ওজন কমাতে গোলমরিচের চা কতটা কার্যকরী

ঢাকা, শনিবার   ২৪ অক্টোবর ২০২০,   কার্তিক ৯ ১৪২৭,   ০৭ রবিউল আউয়াল ১৪৪২

ওজন কমাতে গোলমরিচের চা কতটা কার্যকরী

স্বাস্থ্য ও চিকিৎসা ডেস্ক ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

 প্রকাশিত: ১৩:২৩ ২০ সেপ্টেম্বর ২০২০   আপডেট: ১৪:২৫ ২০ সেপ্টেম্বর ২০২০

ছবি:গোলমরিচের চা

ছবি:গোলমরিচের চা

ওজন কমাতে কত কিছুই না করেন। নিয়ম করে শারীরিক কসরত সঙ্গে কঠোর ডায়েট। কিছুতেই যেন বাধ মানে না। একবার শরীরের ওজন বেড়ে গেলে তা কমানো সত্যিই কষ্টের।  

ডায়েটের পাশাপাশি অনেকেই বিভিন্ন ধরনের ডেটক্স এবং চা খেয়ে থাকেন। এর মধ্যে সবচেয়ে জনপ্রিয় গ্রিন টি, পুদিনা এবং তুলসি চা, গোলমরিচের চাও খান অনেকে। তবে এই গোলমরিচের চা কি আসলেই ওজন কমায়? কতটা কার্যকরী এটি? এমন অনেক প্রশ্নই মাথায় আসে আপনার।

আজ তাহলে জেনে নিন গোলমরিচের চা আপনার ওজন কমাতে কতটা কার্যকরী হতে পারে-   

গোলমরিচ ভিটামিন এবং খনিজ সমৃদ্ধ। যা আপনার জন্য হতে পারে একটি দুর্দান্ত সুপারফুড। এতে থাকা উপাদানগুলো বেশ কয়েকটি স্বাস্থ্যগত সমস্যা নিরাময়ে সাহায্য করে। পাশাপাশি বিপাক ক্ষমতা বাড়িয়ে ওজন হ্রাস প্রক্রিয়াটিকে গতিময় করে তোলে।   

এতে রয়েছে ভিটামিন এ, কে, সি এবং ক্যালসিয়াম, পটাসিয়াম ও সোডিয়ামের মতো খনিজ দিয়ে পরিপূর্ণ। এছাড়াও গোল মরিচ স্বাস্থ্যকর ফ্যাট এবং ডায়েটরি ফাইবার সমৃদ্ধ। গবেষণায় দেখা গেছে যে, মশলাদার খাবার থার্মোজেনিক প্রভাবের কারণে খাবার বিপাক করতে সহায়তা করে। 
খাবারের থার্মোজেনিক এফেক্ট বা খাবারের তাপীয় প্রভাবকে (টিইএফ) যে পরিমাণে খাদ্য গ্রহণের পরে আপনার দেহ ক্যালরি পোড়ায় সেই হারের স্পাইক হিসাবে উল্লেখ করা হয়। এটি বিশ্বাস করা হয় যে, থার্মোজেনিক প্রভাব ক্যালরি ঝরানোর সংখ্যাকে প্রভাবিত করতে পারে এবং দ্রুত ওজন কমাতে পারে।

গোলমরিচে পাইপারিন রয়েছে। এটি একটি যৌগ যা হজম এবং বিপাকীয় কার্য সম্পাদনকে উন্নত করে। এই যৌগটি শরীরে ফ্যাট জমতে বাধা দেয় এবং স্বাস্থ্যকর উপায়ে ওজন কমাতে সাহায্য করে।

এছাড়াও গোলমরিচের চা শরীরে পুষ্টির শোষণে সহায়তা করে এবং রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা শক্তিশালী করে। বাত, মৌসুমী অ্যালার্জি এবং হাঁপানিতে আক্রান্ত ব্যক্তিদের জন্যও এই চা উপকারী।

জেনে নিন ওজন কমাতে এই চা কীভাবে তৈরি করবেন- 

একটি পাত্রে পানি, গোল মরিচ এবং কুচি করা আদা নিন। পানি পাঁচ মিনিটের জন্য ফুটতে দিন এবং তারপরে চুলা বন্ধ করে দিন। এক কাপে চা ছেঁকে নিয়ে তাতে লেবুর রস এবং মধু যোগ করুন। এবার পান করুন গোল মরিচের চা। 
 
সতর্কতা:
গোলমরিচ স্বাস্থ্যকর, তবে বেশি খেলে উচ্চ মাত্রায় গ্যাস্ট্রিকের সমস্যা হতে পারে। একদিনে এক থেকে দুই চা চামচের বেশি গোলমরিচ খাবেন না। এছাড়াও চা সবার জন্য উপকারী না ও হতে পারে। প্রথমবার এই চা পান করার পরে যদি খাদ্যনালি এবং পেটে জ্বালা অনুভব করেন তবে এটি এড়িয়ে চলুন। 

ডেইলি বাংলাদেশ/কেএসকে