লকডাউন শেষে মেট্রো ভ্রমণে বানর 

ঢাকা, রোববার   ০১ আগস্ট ২০২১,   শ্রাবণ ১৭ ১৪২৮,   ২১ জ্বিলহজ্জ ১৪৪২

লকডাউন শেষে মেট্রো ভ্রমণে বানর 

মজার খবর ডেস্ক ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

 প্রকাশিত: ১৬:৪২ ২১ জুন ২০২১   আপডেট: ১৬:৪৮ ২১ জুন ২০২১

দিল্লি মেট্রোতে এক বানরকে মনের সুখে ঘুরতে দেখা যায়

দিল্লি মেট্রোতে এক বানরকে মনের সুখে ঘুরতে দেখা যায়

মহামারির কারণে এখনো লকডাউনে যাচ্ছে দেশের বিভিন্ন এলাকা। গত মাসে প্রতিবেশী দেশ ভারতে মহামারি চরম আকার ধারণ করলে লকডাউন দেয়া যায় সেদেশে। আর এতে বন্দি জীবনে হাঁপিয়ে উঠেন অনেকেই। মানুষের পাশাপাশি অন্যান্য প্রাণীরাও। মুক্তির স্বাদ পেতে তাই এখন বাইরে বের হচ্ছেন সবাই নিশ্চিন্তে। লকডাউন কিছুটা শিথিল করে বাস, ট্রাম এরইমধ্যে চালু করাও হয়েছে। 

মুক্তির স্বাদ নেয়া প্রাণীর দলে এবার যোগ হলো বানর। সম্প্রতি একটি ভিডিওটিতে দেখা গেছে দিল্লির মেট্রো রেলের ভেতর একটি বানর। মেট্রোর ভেতরেই কখনো এদিক কখনো ওদিক ঘোরাফেরা করছে বানরটি, অবশেষে একটি যাত্রীর পাশের সিটে এসে বসে। বানরকে ঘিরে মেট্রোর ভেতরে চলছে যাত্রীদের উত্তেজনা। শনিবার সকালে প্রথমে টুইটার তারপর ধীরে ধীরে পুরো সোশ্যাল মিডিয়ায় ছেয়ে যায় এই ভিডিওটি।  

গত শনিবার দিল্লি মেট্রোতে এক বানরকে মনের সুখে ঘুরতে দেখা যায়। শুধু তাই নয়, ঘুরতে ঘুরতে যখন সে ক্লান্ত হয়ে পড়ে, তখন একটি আসন গ্রহণ করে যাত্রার বাকি পথ কাটিয়ে দেয়। বানরটিকে মেট্রোতে সর্বশেষ বিকাল ৪টা ৪৫ মিনিটে দেখা গিয়েছিল। পরে আর তাকে মেট্রো কম্পাউন্ডে দেখা যায়নি। সম্প্রতি অভিনব সেই যাত্রার একটি ভিডিও টুইটারে ভাইরাল হয়। তবে অস্বস্তিতে পড়ে যায় দিল্লি মেট্রো কর্তৃপক্ষ।

ভাইরাল ভিডিওটিতে বানর মহাশয়কে মেট্রোর একটি আসনে বসে থাকতে দেখা যায়। সেই সময় পাবলিক অ্যানাউন্সমেন্ট সিস্টেমের মাধ্যমে একটি ঘোষণা শোনা যায়। ঘোষণায় যমুনা ব্যাঙ্ক স্টেশনের কথা উল্লেখ করা হয়। স্টেশনটি দিল্লি মেট্রোর নীল লাইনে রয়েছে। পরবর্তীতে ভাইরাল ভিডিওটি আপলোড করা ব্যক্তিকে টুইট করে দিল্লি মেট্রো কর্তৃপক্ষ ঘটনা প্রসঙ্গে জানতে চায়।

ভিডিওটি টুইট করেছিলেন অজয় ডোরবি নামের এক ব্যক্তি। সেখানে তিনি দিল্লি মেট্রোকে ট্যাগ করে প্রশ্ন করেন, ‘এটা কী হচ্ছে?’। দিল্লি মেট্রোর তরফ থেকে টুইটের জবাবে লেখা হয়, ‘আমাদেরকে বিষয়টি জানানোর জন্য ধন্যবাদ। অনুগ্রহ করে কোচ নম্বরটি জানান এবং কোন স্টেশনে ঘটনাটি ঘটেছে, সেটিও জানান। আমরা যথাযথ পদক্ষেপ নেব’ । 

ডেইলি বাংলাদেশ/কেএসকে