আমের বাজারে হইচই, দুটির দাম ৩ লাখ টাকা!

ঢাকা, সোমবার   ২৬ জুলাই ২০২১,   শ্রাবণ ১১ ১৪২৮,   ১৫ জ্বিলহজ্জ ১৪৪২

আমের বাজারে হইচই, দুটির দাম ৩ লাখ টাকা!

মজার খবর ডেস্ক ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

 প্রকাশিত: ১৯:০৬ ২০ জুন ২০২১  

মিয়াজাকি আম। ছবি: সংগৃহীত

মিয়াজাকি আম। ছবি: সংগৃহীত

আমগুলো দেখতে রক্তিম সূর্য্যের মতো। একেকটির ওজন প্রায় ৭০০ গ্রাম। বিশ্ব বাজারে এটি ‘রেড ম্যাংগো’ নামে পরিচিত। এটি বিশ্বের সবচেয়ে দামি আম। মাত্র দুটি আমের একটি বাক্সের মূল্য দাঁড়ায় প্রায় ৩ লাখ টাকা!

টুকটুকে লাল এই আমের নাম ‘মিয়াজাকি’। জাপানের মিয়াজাকি শহরে প্রথমবার চাষ শুরু হয় বলে এমন নামকরণ। তবে এই প্রজাতির আমকে ‘সূর্য্য ডিম’ নামেও ডাকা হচ্ছে। আর বিশ্ব বাজারে এটি পরিচিত ‘রেড ম্যাংগো’ নামে। 

আমটির স্বাদ অন্য আমের চেয়ে প্রায় ১৫ গুণ বেশি। এই আম খেতে খুবই মিষ্টি। এই আমের গড় ওজন প্রায় ৭০০ গ্রামের মতো। পাশের দেশ ভারতে সর্বনিম্ন সাড়ে আট হাজার রুপি থেকে শুরু করে দুইটি আমের এক বাক্স সর্বোচ্চ তিন লাখ টাকায় বিক্রি হচ্ছে ।

এশিয়া মহাদেশে সাধারণত যেসব প্রজাতির আম চাষ হয় এই আম দেখতে এবং স্বাদে সেগুলোর চেয়ে ভিন্ন। এই মহাদেশের অন্যসব আম হয় সবুজ কিংবা হলুদ রংয়ের। আর আগুন রংয়ের এই আমটি দেখতে ঠিক যেন বড় একটি ডাইনোসরের ডিমের মতো।

১৯৭০-১৯৮০ সালের মাঝামাঝি সময়ে মিয়াজাকির ফলন শুরু হয় জাপানে। দেশটিতে এই আম দামি উপহার হিসেবে দেয়া হয়ে থাকে। দেখতে টকটকে লাল রং, মাঝে হালকা বেগুনি আভা। এর তুলনা টানা হয় দামি পাথর চুনার সঙ্গে।

ভারতের মধ্যপ্রদেশের এক দম্পতির বাগানে এই ‘মিয়াজাকি’ আম রয়েছে। কিন্তু এই গাছ দুটিই এখন তাদের সকল চিন্তার কারণ হয়েছে। এক গয়না ব্যবসায়ী আম কেনার জন্য প্রস্তাব দেন তাদের। কিন্তু প্রস্তাবে রাজি হয়নি মধ্যপ্রদেশের ওই দম্পতি।

দম্পতি জানিয়েছেন, এই আম বিক্রি করবেন না তারা। আমের বীজ থেকে গাছের সংখ্যা আরও বাড়ানোর পরিকল্পনা রয়েছে তাদের। এমনকি গাছ থেকে কেউ যেন আম চুরি করতে না পারে সেজন্য রক্ষী রেখেছেন। চারজন সশস্ত্র পাহারাদার এবং ছয়টি কুকুর দিনরাত পাহারা দেয় ‘মিয়াজাকি’ আমগাছগুলো। সূত্র : আনন্দবাজার

ডেইলি বাংলাদেশ/এনকে