শীতে ব্রোকলি না ফুলকপি, কোনটি খাওয়া বেশি উপকারী

ঢাকা, বৃহস্পতিবার   ০৪ মার্চ ২০২১,   ফাল্গুন ১৯ ১৪২৭,   ১৯ রজব ১৪৪২

শীতে ব্রোকলি না ফুলকপি, কোনটি খাওয়া বেশি উপকারী

স্বাস্থ্য ও চিকিৎসা ডেস্ক ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

 প্রকাশিত: ১২:৪৩ ২৬ জানুয়ারি ২০২১   আপডেট: ১০:৫০ ২৭ জানুয়ারি ২০২১

ব্রোকলি না ফুলকপি, কোনটি আপনার জন্য ভালো

ব্রোকলি না ফুলকপি, কোনটি আপনার জন্য ভালো

শরীর সুস্থ রাখতে শীতকালীন সবজির তুলনা হয় না। এরমধ্যে অন্যতম হচ্ছে ফুলকপি এবং ব্রোকলি। সারাবছর ফাস্টফুড আর অস্বাস্থ্যকর খাবার খেয়ে শরীরের যেটুকু ক্ষতি করেছেন, তার খানিকটা পুষিয়ে নিতে পারবেন রঙের ঋতুতে।

ফুলকপি এবং ব্রোকলি, সবজি দুটি দেখতে একরকম হলেও রঙ আলাদা। অনেকে মনে করেন পুষ্টি গুণের দিক দিয়ে ব্রোকলির চেয়ে বেশি উপকারী ফুলকপি। আবার অন্য আরেক দল মনে করেন ব্রোকলিকেই বেশি উপকারী। তবে বিশেষজ্ঞরা কি বলছেন জানেন কি? ব্রোকলি কিছু বছর আগেও বিদেশি সবজি থাকলেও বর্তমানে আমাদের দেশে এটি ব্যাপকভাবে চাষ হচ্ছে। 

ফুলকপির মতোই এটি রান্না করে, সালাদের সঙ্গে, ভেজে এবং নানা ধরনের স্যুপের সঙ্গে খাওয়া যায়। পুষ্টিমান কেউ কারো চেয়ে কম নয়। পর্যাপ্ত পরিমাণে ভিটামিন, মিনারেল, অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট ও ফাইটোকেমিকেলসহ বিভিন্ন পুষ্টিকর উপাদান রয়েছে দুটিতেই। ব্রোকলি এবং ফুলকপিতে প্রচুর পরিমাণে প্রয়োজনীয় খনিজ ও ভিটামিন আছে। যা শরীর সুস্থ রাখতে সাহায্য করে। তবে উভয়েরই কমবেশি ভালো খারাপ দিক রয়েছে। যেকারণে আপনার শারীরিক অবস্থার উপর নির্ভর করবে কোনটি আপনার জন্য খাওয়া বেশি ভালো।  

আরো পড়ুন: ক্যান্সারসহ বিভিন্ন রোগ প্রতিরোধ করবে ফুলকপি 

বিশেষজ্ঞরা বলছেন, ফুলকপি, বাঁধাকপি, বোক কোয়ে, ব্রাসেলস স্প্রাউট এবং এই ধরনের সবুজ পাতাযুক্ত ক্রুসীফেরাস গোত্রের শাকসবজি পুষ্টিগুণে সমৃদ্ধ এবং শরীরের জন্য দারুণ উপকারী। এ কারণে চিকিৎসকরা সুষম খাদ্যতালিকার জন্য ব্রোকলি এবং ফুলকপি খাওয়ার পরামর্শ দেন।

সবজি দুটিতে মিল থাকলেও এগুলো একইরকম নয়। দুটিরই আলাদা আলাদা স্বাস্থ্য গুণ রয়েছে। দুটিতেই কম পরিমাণে ক্যালরি এবং উচ্চ পরিমাণে পুষ্টি উপাদান যেমন-ফলিক এসিড, ম্যাঙ্গানিজ, ফাইবার, প্রোটিণ এবং ভিটামিন রয়েছে। যে পদ্ধতিতে সবজি দুটি চাষ করা হয় এবং এগুলোতে যে পুষ্টি রয়েছে তা সম্পূর্ণ আলাদা। 

ব্রোকলিতে প্রচুর পরিমাণে ফলিক এসিড রয়েছে। তবে এতে ফুলকপির চেয়ে বেশি ক্যালরি আছে। যারা ওজন কমাতে চান তাদের জন্য ফুলকপি বেশ উপকারী। অন্যদিক ব্রকলিতে থাকা ফলিক এসিড হৃদরোগের জন্য ভালো। 

আরো পড়ুন: ধনেপাতা যাদের জন্য মারাত্মক ক্ষতিকর

ব্রোকলিতে প্রচুর পরিমাণে ক্যালসিয়াম রয়েছে যা শরীর থেকে অতিরিক্ত মেদ ঝরাতে এবং হাড়ের গঠনে সাহায্য করে। ফুলকপি এবং ব্রোকলি-দুটিতেই প্রচুর পরিমাণে ম্যাঙ্গানিজ রয়েছে। তবে হাড় সুরক্ষায় ব্রোকলি বেশি কার্যকরী। এছাড়া আর্থ্রাইটিস এবং অন্যান্য হাড় ক্ষয় রোগের জন্যও ব্রোকলি বেশি উপকারী। 

ব্রোকলিতে প্রচুর পরিমাণে ভিটামিন যেমন-এ, সি, কে রয়েছে। যা সুষম খাদ্যতালিকা গঠনে কার্যকরী ভূমিকা পালন করে। অন্যদিকে ফুলকপিতে ভিটামিন এ, সি,কে –এর পরিমাণ ব্রোকলির চেয়ে কম রয়েছে। ভিটামিন এ চোখের সুরক্ষার জন্য কাযর্করী, ভিটামিন সি হৃৎপিণ্ড ও ত্বক সুরক্ষা করে, রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়ায়। অন্যদিকে ভিটামিন কে রক্ত জমাট বাঁধা প্রতিরোধ করে। সেই সঙ্গে হাড়ের সুরক্ষায়ও ভূমিকা রাখে। 

ডেইলি বাংলাদেশ/কেএসকে