নাটকীয়তার পর ছাড়া পেলেন রাহুল ও প্রিয়াঙ্কা

ঢাকা, বৃহস্পতিবার   ২৯ অক্টোবর ২০২০,   কার্তিক ১৪ ১৪২৭,   ১১ রবিউল আউয়াল ১৪৪২

নাটকীয়তার পর ছাড়া পেলেন রাহুল ও প্রিয়াঙ্কা

আন্তর্জাতিক ডেস্ক ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

 প্রকাশিত: ২১:৩৬ ১ অক্টোবর ২০২০  

ছবি: সংগৃহীত

ছবি: সংগৃহীত

দিল্লি-উত্তর প্রদেশ হাইওয়েতে নেতাকর্মীদের নিয়ে মার্চ করার সময় পুলিশের হাতে আটক হন ভারতের বিরোধীদলীয় নেতা রাহুল গান্ধী ও তার বোন প্রিয়াঙ্কা গান্ধী। তবে সাময়িক সময়ের জন্য আটক রাখার পর তাদেরকে মুক্তি দিয়েছে পুলিশ।

রাহুল অভিযোগ করেছেন, তাকে ঘাড়ধাক্কা দেয়া হয়েছে। এরপর রাস্তায় ফেলে লাঠিচার্জ করা হয়েছে। এ সময় তার সঙ্গে ছিলেন তার বোন প্রিয়াঙ্কাও।

সম্প্রতি হাথরাস নামক স্থানে গণধর্ষণের শিকার হয়েছেন এক নারী। তিনি পরে হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান।

রাহুল গান্ধী কংগ্রেস নেতাদের নিয়ে ওই ভিকটিমের পরিবারের সঙ্গে দেখা করতে চান। তবে তাদের আগমন ঠেকাতে ১৪৪ ধারা জারি করে কর্তৃপক্ষ। রাহুল গান্ধী এরমধ্যেই সেখানে পৌঁছাতে চাইলে বাধা দেয় উত্তরপ্রদেশ পুলিশ। তখন পুলিশের সঙ্গে তর্কাতর্কি শুরু হয় রাহুলের। এসময় পুলিশ তাকে সাবধান করে জানায়, আপনারা ১৪৪ ধারা ভাঙছেন। জবাবে রাহুলকে বলতে শোনা যায়, ১৪৪ ধারার অপব্যবহার করছেন আপনারা।

এরপরই শুরু হয় ধস্তাধস্তি। রাহুল গান্ধীকে ফেলে দেয়া হয় রাস্তায়। সেখানে চরম হেনস্থার শিকার হয়েছেন বলে জানিয়েছে রাহুল। এরপরই রাহুল এবং প্রিয়াঙ্কা গান্ধীকে একটি সাদা রঙের গাড়িতে তুলে হাইওয়ে ধরে দিল্লির দিকে চলে যায় পুলিশ।

ভিডিও ফুটেজে দেখা গেছে সে গাড়ির পাশাপাশি ছুটছে আরো কিছু গাড়ি। সেগুলো কংগ্রেস নেতাদের গাড়ি ছিল বলে ধারণা করা হচ্ছে। এসময় ঘটনাস্থলে থাকা অন্য কংগ্রেসকর্মীরা রাস্তা অবরোধ করে বসে পড়েন। যতক্ষণ না রাহুলকে ছাড়া হচ্ছে, তারা অবরোধ তুলবেন না জানিয়ে দেন। রাহুল ও প্রিয়াঙ্কা গান্ধীকে হাইওয়ের পাশের একটি গেস্টহাউজে রাখা হয়।

হেনস্থার স্থান থেকে রাহুল গান্ধী বলেন, আমাকে রাস্তায় ফেলে দেয়া হয়েছে, লাঠিচার্জ করা হয়েছে। আমি প্রশ্ন করতে চাই, দেশে কি শুধু মোদিজীই হাঁটতে পারবেন? একজন সাধারণ মানুষের কি হাঁটার অধিকার নেই? আমাদের গাড়ি থামিয়ে দেয়া হয়েছে, তাই আমরা হাঁটতে শুরু করেছিলাম।

এদিকে, রাহুল গান্ধীর এই চেষ্টাকে মিডিয়ার নজর কাড়ার চেষ্টা হিসেবে দাবি করছে বিজেপি। দলটির নেতা ও উত্তর প্রদেশের মন্ত্রী সিধার্থ নাথ সিং বলেন, রাহুল গান্ধীর এ রেকর্ড রয়েছে। তিনি বিদেশ থেকে ফিরেই এ ধরণের ফটোসেশনে ব্যস্ত হয়ে পরেন। রাহুল বা প্রিয়াঙ্কা কেউই প্রতিবাদের বিষয়ে আন্তরিক নন।

ডেইলি বাংলাদেশ/মাহাদী