‘প্রযুক্তির সঠিক ব্যবহার ছাড়া কাঙ্ক্ষিত অর্থনৈতিক প্রবৃদ্ধি অর্জন অসম্ভব’

ঢাকা, রোববার   ০৬ ডিসেম্বর ২০২০,   অগ্রহায়ণ ২২ ১৪২৭,   ১৯ রবিউস সানি ১৪৪২

‘প্রযুক্তির সঠিক ব্যবহার ছাড়া কাঙ্ক্ষিত অর্থনৈতিক প্রবৃদ্ধি অর্জন অসম্ভব’

নিজস্ব প্রতিবেদক ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

 প্রকাশিত: ০১:২৭ ২৯ অক্টোবর ২০২০   আপডেট: ১৯:৪৫ ২৯ অক্টোবর ২০২০

আইসিটি প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক

আইসিটি প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক

তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি (আইসিটি) প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক বলেছেন, প্রযুক্তির সঠিক ব্যবহার ছাড়া কাঙ্ক্ষিত অর্থনৈতিক প্রবৃদ্ধি অর্জন করা সম্ভব নয়।

বুধবার রাজধানীর আগারগাঁওয়ে আইসিটি টাওয়ারের বিসিসি মিলনায়তনে অনলাইনে যুক্ত হয়ে তিনি এসব কথা বলেন।

প্রথমবারের মতো হংকং আন্তর্জাতিক ব্লকচেইন অলিম্পিয়াড প্রতিযোগিতা-২০২০ এ অংশ নিয়ে অসামান্য সাফল্য অর্জন করার স্বীকৃতিস্বরূপ বাংলাদেশের ১২টি দলকে সনদ প্রদানে এ অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়।

প্রতিমন্ত্রী বলেন, প্রযুক্তির যথাযথ ব্যবহার নিশ্চিতের লক্ষ্যে ও দক্ষ মানবসম্পদ তৈরিতে এরইমধ্যে প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ গ্রহণ করেছে বর্তমান সরকার। দক্ষ মানবসম্পদ গড়ে তুলতে স্কুল-পর্যায়ের শিক্ষার্থীদের কোডিংসহ তথ্যপ্রযুক্তি শেখানোর উদ্যোগ নেয়া হয়েছে।

পলক বলেন, ব্লকচেইন, ইন্টারনেট অব থিংস, রোবটিক্সের মতো ফ্রন্টিয়ার প্রযুক্তি সম্পর্কে ধারণা পেতে দেশে ৩০০টি স্কুল অব ফিউচার প্রতিষ্ঠা করা হচ্ছে। যাতে ভবিষ্যতে তারা চতুর্থ শিল্প বিপ্লবের উপযোগী দক্ষ মানুষ হয়ে গড়ে উঠতে পারে।

ই-ফাইলিংয়ে পৃথিবীর অনেক দেশের চেয়ে বাংলাদেশ এগিয়ে আছে উল্লেখ করে তিনি বলেন, করোনাকালীন ৭ মাসে ১০ লাখ ই-ফাইলের কাজ সম্পন্ন হয়েছে। সরকার ব্লকচেইন প্রযুক্তিভিত্তিক উদ্ভাবনী সমাধান তৈরিতে শিক্ষার্থী ও তরুণদের উৎসাহিত করছে। যাতে তা কৃষি, শিক্ষা, স্বাস্থ্যসহ অন্যান্য খাতে ব্যবহার করে সাশ্রয়ী সেবা দেয়া যায়।

প্রতিমন্ত্রী বলেন, আইটি খাতে বিনিয়োগ বৃদ্ধি ও দক্ষ মানবসম্পদ তৈরিতে সারা দেশে ২৮টি হাই-টেক/আইটি পার্ক গড়ে তোলা হচ্ছে। এরইমধ্যে নির্মিত যশোর শেখ হাসিনা সফটওয়্যার টেকনোলজি পার্কে কয়েকটি বিদেশি কোম্পানিসহ ৪৮টি কোম্পানি ব্যবসায়িক কার্যক্রম পরিচালনা করছে। তিন বছরেরও কম সময়ে এ পার্কে দেড় হাজারের অধিক কর্মসংস্থান হয়েছে।

বিসিসির নির্বাহী পরিচালক পার্থপ্রতিম দেবের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে আরো বক্তব্য দেন- তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি বিভাগের সিনিয়র সচিব এনএম জিয়াউল আলম, ব্লকচেইন অলিম্পিয়াড বাংলাদেশ (বিসিওএলবিডি)-এর আহ্বায়ক ও বুয়েটের সাবেক অধ্যাপক ড. মোহাম্মদ কায়কোবাদ, অধ্যাপক ড. জাফর ইকবাল, এলআইসিটি প্রকল্প পরিচালক মো. রেজাউল করিম, পলিসি অ্যাডভাইজার সামি আহমেদ, বেসিস সভাপতি সৈয়দ আলমাস কবির, হংকং ব্লকচেইন সোসাইটির সভাপতি ড. লরেন্স মা, বিসিওএলবিডি-এর সমন্বয়ক হাবিবুল্লাহ এন করিম।

অনুষ্ঠানে ২০২১ সালে ঢাকায় আন্তর্জাতিক ব্লকচেইন অলিম্পিয়াড প্রতিযোগিতার আয়োজন উপলক্ষে বিসিসি ও ব্লকচেইন অলিম্পিয়াড বাংলাদেশ-এর মধ্যে একটি সমঝোতা স্মারক স্বাক্ষরিত হয়। সমঝোতা স্মারকে স্বাক্ষর করেন বিসিসির পরিচালক (প্রশিক্ষণ) এনামুল কবির ও ব্লকচেইন অলিম্পিয়াড বাংলাদেশ (বিসিওএলবিডি)-এর সমন্বয়ক হাবিবুল্লাহ এন করিম।

এ বছর হংকং আন্তর্জাতিক ব্লকচেইন অলিম্পিয়াড প্রতিযোগিতায় বাংলাদেশের ডিউই নিমবাস আইবিসিওএল বেস্ট প্রোটোটাইপ অ্যাওয়ার্ড ও ডিজিটাল ইনোভেশন আইবিসিওএল-২০২০ সিলভার মেডেল পেয়েছে। প্রতিযোগিতায় অংশ নেয়া ১২টি দলকেই অ্যাওয়ার্ড অব মেরিট দেয়া হয়েছে। অনুষ্ঠানে হংকং আন্তর্জাতিক ব্লকচেইন অলিম্পিয়াড প্রতিযোগিতা-২০২০ এর আয়োজক, বিচারক ও মেন্টরদের সনদ দেয়া হয়েছে।

ডেইলি বাংলাদেশ/আরএ/এআর/এইচএন