১৫ বছর ধরে বাক্সবন্দী এক্স-রে মেশিন!

ঢাকা, বৃহস্পতিবার   ২২ অক্টোবর ২০২০,   কার্তিক ৮ ১৪২৭,   ০৬ রবিউল আউয়াল ১৪৪২

কাপ্তাই উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স

১৫ বছর ধরে বাক্সবন্দী এক্স-রে মেশিন!

রাঙামাটি প্রতিনিধি ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

 প্রকাশিত: ১৪:৪৯ ১৯ ফেব্রুয়ারি ২০২০   আপডেট: ১৬:৪৬ ১৯ ফেব্রুয়ারি ২০২০

ছবি: ডেইলি বাংলাদেশ

ছবি: ডেইলি বাংলাদেশ

রাঙামাটির কাপ্তাইয়ে ৩১ শয্যার উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের এক্স-রে মেশিনটি ১৫ বছর ধরে বাক্সবন্দী হয়ে পড়ে আছে। লো-ভোল্টেজের বিদ্যুতের অজুহাতে বন্ধ রয়েছে এক্স-রে সেবা।

ভুক্তভোগীদের অভিযোগ, উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে এক্স-রে সেবা না পেয়ে বেসরকারি প্রতিষ্ঠান থেকে বাড়তি টাকা দিয়ে এ সেবা নিতে হচ্ছে রোগীদের।

কাপ্তাই উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে সেবা নিতে আসা মো. রফিক মিয়া বলেন, এক্স-রে মেশিনটি আমাদের কোনো কাজে আসছে না। কর্তৃপক্ষের কাছে অনুরোধ, লো-ভোল্টেজের অজুহাত না দেখিয়ে এক্স-রে সেবা দ্রুত চালু করা হোক।

উপজেলা স্বাস্থ্য কর্মকর্তা মাসুদ আলম চৌধুরী বলেন, এক্স-রে মেশিন চালুর জন্য আমি বিদ্যুৎ বিভাগে অনেকবার যোগাযোগ করেছি। মেশিনটি চালাতে যে ভোল্টের বিদ্যুৎ প্রয়োজন, তা পাওয়া যাচ্ছে না।

কাপ্তাইয়ের ইউএনও আশরাফ উদ্দিন বলেন, ‘আমি বিষয়টি জেনে সিভিল সার্জনের সঙ্গে যোগাযোগ করেছি। এক্স-রে মেশিন চালু করতে ৪৪০ ভোল্টের বিদ্যুৎ প্রয়োজন। তবে ওই হাসপাতালে সরবরাহ করা হচ্ছে ২২০ ভোল্ট। নতুন হওয়া ৫০ শয্যার হাসপাতালে ৪৪০ ভোল্টের বিদ্যুৎ সংযোগ দেয়া হয়েছে। ওই সংযোগ ব্যবহার করে এক্স-রে মেশিন চালু করা যায় কিনা, তা বিবেচনা করা হচ্ছে।

রাঙামাটির সিভিল সার্জন ডা. শহিদ তালুকদার বলেন, দীর্ঘদিন ব্যবহার না হওয়ায় এক্স-রে মেশিনটি কাজ করবে কিনা সন্দেহ আছে। এখন সব উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ডিজিটাল এক্স-রে মেশিন রয়েছে। তাই আমরা মন্ত্রণালয়ে একটি ডিজিটাল এক্স-রে মেশিনের জন্য আবেদন করেছি। বরাদ্দ পেলে সমস্যা থাকবে না।

ডেইলি বাংলাদেশ/এআর