পাবিপ্রবি পাবনা জেলার গর্ব: নৌ পুলিশের অতিরিক্ত আইজিপি

ঢাকা, শনিবার   ২১ মে ২০২২,   ৭ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯,   ১৯ শাওয়াল ১৪৪৩

Beximco LPG Gas

পাবিপ্রবি পাবনা জেলার গর্ব: নৌ পুলিশের অতিরিক্ত আইজিপি

পাবিপ্রবি প্রতিনিধি ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

 প্রকাশিত: ১৭:১৩ ১৪ মে ২০২২  

ছবি: ডেইলি বাংলাদেশ

ছবি: ডেইলি বাংলাদেশ

বাংলাদেশে নৌ পুলিশের অতিরিক্ত আইজিপি মো. শফিকুল ইসলাম বিপিএম (বার), পিপিএম বলেছেন, পাবনা বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় পাবনা জেলার গর্ব। পাবনা জেলার সন্তান হিসেবে এই বিশ্ববিদ্যালয় নিয়ে গর্ববোধ করি।

শনিবার (১৪ মে) পাবনা বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় (পাবিপ্রবি) পরিদর্শনে এসে ডেইলি বাংলাদেশকে এসব কথা বলেন নৌ পুলিশের এই কর্মকর্তা। 

শনিবার দুপুর বারোটায় সহধর্মিনী বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিব মালেকা খায়রুন্নেচ্ছা এবং ছেলেকে নিয়ে বিশ্ববিদ্যালয় পরিদর্শনে আসেন বাংলাদেশ নৌ পুলিশের অতিরিক্ত আইজিপি মো. শফিকুল ইসলাম বিপিএম (বার), পিপিএম। 

এরপর বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য কার্যালয়ে বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ড. হাফিজা খাতুন এবং উপ-উপাচার্য অধ্যাপক ড. এস.এম. মোস্তফা কামালের সাথে উপাচার্য কার্যালয়ে মতবিনিময় করেন।

এ সময় তিনি বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য এবং উপ-উপাচার্যের সঙ্গে বিশ্ববিদ্যালয়ের পড়াশোনার মান উন্নয়ন, শিক্ষার্থীদের দেশের জন্য তৈরি করা, বিশ্ববিদ্যালয়ের উন্নয়নকর্মসহ বিভিন্ন বিষয়ে আলোচনা করেন।

উপাচার্য এবং উপ-উপাচার্যের সঙ্গে মতবিনিময় শেষে তিনি ডেইলি বাংলাদেশকে বলেন, একটা সময় পাবনাতে কোনো বিশ্ববিদ্যালয় ছিলো না। এখানকার ছেলে-মেয়েরা তখন জেলার বাইরের বিশ্ববিদ্যালয়গুলোতে উচ্চশিক্ষা নিতে হতো। এরপর এখানে বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিষ্ঠিত হয়েছে। এখন সারাদেশ থেকেই শিক্ষার্থীরা পাবনাতে উচ্চ শিক্ষার জন্য আসছে। এটা পাবনাবাসীর জন্য গর্বের এবং আনন্দের। আশা করছি খুব শিগগিরই বাংলাদেশের বুকে মাথা উঁচু করে দাঁড়াবে। পাশাপাশি বিশ্বের ভালো ভালো জায়গাতে এই বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা গুরুত্বপূর্ণ অবদান রাখবে।

এ সময় বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিব মালেকা খায়রুনেচ্ছা ডেইলি বাংলাদেশকে বলেন, বিশ্ববিদ্যালয়ে এসে ভালো লাগছে। আমরা বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য এবং উপ-উপাচার্যের সঙ্গে কথা বলেছি। উনারা বিশ্ববিদ্যালয়কে সামনে এগিয়ে নিতে চান। আমরা আশা করছি উনারা বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক, কর্মকর্তা, কর্মচারী এবং শিক্ষার্থীদের সঙ্গে নিয়ে এই বিশ্ববিদ্যালয়কে দেশের ভালো একটা অবস্থানে পৌঁছে দিতে সক্ষম হবেন।

উপাচার্য এবং উপ-উপাচার্যের সঙ্গে মতবিনিময় শেষে বিশ্ববিদ্যালয়ের উপ-উপাচার্য অধ্যাপক ড. এস. এম. মোস্তফা কামাল বিশ্ববিদ্যালয়ের স্বাধীনতা চত্বর, শহীদ মিনার, লেক, বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশতবর্ষ ম্যুরাল ‘জনক জ্যোতির্ময়’সহ বিশ্ববিদ্যালয়ের স্থাপনাগুলো ঘুরিয়ে দেখান। 

এই সময় সঙ্গে ছিলেন বিশ্ববিদ্যালয়ের রেজিস্ট্রার (চলতি দায়িত্ব) বিজন কুমার ব্রহ্ম, সহকারী রেজিস্ট্রার জহুরুল ইসলাম প্রিন্স।

ডেইলি বাংলাদেশ/জেডএম

English HighlightsREAD MORE »