অনলাইনে শপিং বন্ধ করে ১১ মাসে ১৯ লাখ টাকা ঋণ মেটালেন নারী  

ঢাকা, বুধবার   ১৯ জানুয়ারি ২০২২,   ৫ মাঘ ১৪২৮,   ১৪ জমাদিউস সানি ১৪৪৩

অনলাইনে শপিং বন্ধ করে ১১ মাসে ১৯ লাখ টাকা ঋণ মেটালেন নারী  

মজার খবর ডেস্ক ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

 প্রকাশিত: ০১:৫১ ৮ নভেম্বর ২০২১  

অনলাইনে শপিং বন্ধ করে ১১ মাসে ১৯ লাখ টাকা ঋণ মেটালেন নারী। ছবি: সংগৃহীত

অনলাইনে শপিং বন্ধ করে ১১ মাসে ১৯ লাখ টাকা ঋণ মেটালেন নারী। ছবি: সংগৃহীত

এখনকার দিনে অনলাইনে এক ক্লিকে কেনাকাটা সেরে ফেলেন অনেকেই। তবে যারা কেনাকাটা করতে পছন্দ করেন, তারা অনলাইনে কেনাকাটার সময় লাগাম টেনে ধরতে পারেন না। কিনে ফেলেন অপ্রয়োজনীয় অনেক জিনিসপত্র। সেসব জিনিস খুব বেশি প্রয়োজন হয় না সেসব জিনিসও কিনে পকেট ফাঁকা হয়। হাতে থাকে না কোনো টাকা।

জানা যায়, অনলাইনে কেনাকাটার বাতিক ছিল যুক্তরাজ্যের বাসিন্দা জেমা জর্ডনের। আর এই শপিংয়ের বাতিকের কারণেই দেনায় ডুবে গিয়েছিলেন তিনি। ঋণ করে ফেলেছিলেন ১৭ হাজার পাউন্ড। যা বাংলাদেশি টাকায় ১৯ লাখের বেশি টাকা। তবে এক সময় দুই সন্তানের মা জেমা ভাবলেন এই কেনাকাটার বাতিক তার শুধু ক্ষতিই করছে। তাই এই বদ অভ্যাসের রাশ টেনে ধরতে চাইলেন তিনি।

৪০ বছর বয়সী জেমা নিজের খরচ কম করার জন্য একটি মানি ম্যানেজমেন্ট অ্যাপ ডাউনলোড করেন। আর সেই অ্যাপ ব্যবহার করে তিনি বুঝতে পারেন যে প্রতি মাসে কী পরিমাণ অপ্রয়োজনীয় খরচ করতেন তিনি। এই অপ্রয়োজনীয় খরচ অনলাইন শপিংয়ে করতেন। তিনি অ্যামাজনে কেনাকাটা বন্ধ করে এক বছরের মধ্যে ১৭ হাজার পাউন্ডের ঋণ মিটিয়ে ফেলেন।

নিজের এই নেশার কথা জানার পর তিনি অ্যামাজনে কেনাকাটা বন্ধ করে দেন। প্রায় ছয় মাস পর্যন্ত অনলাইনে কিছুই অর্ডার করেননি জেমা। এরপর তিনি ফুড শপে কেনাকাটাও বন্ধ করে দেন। এভাবেই ১১ মাসে ১৭ হাজার পাউন্ডের ঋণ মিটিয়ে ফেলেন জেমা।

ডেইলি বাংলাদেশ/এসএ

English HighlightsREAD MORE »