ঋতু বদলে কিডনি ভালো রাখবে যেসব খাবার

ঢাকা, শনিবার   ২৩ জানুয়ারি ২০২১,   মাঘ ১০ ১৪২৭,   ০৮ জমাদিউস সানি ১৪৪২

ঋতু বদলে কিডনি ভালো রাখবে যেসব খাবার

স্বাস্থ্য ও চিকিৎসা ডেস্ক ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

 প্রকাশিত: ১১:২৫ ২৩ নভেম্বর ২০২০   আপডেট: ১১:২৮ ২৩ নভেম্বর ২০২০

ছবি: কিডনি সুস্থ রাখবে শীতকালীন এসব সবজি

ছবি: কিডনি সুস্থ রাখবে শীতকালীন এসব সবজি

বর্তমানে সর্দি কাশির মতোই কিডনির রোগও যেন সাধারণ রোগের কাতারে চলে এসেছে। দিন দিন কিডনি রোগীর সংখ্যা বেড়েই চলেছে। সাধারণত কিছু অসতর্কতার জন্যই দেখা দেয় এই ধরনের সমস্যা, যা পরবর্তীতে কিডনি ড্যামেজের কারণে পরিণত হয়।

বিশেষ করে শীতের এই সময়টাতে সবাই নানান রোগে ভোগেন। তাইতো কিডনি সুস্থ রাখতে এই সময় আপনাকে কিছু খাবার ডায়েটে রাখতেই হবে। নিয়মিত এই খাবারগুলো খেলে কিডনি নিয়ে চিন্তাই করতে হবে না আর। তাহলে চলুন জেনে নেয়া যাক কোন কোন খাবারগুলো এইসময় একটু বেশি করেই খাবেন। 

পেঁয়াজ 
অনেকেই নানান কারণে পেঁয়াজ খেতে চান না। তবে কিডনি সুস্থ রাখার একটি অন্যতম উপাদান হল পেঁয়াজ। এতে প্রচুর পরিমাণে ফ্ল্যাভোনোয়েড রয়েছে। যা রক্তের চর্বি দূর করে থাকে। এছাড়া এতে কুয়ারসেটিন আছে যা হৃদরোগ প্রতিরোধ করে থাকে। পেঁয়াজে পটাশিয়াম,প্রোটিন আছে যা কিডনির জন্য অনেক বেশি উপকারী।

আরো পড়ুন: অনিয়মিত পিরিয়ডের সমস্যা দূর হবে প্রাকৃতিক উপায়ে

রসুন 
পেঁয়াজের মতোই রসুন ইনফ্লেমেটরি এবং কোলেস্টেরল কমাতে অনেক বেশি কার্যকরী। এতে অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট উপাদান রয়েছে, যা দেহের প্রদাহ দূর করে থাকে। তবে রান্না করে খেলে এর অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট পাওয়া যায় না। সবচেয়ে ভালো হয় সকালে খালি পেটে কাঁচা রসুন খাওয়া, এটি হার্ট ভালো রাখার পাশাপাশি কিডনিকেও ভালো রাখে।

বাঁধাকপি
বাঁধাকপি কিডনির ফাংশন উন্নত করে থাকে। এতে রয়েছে ভিটামিন বি৬, সি, কে, ফাইবার, ফলিক অ্যাসিড। এটি শরীরের পটাসিয়ামের মাত্রা বজায় রাখতে সাহায্য করে। এটি সালাদ বা রান্না করে খেতে পারেন।

লাল ক্যাপসিকাম 
লাল ক্যাপসিকামে কম পরিমাণে পটাশিয়াম আছে যা কিডনি সুস্থ রাখতে সাহায্য করে। এতে ভিটামিন সি, এ, ভিটামিন বি সিক্স, ফলিক এসিড, ও ফাইবার রয়েছে। এছাড়া লাইকোপেন, অ্যান্টি-অক্সিডেন্ট উপাদান, যা ক্যান্সার প্রতিরোধক হিসেবে কাজ করে থাকে। রান্না বা সালাদ হিসেবে প্রতিদিনের খাদ্যতালিকায় লাল ক্যাপসিকাম খেতে পারেন।

আপেল 
প্রচলিত আছে 'প্রতিদিন একটি আপেল খেলে নাকি ডাক্তারের কাছে আর যেতেই হবে না। কথাটা কিন্তু কিডনির ক্ষেত্রেও সত্য। আপেল উচ্চ আঁশযুক্ত খাবার, এতে অ্যান্টি-ইনফ্লামেটোরি রয়েছে, যা বাজে কোলেস্টেরল দূর করে হৃদরোগ প্রতিরোধ করে থাকে। এছাড়া এটি ক্যান্সারের ঝুঁকি কমায়। আপেল কাঁচা বা রান্না করে অথবা প্রতিদিন এক গ্লাস আপেলের জুস খাওয়ার চেষ্টা করুন।

আরো পড়ুন: নিমের রস পানে পুরুষের হতে পারে মারাত্মক সমস্যা

ডিমের সাদা অংশ
ডিমের সাদা অংশে প্রচুর পরিমাণে প্রোটিন আছে। এতে প্রচুর পরিমাণে ফসফরাস এবং অ্যামিনো এসিড রয়েছে, যা কিডনি রোগ প্রতিরোধ করে কিডনিকে সুস্থ রাখে। ডিম সিদ্ধ করে বা অমলেট করে খেতে পারেন। তবে ডিমের সাদা অংশটাই শুধু খেতে পারবেন। ভুলেও কুসুম খাওয়া যাবে না। 

মাছ
২০০৮ সালে প্রকাশিত আমেরিকান জার্নাল অফ কিডনি ডিজিসের মতে, মাছ দেহে প্রোটিনের চাহিদা পূরণ করে। মাছে প্রচুর পরিমাণ ওমেগা থ্রি ফ্যাটি অ্যাসিড আছে যা ইনফ্লামেশন হ্রাস করে এবং কিডনিকে সুস্থ রাখে।

অলিভ অয়েল
অলিভ অয়েল হৃদস্বাস্থ্য সুস্থ রাখার পাশাপাশি কিডনিও ভালো রাখে। এতে প্রচুর পরিমাণ ওলিক অ্যাসিড এবং অ্যান্টি ইনফ্লামেটরি ফ্যাটি অ্যাসিড রয়েছে যা অক্সিডেসন কমিয়ে কিডনি সুস্থ রাখে। রান্নায় বা সালাদে অলিভ অয়েল রাখার চেষ্টা করুন।

ডেইলি বাংলাদেশ/কেএসকে