লন্ডনে স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তী উদযাপন

ঢাকা, মঙ্গলবার   ০৩ আগস্ট ২০২১,   শ্রাবণ ১৯ ১৪২৮,   ২৩ জ্বিলহজ্জ ১৪৪২

লন্ডনে স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তী উদযাপন

লন্ডন প্রতিনিধি ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

 প্রকাশিত: ২৩:২৩ ২৮ মার্চ ২০২১   আপডেট: ২৩:২৫ ২৮ মার্চ ২০২১

ছবি: সংগৃহীত

ছবি: সংগৃহীত

জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের প্রতি ব্রিটিশ মন্ত্রী ও এমপিদের গভীর শ্রদ্ধা জ্ঞাপন এবং প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সফল নেতৃত্বের অকুণ্ঠ প্রশংসার মধ্য দিয়ে লন্ডন মিশনে বাংলাদেশের গৌরবোজ্জ্বল স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তী উদযাপন করা হয়েছে। 

রোববার ঢাকায় এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়, লন্ডনস্থ বাংলাদেশ হাইকমিশন গত শুক্রবার এক বিশেষ আলোচনা অনুষ্ঠান ও কূটনৈতিক সংবর্ধনা আয়োজনের মধ্য দিয়ে বাংলাদেশের স্বাধীনতার ৫০ বছর পূর্তি উদযাপনে নয় মাসব্যাপী অনুষ্ঠানমালা শুরু করেছে। 

এই বিশেষ ভার্চুয়াল আলোচনা অনুষ্ঠান ও কূটনৈতিক সংবর্ধনায় অংশ নিয়ে ব্রিটিশ মন্ত্রী, এমপি, বিরোধীদলীয় নেতা, হাউস অব লর্ডসের সদস্য, লন্ডনের মেয়র এবং ইংল্যান্ড, স্কটল্যান্ড, আয়ারল্যান্ড এবং ওয়েলসের বিশিষ্ট সংসদ সদস্যরা জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান এবং একাত্তরের মুক্তিযুদ্ধের শহীদদের প্রতি গভীর শ্রদ্ধা নিবেদন করেন এবং প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে বাংলাদেশের অভূতপূর্ব আর্থ-সামাজিক উন্নয়ন ও অগ্রগতির অকুণ্ঠ প্রশংসা করেন। 

যুক্তরাজ্য ও আয়ারল্যান্ডে নিযুক্ত বাংলাদেশের হাই কমিশনার সাইদা মুনা তাসনীমের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে দক্ষিণ এশিয়া বিষয়ক এবং ব্রিটিশ কমনওয়েলথ, ফরেন ও উন্নয়ন অফিসের (এফসিডিও) মিনিস্টার অব স্টেট লর্ড তারিক আহমেদ, লন্ডনের মেয়র সাদিক খান, লেবার পার্টির ডেপুটি লিডার এবং চেয়ার অ্যাঞ্জেলা রায়নার এমপি, হাউজ অব কমন্সের বিদেশ বিষয়ক বাছাই কমিটির চেয়ারম্যান টম টিউজেনহাট এমপি, কনজারভেটিভ পার্টির ভাইস-চেয়ার মিস নিকি আইকেন এমপি, কনজারভেটিভ পার্টির আন্তর্জাতিক অ্যাম্বাসেডর লর্ড হান্নান, বাংলাদেশ বিষয়ক যুক্তরাজ্যের সর্বদলীয় সংসদীয় দলের চেয়ারম্যান ও বাংলাদেশ ও যুক্তরাজ্যের বাণিজ্য বিষয়ক দূত রুশনারা আলী এমপি, আফসানা বেগম এমপি, সারা বয়াক এমএসপি এবং আইএমও-এর সেক্রেটারি জেনারেল কিটাক লিম বক্তব্য রাখেন। 

