ভারতে আকাশছোঁয়া দামে বিক্রি হচ্ছে ইলিশ, মনখারাপ মধ্যবিত্তদের

ঢাকা, বৃহস্পতিবার   ২৯ অক্টোবর ২০২০,   কার্তিক ১৪ ১৪২৭,   ১১ রবিউল আউয়াল ১৪৪২

ভারতে আকাশছোঁয়া দামে বিক্রি হচ্ছে ইলিশ, মনখারাপ মধ্যবিত্তদের

আন্তর্জাতিক ডেস্ক ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

 প্রকাশিত: ০১:৫০ ২২ সেপ্টেম্বর ২০২০   আপডেট: ০১:০৭ ২৩ সেপ্টেম্বর ২০২০

ফাইল ছবি

ফাইল ছবি

গত কয়েকদিন ধরেই ভারতের শিলিগুড়ির বাজারে ঢুকছে বাংলাদেশের ইলিশ। তবে সেখানে বর্তমানে ইলিশের দাম আকাশছোঁয়া। সাইজে ছোট হলেও আটশ’র নিচে নামছে না ইলিশের দাম। যার কারণে মন খারাপ সেখানকার মধ্যবিত্তদের।

ব্যবসায়ীদের দাবি, ডায়মন্ড হারবারের ইলিশের সাইজ গত কয়েকদিন ধরে ছোট আসছিলো। এই সপ্তাহে তাও মেলেনি। আমদানিও কম। তাই বাংলার ইলিশ খুচরা বাজারে দুই হাজার টাকা পর্যন্ত দরে বিক্রি হচ্ছে।

ইলিশের পাইকারি ব্যবসায়ীরা জানিয়েছেন, গত কয়েক বছরের তুলনায় এবার করোনার জন্য ব্যবসা এখনো ৩০ শতাংশ মাত্র। দক্ষিণ ২৪ পরগনা থেকে মাছের যোগান যেমন কমেছে, সাইজেও ছোট আসছে। তাই স্বাভাবিকভাবে দাম মধ্যবিত্তের নাগালের বাইরে। তাই বাংলাদেশের ইলিশ প্রথম থেকেই বেশি দরে বিক্রি হচ্ছে ভারতের বাজারে।

শিলিগুড়ি নিয়ন্ত্রিত বাজারের মাছ ব্যবসায়ীরা জানিয়েছেন, গত তিন দিন হল শিলিগুড়িতে বাংলাদেশের ইলিশ পেট্রাপোল হয়ে ঢুকছে। সেগুলো সবই এক কেজি থেকে দেড় কেজি সাইজের। পাইকারি ১৩০০ টাকা থেকে ১৫০০ টাকা বিক্রি হচ্ছে। ফলে সেগুলো বাজারে গেলে দাম কমপক্ষে ১৮০০ থেকে ২০০০ হচ্ছে।

ব্যবসায়ীরা আরো জানান, এমন সময়ে শিলিগুড়িতে অন্তত ১০ টন ইলিশের চাহিদা ছিল লকডাউনের আগে পর্যন্ত। কিন্তু তা নষ্ট হয়ে গিয়েছে। আগে আসাম থেকেও পাইকাররা এসে শিলিগুড়ি নিয়ন্ত্রিত বাজার থেকেই ইলিশ কিনে নিয়ে যেতেন। তাই দর নামছে না।

শিলিগুড়ির নিয়ন্ত্রিত বাজারে বাংলাদেশ এবং ডায়মন্ড হারবার মিলিয়ে এখন রোজ প্রায় ৩ টন ইলিশ মাছ যাচ্ছে। বাংলাদেশের ইলিশের গ্রাহক ভিন্ন। তবে রবিবার বাজারে অনেকেই কিছুটা কমে বাংলাদেশের ইলিশের স্বাদ নিতে চেয়েছিল। তবে তা অনেকের পক্ষেই সম্ভব হয়নি। ডায়মন্ড হারবারের ইলিশ না পেয়ে তাই মনখারাপ মধ্যবিত্তদের।

সূত্রঃ আনন্দবাজার

ডেইলি বাংলাদেশ/জেএইচএফ