মাংস কম পেয়ে বরপক্ষের ঝগড়া, বিয়ে ভাঙলো কনে নিজেই

ঢাকা, শনিবার   ০৮ মে ২০২১,   বৈশাখ ২৬ ১৪২৮,   ২৫ রমজান ১৪৪২

মাংস কম পেয়ে বরপক্ষের ঝগড়া, বিয়ে ভাঙলো কনে নিজেই

মজার খবর ডেস্ক ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

 প্রকাশিত: ১৪:৫২ ১৭ মার্চ ২০২১   আপডেট: ১৮:১৫ ১৭ মার্চ ২০২১

ছবি: বিয়ে ভাঙলো কনে নিজেই

ছবি: বিয়ে ভাঙলো কনে নিজেই

বিয়ে একটি সামাজিক বন্ধন। যা দুটি মানুষ ও পরিবারকে এক সুতোয় বাঁধে। আর এই এক সুতোয় বাঁধার আগেই ভেঙে যায় কারো কারো বিয়ে। তাও আবার সামান্য কারণে। খাবারে মাংস কম থাকায়। শুনতে অবাক লাগলেও কথাটা সত্যি। তেমনটাই হয়েছে ভারতের পশ্চিমবঙ্গের পূর্ব বর্ধমানের গলসির বাহিরঘন্না গ্রামে।

সেখানে বিয়ে বাড়িতে খাবারে মাংস কম পড়তেই ক্ষিপ্ত বরপক্ষ। এই নিয়ে কথা কাটাকাটির এক পর্যায়ে হাতাহাতি গড়ায় প্যান্ডেলে ভাঙচুর। এরপর সব মিটমাটের দিকে এগোলেও বেঁকে বসেন কনে। বিয়ে হতে না হতেই বরপক্ষের চরম অভদ্রতায় বিয়ের আসরেই তৈরি হয় ‘তালাকনামা’। বিয়ের পর নতুন সংসার করার আগেই বিয়ে ভাঙলেন পাত্রী। 

যা শুনতে সিনেমার গল্প বলে মনে হলেও, বাস্তবে এমনই সিদ্ধান্ত নিলেন নববধূ। নববধূ বলেন, যারা সামান্য মাংসের জন্য বিয়ে বাড়িতে এমন হুলুস্থুল কাণ্ড ঘটাতে পারে, আর যাই হোক তাদের বাড়ির বউ হতে পারবো না। মেয়ের এই সিদ্ধান্তে প্রথমে বাবা কিছুটা চিন্তায় পড়লেও, পরে তাতেই সম্মত হন পাত্রীর বাবাও। ওই বাড়িতে গেলে তার মেয়ে কিছুতেই ভালো থাকতে পারবে না। 

জানা যায়, ঘটনার দিন গলসির বামুনাড়া গ্রামের বাসিন্দা বর প্রায় ৭০ জন বরযাত্রী নিয়ে আসে। মেয়ের বাড়ির এলাকায় মসজিদে দুপুরে বিয়ে হবে। কনের বাবা পেশায় একজন দিনমজুর। তিনি দিনমজুর হলেও মেয়ের বিয়ের জন্য যথাসাধ্য আয়োজন করেছিলেন। সব কিছুই ঠিকঠাক চলছিল। তবে বরপক্ষ খেতে বসতে না বসতেই উত্তপ্ত হয়ে ওঠে বিয়ের আসর। 

এদিকে কনে রাজি না হওয়ায় তার আত্মীয়স্বজনরাও এই সিদ্ধান্তকে সমর্থন জানিয়েছেন। তাই আর তাদের বিয়ে হয়নি। বর যাত্রীকে বউ না নিয়ে বাড়ি ফিরতে হয়। 
 

ডেইলি বাংলাদেশ/এসএ