পাকিস্তানের বিরোধীদলীয় নেতা শাহবাজ শরিফ গ্রেফতার

ঢাকা, মঙ্গলবার   ২৭ অক্টোবর ২০২০,   কার্তিক ১২ ১৪২৭,   ১০ রবিউল আউয়াল ১৪৪২

পাকিস্তানের বিরোধীদলীয় নেতা শাহবাজ শরিফ গ্রেফতার

আন্তর্জাতিক ডেস্ক ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

 প্রকাশিত: ২১:২৭ ২৮ সেপ্টেম্বর ২০২০  

ছবি: শাহবাজ শরিফ

ছবি: শাহবাজ শরিফ

পাকিস্তান মুসলিম লীগ (নওয়াজ) এর প্রেসিডেন্ট শাহবাজ শরীফকে অর্থ পাচার ও আয় বহির্ভূত সম্পত্তির মামলায় গ্রেফতার করা হয়েছে।

সোমবার লাহোর হাইকোর্ট থেকে তাকে গ্রেফতার করা হয় বলে বার্তা সংস্থা পিটিআই জানিয়েছে।

শাহবাজ শরিফ পাকিস্তানের পাঞ্জাব প্রদেশের সাবেক মুখ্যমন্ত্রী। সাবেক প্রধানমন্ত্রী নওয়াজ শরিফের ছোট ভাইও তিনি। পাঞ্জাবের মুখ্যমন্ত্রী থাকার সময় পানি বিশুদ্ধকরণ (সাফ পানি) প্রকল্প এবং আসিয়ানা হাউজিং স্ক্রিমে দুর্নীতিতে জড়িত থাকার অভিযোগে তাকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে।

ন্যাশনাল অ্যাকাউন্টিবিলিটি ব্যুরোর মুখপাত্র নওয়াজিশ আলি আসিম পিটিআই কে বলেছেন, “শাহবাজকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য এনএবি’র লাহোর কার্যালয়ে তলব করা হয়েছিল। আসিয়ানা হাউজিং স্ক্রিম এবং পাঞ্জাব সাফ পানি কোম্পানির নিয়ম ভঙ্গ করে নিজের পছন্দের ফার্মকে ঠিকাদারি পাইয়ে দেয়ার অভিযোগ আছে তার বিরুদ্ধে।”

“শাহবাজ তার এ ভূমিকার ব্যাপারে তদন্তকারীদের কোনো সদুত্তর দিতে না পারায় তাকে গ্রেফতার করা হয়।”শনিবার শাহবাজকে রিমান্ডে নেয়ার জন্য এনএবি আদালতে হাজির করা হবে বলেও জানান আসিম।

এর আগে সাবেক প্রধানমন্ত্রী নওয়াজ শরিফকে সুপ্রিম কোর্ট ক্ষমতায় অযোগ্য ঘোষণার পর তাকে দুর্নীতির মামলায় ১০ বছরের কারাদণ্ড দিয়েছিল এনএবি আদালত। তার সঙ্গে মেয়ে মরিয়ম এবং জামাতা সফদারেরও জেল হয়। কিছুদিন কারাগারে থাকার পর আদালতের আদেশে তারা এখন জামিনে মুক্ত।

শাহবাজ শরিফের বিরুদ্ধে আসিয়ানা হাউজিং প্রকল্পে ১ হাজার ৪০০ কোটি রূপি এবং পাঞ্জাব সাফ পানি কোম্পানির প্রকল্পে ৪০০ কোটি রূপি দুর্নীতির অভিযোগ আছে।

পাঞ্জাবের আগের সরকার সচ্ছ্ব ও নিরাপদ পানির জন্য সাফ পানি কোম্পানি প্রতিষ্ঠা করেছিল। এ প্রকল্পে দুর্নীতির অভিযোগে তদন্তের মুখে আছেন শাহবাজের জামাতা আলি ইমরান ইউসুফও। তিনি বর্তমানে যুক্তরাজ্যে পলাতক।

এনএবি আন্তর্জাতিক পুলিশ ইন্টারপোলের মাধ্যমে ইউসুফকে দেশে ফিরিয়ে আনার জন্য স্বরাষ্ট্রমন্ত্রণালয়ে লিখিত আবেদন করেছে। শাহবাজের ছেলে হামজাও এনএবি’র তদন্তনাধীনে আছে।

শাহবাজ গ্রেপ্তারের প্রতিক্রিয়ায় শরিফ পরিবারের আইনজীবী সাংবাদিকদের বলেছেন, তিনি পার্লামেন্টে বিরোধীদলের নেতা হওয়ার কারণে স্পিকারের অনুমতি ছাড়া গ্রেফতার হতে পারেন না।

দলের পক্ষ থেকেও শাহবাজ গ্রেফতারের নিন্দা জানানো হয়েছে। পাকিস্তান মুসলিম লিগ-নওয়াজ (পিএলএম-এন) রাজনৈতিক প্রতিহিংসার কারণে শাহবাজ কে গ্রেফতার করা হয়েছে বলে অভিযোগ করেছে।

ডেইলি বাংলাদেশ/মাহাদী