বিতর্কিত নীতি নিয়ে ‘টালবাহানায়’ হোয়াটসঅ্যাপ

ঢাকা, বুধবার   ০৩ মার্চ ২০২১,   ফাল্গুন ১৮ ১৪২৭,   ১৮ রজব ১৪৪২

বিতর্কিত নীতি নিয়ে ‘টালবাহানায়’ হোয়াটসঅ্যাপ

তথ্যপ্রযুক্তি ডেস্ক ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

 প্রকাশিত: ১৭:১৬ ২২ ফেব্রুয়ারি ২০২১   আপডেট: ১৭:১৭ ২২ ফেব্রুয়ারি ২০২১

হোয়াটসঅ্যাপ। ছবি: সংগৃহীত

হোয়াটসঅ্যাপ। ছবি: সংগৃহীত

হোয়াটসঅ্যাপের জনপ্রিয়তায় ভাটা পড়েছে তাদের নীতিগত পরিবর্তনের সিদ্ধান্তের কারণে। অনেকেই অ্যাপটি ছেড়ে বিআইপি, ট্রেলিগ্রামসহ বিভিন্ন প্ল্যাটফর্ম ব্যবহার শুরু করেছেন। তবে নতুন প্রাইভেসি নীতির কার্যকারিতা তিন মাস পিছিয়ে সমালোচনার মুখ থেকে কিছুটা গা বাঁচিয়েছিল হোয়াটসঅ্যাপ।

অনেকে ভেবেছিল, এর মধ্যে হোয়াটসঅ্যাপ হয়তো এই নীতিমালা থেকে সরে দাঁড়াবে। অ্যাপ কর্তৃপক্ষ প্রথমে পিছু হটেছে মনে হলেও এখন আবার উল্টো কথা বলছে।

হোয়াটসঅ্যাপ বলছে, নতুন নীতিমালার ভালো দিকগুলো মানুষের কাছে তুলে ধরা হবে। এর মানে, ইনিয়ে বিনিয়ে বিতর্কিত এই নীতিটিই কার্যকর করতে যাচ্ছে!

হোয়াটসঅ্যাপ আগেই বলেছিল, নীতিমালার এই হালনাগাদ বন্ধু ও পরিবারের সদস্যদের সঙ্গে যোগাযোগের গোপনীয়তার ক্ষেত্রে কোনো প্রভাব ফেলবে না। আগে যা ছিল, তা-ই থাকবে। হালনাগাদ যে জায়গায় হয়েছে, সেটা ব্যবসায়িক উদ্দেশ্যে হোয়াটসঅ্যাপ ব্যবহারের ক্ষেত্রে।

নতুন শর্ত অনুযায়ী, সর্বশেষ ৩০ দিনের তথ্য ফেসবুকের সঙ্গে বিনিময়ের ব্যাপারে গ্রাহকদের সম্মতি দিতে হবে। গ্রাহক হতে বা থাকতে হলে অবশ্যই এই শর্তে অবশ্যই রাজি থাকতে হবে।

এই আপডেটের যে বিষয়টি নিয়ে বিভ্রান্তি ছড়িয়েছে তা হল—ব্যবহারকারীর চ্যাট সংক্রান্ত যাবতীয় তথ্য ফেসবুকের সঙ্গে শেয়ার করতে পারে হোয়াটসঅ্যাপ। মূলত বিভিন্ন বিজ্ঞাপনের জন্যই নাকি এটি করা হবে। কিন্তু এই অভিযোগকে ‘বানোয়াট’ বলছে তারা।

নতুন প্রাইভেসি ও ডেটা বিনিময় নীতিমালার বিষয়টি জানুয়ারিতে জানাজানির পর এতটা চাপের মুখে পড়তে হবে বলে আশা করেনি ফেসবুকের মালিকানাধীন হোয়াটসঅ্যাপ।

ডেইলি বাংলাদেশ/এনকে