ্ট। বাইডেন তার ‘রানিং মেট’ হিসেবে ভারতীয় বংশোদ্ভূত কমলা হ্যারিসকে বেছে এ বিষয়ে টেক্কা দিয়েছেন ট্রাম্পকে। ফলে কট্টরপন্থী শ্বেতাঙ্গ ভোটের লক্ষ্যেই ট্রাম্পের এই ভোলবদল।

ডেইলি বাংলাদেশ/আরএএইচ