নিয়ন্ত্রণরেখায় টি-৯০ ট্যাংক মোতায়েন করছে ভারত

ঢাকা, বুধবার   ২১ অক্টোবর ২০২০,   কার্তিক ৬ ১৪২৭,   ০৪ রবিউল আউয়াল ১৪৪২

নিয়ন্ত্রণরেখায় টি-৯০ ট্যাংক মোতায়েন করছে ভারত

আন্তর্জাতিক ডেস্ক ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

 প্রকাশিত: ০৯:২৮ ২৮ সেপ্টেম্বর ২০২০  

ছবি: সংগৃহীত

ছবি: সংগৃহীত

চীন সীমান্তের প্রকৃত নিয়ন্ত্রণরেখা বরাবর ট্যাঙ্ক মোতায়েন করছে ভারত। চুমার-ডেমচকে ভারতের সারি সারি টি-৯০ ট্যাঙ্ক,সাঁজোয়াযান, বিএমপি-২ দ্বিতীয় প্রজন্মের ইনফ্যান্ট্রি ফাইটিং ভেহিকল এবং টি-৭২ ট্যাঙ্ক মোতায়েন অবস্থায় দেখা গেছে। ভারতীয় সংবাদমাধ্যম এএনআইয়ের প্রকাশ করা একটি ভিডিওর বরাত দিয়ে দ্য ওয়াল এ তথ্য জানিয়েছে। 

টুইটার অ্যাকাউন্টে শেয়ার করা এই ভিডিওর সূত্র কী তা অবশ্য জানা যায়নি। তবে লাদাখ সীমান্তে ভারতীয় সেনাবাহিনীর প্রস্তুতি দেখা গেছে এই ভিডিওতে। 

সম্প্রতি চুসুল সীমান্তে চীন ও ভারত সেনা কমান্ডার পর্যায়ের বৈঠকের পরও দুই পক্ষ কোনো সমাধানে আসতে পারেনি। সীমান্ত থেকে সেনা সরাতে সায় দেয়নি চীনের বাহিনী। ভারতও স্পষ্ট জানিয়ে দিয়েছে, অনুপ্রবেশের চেষ্টা হলে ছেড়ে কথা বলবে না তারা। আঞ্চলিক সার্বভৌমত্ব রক্ষার জন্য যে কোনো পদক্ষেপ নিতে পারে ভারতীয় বাহিনী।

গত ২৯ ও ৩০ আগস্টের উপগ্রহ চিত্রে দেখা গেছে, প্রকৃত নিয়ন্ত্রণ রেখা থেকে ২০ কিলোমিটার দূরত্বে প্যাগং হ্রদের দক্ষিণে ট্যাঙ্ক নামিয়েছে চীনের পিপলস লিবারেশন আর্মি। সাঁজোয়াযান নিয়ে কালা টপের নীচ দিয়ে চুসুল, থাকুং এলাকার দিকে এগোচ্ছে তারা। প্যাগং লেকের দক্ষিণে কালা টাপসহ একাধিক পাহাড়ি এলাকা এখন ভারতীয় সেনাবাহিনীর নিয়ন্ত্রণে রয়েছে। 

ভারতীয় সেনা সূত্র জানিয়েছে, কালা টপের দখল নিতে না পেরে চীনের বাহিনী এখন পাহাড়ি পাদদেশগুলোতে নিজেদের ট্যাঙ্ক সাজাচ্ছে। মলডো থেকে হেভিওয়েট ট্যাঙ্ক, আধুনিক অস্ত্রশস্ত্র নিয়ে থাকুংয়ের দিকে এগোতে দেখা গেছে তাদের।

প্যাগং লেকের দক্ষিণ প্রান্ত স্প্যানগুর গ্যাপের উঁচু পাহাড়ি এলাকায় চীন ও ভারতের বাহিনী টহল দেয়। গত শনিবার  চুমার এলাকা দিয়ে ভারতের নিয়ন্ত্রণাধীন এলাকায় প্রবেশের চেষ্টা করেছিল চীনের সেনারা। তাদের লক্ষ্য ছিল কালা টপ ও হেলমেটের দখল নিয়ে নেওয়া।  চেপুজি ক্যাম্প থেকে কয়েকটি আর্মড ভেহিকলকে বের হতে দেখেই সতর্ক হয়ে যায় ভারতীয় বাহিনী। চীনের চেষ্টা রুখে দেওয়া হয়। এরপরেই চুসুলের কাছে ভারতের ট্যাঙ্ক রেজিমেন্ট প্রস্তুত হয়ে যায়। নিশানা স্থির করে বসে টি-৯০ ট্যাঙ্ক। ভিডিওতে দেখা গেছে, এই চুমার ও ডেমচল এলাকার কাছেই বিএমপি-২ ইনফ্যান্ট্রি ফাইটিং ভেহিকলও তৈরি রেখেছে ভারত। বিএমপি-২ জলে ও স্থলে দু’জায়গাতেই চলতে পারে। এই আর্মড ভেহিকল থেকে অ্যান্টি-ট্যাঙ্ক মিসাইল ছোড়ার প্রযুক্তিও আছে।

ডেইলি বাংলাদেশ/আরএএইচ