মামা-ভাগনির পাঠশালায় পথশিশুরা

ঢাকা, বৃহস্পতিবার   ১৯ মে ২০২২,   ৫ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯,   ১৭ শাওয়াল ১৪৪৩

Beximco LPG Gas

মামা-ভাগনির পাঠশালায় পথশিশুরা

রিয়াজ হোসেন, রূপগঞ্জ ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

 প্রকাশিত: ১৫:০৬ ১৩ মে ২০২২   আপডেট: ১৫:১১ ১৩ মে ২০২২

পথ শিশুদের পাঠ দান-ছবি ডেইলি বাংলাদেশ

পথ শিশুদের পাঠ দান-ছবি ডেইলি বাংলাদেশ

আমাদের দেশে অনেক ছেলে মেয়ে বাবা মাকে হারিয়ে অভাব অনটনে লেখাপড়া থেকে বঞ্চিত হচ্ছে। যে বয়সে তাদের বই খাতা নিয়ে স্কুলে যাওয়ার কথা, ঠিক সেই সময়ে তারা রাস্তা-ঘাটে পড়ে থাকা প্লাস্টিক, পলিথিন, বোতল, লোহা কুড়িয়ে, ইটভাটা, বিভিন্ন শিল্পকারখানায় কাজ করে জীবিকা নির্বাহ করে। 

এমনকি অনেক শিশু খোলা আকাশের নিচে বেড়ে উঠছে। এসব শিশুদের নেই কোনো মৌলিক অধিকার। অভাবের কঠিন বাস্তবতা যাদের শেখাচ্ছে প্রতিনিয়ত নির্মম পৃথিবীতে বেঁচে থাকার সংগ্রাম। অভিভাবকহীন এসব শিশুরা ঝুঁকছেন সর্বনাশা মাদক আর ভয়ংকর অপরাধের পথে। তাদের মধ্যে শিক্ষার আলো ছড়িয়ে দেওয়ার জন্য নারায়ণগঞ্জের রূপগঞ্জে মামা আর ভাগনি মিলে গড়ে তুলেছেন পথ শিশুদের পাঠশালা। শিক্ষার সুবিধা বঞ্চিত এসব শিশুদেরকে মাঝে তারা ছড়িয়ে দিচ্ছেন শিক্ষার আলো। এসব শিশুরাও এখন দেখছেন ভবিষ্যতের স্বপ্ন।

সরেজমিনে ঘুরে দেখা যায়, রূপগঞ্জের ভুলতা ফ্লাইওভারের নিচে খোলা আকাশে রাত দিন কাটে শিশু তিন ভাই আতিকুল, নাহিদ আর লাবুর। বগুড়ার সোনাতলা এলাকায় বাড়ি ছিল তাদের। নদীতে সেটি ভেঙে গেলে বাবা বাবর আলী ঢাকা শহরে এসে বস্তিতে বসবাস শুরু করেন। পিঠা বিক্রি করে সংসার চললেও গত বছর করোনায় আক্রান্ত হয়ে মারা যান বাবর আলী। এরপর মা চামেলি ৩ ছেলে আর এক মেয়েকে নিয়ে কাজের সন্ধানে আসেন রূপগঞ্জের ভুলতা এলাকায়। কাজের কোনো সুযোগ না পেয়ে এখানেই তিন ছেলেকে ফেলে নিরুদ্দেশ হন তিনি। তারপর থেকে এক বছর ধরে বোতল পলিথিন আর কাগজ কুড়িয়ে চলছে তিন ভাইয়ের জীবন। ঘুমান ফ্লাইওভারের নিচেই।

ছবি ডেইলি বাংলাদেশ

তাদের মতো সাত বছরের ছোট্ট শিশু আফজাল। যে বয়সে কথা ছিল মা বাবার মমতা আর ভালোবাসায় শৈশবের রঙিন স্মৃতি হৃদয়ে অংকন করবে। নরম কচি হাতগুলোর সখ্য হবে বই খাতা আর পেন্সিলের সঙ্গে। সে বয়সে ইস্পাতের মতো কঠিন সংগ্রামী জীবন পার করছে সে। দিনভর বাবা মায়ের সঙ্গে কাজ করে ইটের ভাটায়। ইচ্ছার বিরুদ্ধে কাজ শুধু বিষাক্ত অভাবের কারণে। তারও ইচ্ছে পড়াশোনা করার। স্বপ্ন দেখে বড় হয়ে চিকিৎসক হবার। 

ভুলতা-গোলাকান্দাইল বাসস্ট্যান্ডসহ আশপাশের এলাকায় বাসাবাড়ি দোকানপাট, ইটের ভাটা, বেদে বহর আর পথেঘাটে ছড়িয়ে থাকা শিক্ষাবঞ্চিত একই বয়সের অন্তত ৩০-৪০ জন শিশু তপ্ত কঠিন দিন পার করলেও এসব শিশুদের জন্য সংবাদকর্মী বিপ্লব হাসান ভুলতা ফ্লাইওভারের নিচে গড়ে তুলেছেন পথ শিশুদের পাঠশালা।

এ ব্যাপারে সংবাদকর্মী ও পথ শিশুদের পাঠশালার উদ্যোক্তা বিপ্লব জানান, তার উদ্দেশ্য এসব সুবিধা বঞ্চিত শিশুরা যদি সামান্য স্বাক্ষর জ্ঞানও অর্জন করতে পারে তাহলে কোনো শিল্পকারখানা অথবা দোকানপাটে একটি চাকরির সুযোগ হয়তো পাবে আগামী দিনে। ঝুঁকবে না মাদক অথবা অপরাধের পথে। তার একটি রেকডিং স্টুডিও আছে সেখান থেকে যা উর্পাজন হয় এর সব উপার্জন ব্যয় করছেন এসব শিশুদের শিক্ষা সামগ্রী কেনায়। 

ছবি ডেইলি বাংলাদেশ

তিনি আর তার অনার্স পড়ুয়া ভাগনি তানজিলা আক্তার মিলেই পড়ান এসব শিশুদের। তার আবেদন যদি সরকারি একটি জমি এসব শিশুদের পাঠদানের জন্য বরাদ্দ পান তাহলে আগামী দিনে এসব শিশুদের নিয়ে আরো বড় পরিসরে কাজ করতে চান তিনি।

এমন উদ্যোগকে সাধুবাদ জানিয়ে রূপগঞ্জ উপজেলা প্রাথমিক শিক্ষা কর্মকর্তা জাহেদা আখতার বলেন, শিক্ষা শিশুদের মৌলিক অধিকার। সুবিধাবঞ্চিত শিশুদের নিয়ে এ ধরনের উদ্যোগ প্রশংসার দাবি রাখে। উদ্যোক্তা বিপ্লব হাসান এ ব্যাপারে এখনো আমাদের সঙ্গে কোনো যোগাযোগ করেননি। তিনি যদি আমাদের সঙ্গে যোগাযোগ করেন তাহলে তাকে আমরা সার্বিকভাবে সহযোগিতা করব।

ডেইলি বাংলাদেশ/জেএইচ

English HighlightsREAD MORE »