বিরোধী দলীয় নেতা ও লেবার পার্টির প্রধান কীয়ার স্টারমার এমপি এবং আয়ারল্যান্ডের পররাষ্ট্রমন্ত্রী সাইমন কোভনি বিশেষ বার্তায় বঙ্গবন্ধুসহ একাত্তরের শহীদ মুক্তিযোদ্ধাদের প্রতি গভীর শ্রদ্ধা নিবেদন করে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা এবং বাংলাদেশের জনগণকে স্বাধীনতার ৫০ বছরপূর্তি উপলক্ষে শুভেচ্ছা জানান। 

যুক্তরাজ্যে বাংলাদেশের মুক্তিযুদ্ধের অন্যতম প্রধান সংগঠক সুলতান মাহমুদ শরীফ, ব্রিটিশ-বাংলাদেশি কমিউনিটির বিশিষ্ট সদস্য সৈয়দ সাজিদুর রহমান ফারুক ও নঈম উদ্দিন রিয়াজ এবং বীর মুক্তিযোদ্ধা মাহমুদ হাসান এমবিই অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখেন। 

অনুষ্ঠানে সুবর্ণজয়ন্তী উপলক্ষে দেয়া প্রিন্স চার্লস ও প্রধানমন্ত্রী বরিস জনসনের বিশেষ শুভেচ্ছা বাণীর ভিডিও এবং বাংলাদেশের উন্নয়নের ওপর ওয়ার্ল্ড ইকোনমিক ফোরামের একটি প্রামাণ্যচিত্র প্রদর্শন করা হয়। বঙ্গবন্ধু ও একাত্তরের শহীদদের নিবেদন করে বিশেষ সংগীত পরিবেশন করেন বিশিষ্ট গায়িকা রুনা লায়লা, শাকিলা জাফর, ফজলু বারী বাবু, অমিত গুপ্ত এবং গৌরী চৌধুরী। 

বিশিষ্ট সাংস্কৃতিক ব্যক্তিত্ব শম্পা রেজা প্রখ্যাত কবি শামসুর রাহমানের একটি কবিতা আবৃত্তি করেন। সাদিয়া ইসলাম মৌ ও তার দল এবং সনিয়া ও তার দল নৃত্য পরিবেশন করেন। গৌরী চৌধুরীর পরিচালনায় বাংলাদেশের স্বাধীনতার ৫০ বছরপূতি উপলক্ষে বিভিন্ন বিদ্যালয়ের ৫০ জন ব্রিটিশ-বাংলাদেশের শিশু বাংলাদেশ ও যুক্তরাজ্যের জাতীয় সংগীত পরিবেশন করেন। যুক্তরাজ্য এবং আয়ারল্যান্ডে বসবাসরত প্রবাসীরা এ ভার্চুয়াল অনুষ্ঠানে যোগ দিয়ে জাতির পিতা এবং মহান মুক্তিযুদ্ধের শহীদদের প্রতি গভীর শ্রদ্ধা নিবেদন করেন। 

অনুষ্ঠান শেষে হাইকমিশনার মিশনের কর্মকর্তা ও কর্মচারীদের নিয়ে ‘বাংলাদেশের স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তীর পঞ্চাশ বছরপূর্তি’ লেখা একটি কেক কাটেন। এর আগে সকালে হাইকমিশনার মিশনের কর্মকর্তা ও কর্মচারীদের নিয়ে হাই কমিশন ভবনে জাতীয় পতাকা উত্তোলন করেন। 

পরে রাষ্ট্রপতি, প্রধানমন্ত্রী, পররাষ্ট্রমন্ত্রী ও পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রীর বাণী পাঠ করে শোনানো হয়। জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান, তাঁর শহীদ পরিবার ও মহান মুক্তিযুদ্ধে শহীদদের আত্মার শান্তি কামনা করে এবং প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার দীর্ঘায়ু ও সুস্বাস্থ্য এবং বাংলাদেশের অব্যাহত উন্নতি কামনা করে বিশেষ দোয়া করা হয়।  

ডেইলি বাংলাদেশ/AN