গবেষণা: বায়ুদূষণের কারণে বাড়ছে গর্ভপাতের সংখ্যা

ঢাকা, বুধবার   ১৪ এপ্রিল ২০২১,   বৈশাখ ১ ১৪২৮,   ০১ রমজান ১৪৪২

গবেষণা: বায়ুদূষণের কারণে বাড়ছে গর্ভপাতের সংখ্যা

স্বাস্থ্য ও চিকিৎসা ডেস্ক ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

 প্রকাশিত: ১৩:০৭ ২৭ ফেব্রুয়ারি ২০২১   আপডেট: ১৩:০৮ ২৭ ফেব্রুয়ারি ২০২১

বায়ুদূষণের কারণে বাড়ছে গর্ভপাত

বায়ুদূষণের কারণে বাড়ছে গর্ভপাত

দিনদিন বাড়ছে গর্ভপাতের সংখ্যা। সম্প্রতি একটি গবেষণা থেকে গেছে ভারতে বায়ুদূষণের কারণে গর্ভপাত বাড়ছে। শুধু ভারতে নয়, বায়ুদূষণের কারণে পাকিস্তান ও বাংলাদেশেও গর্ভপাতের সংখ্যা বাড়ছে।

‘দ্য ল্যানসেট প্ল্যানেটরি হেলথ জার্নাল’-এ প্রকাশিত গবেষণা প্রতিবেদন বলছে– বায়ুদূষণের কারণে দক্ষিণ এশিয়ার দেশগুলোতে গর্ভপাতের সংখ্যা বাড়ছে। নির্দিষ্ট সময়ের আগে সন্তানের জন্ম দিচ্ছেন অনেক মা। সেসব শিশুর ওজনও স্বাভাবিকের তুলনায় অনেকটাই কম।

গবেষক দলের প্রতিনিধি অধ্যাপক টাও জুয়ে বলেছেন, দক্ষিণ এশিয়ার এসব জায়গায় বায়ুদূষণের পরিমাণ সবচেয়ে বেশি। এছাড়া গর্ভপাতের ঘটনা দক্ষিণ এশিয়াতেই সবচেয়ে বেশি।

পরিসংখ্যান বলছে, ভারত-পাকিস্তান-বাংলাদেশের বাতাসে পিএম ২.৫-এর পরিমাণ মারাত্মকভাবে বেশি। এই পিএম ২.৫ এমন এক ধরনের দূষিত কণা, যা নিঃশ্বাসের সঙ্গে ফুসফুসের একেবারে গভীরে চলে যেতে পারে। এবং সেখান থেকে খুব সহজেই রক্তে মিশে যায়। ফলে হৃদরোগ ও ফুসফুসের রোগের ঝুঁকি বাড়ে।

গবেষণায় আরো জানা যায়, এ ধরনের দূষিত কণা হবু মায়েদের জীবনে ডেকে আনতে পারে মারাত্মক বিপদ। পিএম ২.৫ ছেদ করে ফেলতে পারে তাদের প্লাসেন্টা। আর তাতেই ঘটেতে পারে গর্ভপাত।

দক্ষিণ এশিয়ার এ দেশগুলোতে প্রতি বছর বিপুল পরিমাণে গর্ভপাতের ঘটনা ঘটে। সংখ্যাটা এখন গড়ে প্রায় সাড়ে ৩ লাখ। এর বড় কারণ হচ্ছে গর্ভপাত।

সূত্র: বোল্ডস্কাই

ডেইলি বাংলাদেশ/এএ