বসনিয়ায় শরণার্থীদের সংঘর্ষে নিহত ২, আহত ১৮

ঢাকা, বুধবার   ২৮ অক্টোবর ২০২০,   কার্তিক ১৩ ১৪২৭,   ১১ রবিউল আউয়াল ১৪৪২

বসনিয়ায় শরণার্থীদের সংঘর্ষে নিহত ২, আহত ১৮

আন্তর্জাতিক ডেস্ক ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

 প্রকাশিত: ২২:৪৬ ১ অক্টোবর ২০২০  

ছবি: সংগৃহীত

ছবি: সংগৃহীত

বসনিয়ার উত্তর-পশ্চিমাঞ্চলে বিহাক শহরে অবস্থিত শরণার্থী শিবির বন্ধ করে তাদের অন্য আরেকটি শিবিরে সরিয়ে নিচ্ছিলো আঞ্চলিক কর্তৃপক্ষ। এ ঘটনার মধ্যেই শরণার্থীদের মধ্যে সংঘর্ষ হয়েছে। এতে দুইজন নিহত হয়েছেন। এছাড়া আরো ১৮ জন আহত হয়েছেন।

বৃহস্পতিবার বিহাক আঞ্চলিক পুলিশের মুখপাত্র আলে শিলজেডিক জানিয়েছেন, বুধবার সন্ধ্যায় শহরটিতে পাকিস্তানি এবং আফগানিস্তানের শরণার্থীদের দুইটি দলের মধ্যে সংঘর্ষ হয়। আহতদের মধ্যে ১০ জনের অবস্থা গুরুতর বলে জানান তিনি।

বুধবারই বিহাকের শিবির খালি করে শরণার্থীদের ৫০ কিলোমিটার দূরের লিপা শিবিরে নিয়ে যাওয়া হয়েছে। সংঘর্ষে হতাহতরা সবাই পাকিস্তানি বলে স্থানীয় গণমাধ্যমকে জানিয়েছে আঞ্চলিক স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়।

২০১৫ সালে নতুন শরণার্থীদের জন্য সীমান্ত বন্ধ করে দেয় ইউরোপীয় ইউনিয়ন। এরপর থেকে এশিয়া, মধ্যপ্রাচ্য এবং উত্তর আফ্রিকার শরণার্থী ও অভিবাসন প্রত্যাশীদের জন্য বসনিয়া একটি গুরুত্বপূর্ণ ট্রানজিট রুট হয়ে উঠেছে। ইইউ’র সদস্যদেশ ক্রোয়েশিয়ায় ঢুকতে অনেক শরণার্থীই বসনিয়ার উত্তর-পশ্চিমাঞ্চলের পাড়ি জমাচ্ছে।

বসনিয়ার ওই এলাকায় বর্তমানে প্রায় ১০ হাজার শরণার্থী আছে। তাদের এক চতুর্থাংশই জঙ্গলে বসে আছে, মাথার ওপরে নেই ছাদ, প্রচণ্ড শীত কাঁপনও ধরাচ্ছে শরীরে। তবুও ক্রোয়েশিয়ায় ঢোকার চেষ্টা করে যাচ্ছে তারা।

বসনিয়ার উত্তর-পশ্চিমাঞ্চলের শরণার্থী শিবিরগুলো মানুষে বোঝাই হয়ে গেছে বলে জানিয়েছে আঞ্চলিক কর্তৃপক্ষ। তাই কয়েকটি শহরে শরণার্থী শিবির বন্ধ করতে শুরু করেছে তারা। এরই অংশ হিসাবে বুধবার বিহাক শহর থেকে ৩৫০ শরণার্থীকে লিপা শিবিরে স্থানান্তর করা হয়েছে।

শরণার্থী বিষয়ক আন্তর্জাতিক সংগঠন (আইওএম) জানিয়েছে, লিপা শিবিরেও আগে থেকেই মানুষে পরিপূর্ণ ছিলো। নতুন করে যাদের সেখানে নেয়া হয়েছে শিবিরের বাইরে খোলা আকাশের নিচে তাদের থাকতে দেয়া হয়েছে।

সূত্র- রয়টার্স

ডেইলি বাংলাদেশ/এসএমএফ