বসকে থাপ্পড় মারা যখন চাকরি

ঢাকা, বুধবার   ১৯ জানুয়ারি ২০২২,   ৫ মাঘ ১৪২৮,   ১৪ জমাদিউস সানি ১৪৪৩

বসকে থাপ্পড় মারা যখন চাকরি

মজার খবর ডেস্ক ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

 প্রকাশিত: ১৬:২৫ ১২ নভেম্বর ২০২১  

বসকে থাপ্পড় মারা যখন চাকরি। ছবি সংগৃহীত

বসকে থাপ্পড় মারা যখন চাকরি। ছবি সংগৃহীত

পৃথিবীতে অদ্ভুত পেশায় যুক্ত হয়ে বহু মানুষ জীবিকা নির্বাহ করেন। পেশাগুলো অদ্ভুত কারণ এসব কাজগুলো যে কারও পেশা হতে পারে, সে খবরই আমরা রাখি না। এই যেমন- ওয়াইন টেস্টার, সেক্স টয় টেস্টার, ওয়াটার স্লাইড টেস্টার, পোষা জীব-জন্তুর খাবার পরীক্ষক, প্রোফেশনাল পুশার, বমি পরিষ্কারের চাকরি। 

পেটের দায়ে কত কিছুই না করতে হয়! তবে শুনলে অবাক হবেন পৃথিবীতে এমন অনেক চাকরি আছে, যেগুলোকে আপনি চাকরি হিসেবে ভাবতেই পারবেন না! পৃথিবী জুড়ে অনেক মানুষের বেঁচে থাকার রসদ যোগাচ্ছে এই চাকরিগুলো! আজ জানাবো তেমনই একটি চাকরির কথা। চাকরিটি হলো বসকে থাপ্পড় মারা! কি বিশ্বাস হচ্ছে না? বিশ্বাস না হলেও এমনই একটি চাকরির নিয়োগ দিয়েছে আমেরিকান এক যুবক। 

নাম তার মনীশ শেঠি। তিনি একজন কর্মী নিয়োগ করেন যিনি ফেসবুকে ঢোকা মাত্রই তাকে থাপ্পড় মারবেন। শুধু তাই নয়, অদ্ভুত এই চাকরির জন্য কর্মী খুঁজতে রীতি মতো বিজ্ঞাপনও দেন মনীশ। তাতে লেখেন, আমি সময় নষ্ট করলেই আমার ওপর চিৎকার করবে। প্রয়োজনে চড়-থাপ্পড় মারতেই হবে।

বিজ্ঞাপনটিতে ব্যাপক সাড়াও পান তিনি। এরপর একজন নারীকে এই কাজে নিয়োগ করেন এবং এজন্য প্রতি ঘণ্টায় ৮ মার্কিন ডলার পারিশ্রমিকও দেন। যা বাংলাদেশি টাকায় ৬৮৮ টাকা। ইউটিউবে একটি ভিডিও প্রকাশ করে সত্যতা নিশ্চিতও করেন তিনি।

পাভলোক নামের একটি ওয়্যারেবল ডিভাইসের ব্র্যান্ডের প্রতিষ্ঠাতা ও সিইও মনীশ পরবর্তী সময়ে জানান, এই কাজের ফলও পেয়েছেন তিনি। তার প্রোডাক্টিভিটি অনেক বেড়ে যায়। আগে যেখানে তার প্রোডাক্টিভিটি ৩৫ থেকে ৪০ শতাংশ ছিল পরে তা বেড়ে ৯৮ শতাংশ হয়।

মজার বিষয় হলো, এই ঘটনাটি ২০১২ সালের। সম্প্রতি ‘টেসলা’-এর প্রতিষ্ঠাতা ইলন মাস্কের একটি টুইটের পর এই ঘটনা নতুন করে আলোচনায় এসেছে। এই ঘটনা নিয়ে একটি পোস্ট রিটুইট করেছেন ইলন। পাশাপাশি আগুনের গোলার ইমোজি দিয়েছেন। বলার অপেক্ষা রাখেনা আইডিয়াটি ভীষণ পছন্দ হয়েছে তার।

ডেইলি বাংলাদেশ/এসএ

English HighlightsREAD MORE »