অর্থের অভাবে গোলাপ বিক্রি করেও ইতালির চিকিৎসক হলেন বাংলাদেশি তরুণ

ঢাকা, মঙ্গলবার   ০৩ আগস্ট ২০২১,   শ্রাবণ ১৯ ১৪২৮,   ২৩ জ্বিলহজ্জ ১৪৪২

অর্থের অভাবে গোলাপ বিক্রি করেও ইতালির চিকিৎসক হলেন বাংলাদেশি তরুণ

প্রবাস ডেস্ক ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

 প্রকাশিত: ১৬:১৯ ১৪ ডিসেম্বর ২০২০  

রুমন সিদ্দিকি

রুমন সিদ্দিকি

স্বপ্নের খোঁজে ইতালিতে পাড়ি দেয়া সিলেটের মধ্যবিত্ত ঘরের ছেলে রুমন সিদ্দিকি। ডাক্তার হওয়ার স্বপ্ন যখন অর্থের অভাবে দূরে সরে যাচ্ছিলো, তখন গোলাপ বিক্রি করতে পথে নামেন তিনি। 

১৯৯৯ সালে এক আত্মীয়ার সঙ্গে ইতালি যান রুমন। রোটারি ইন্টারন্যাশনালের ‘মেক ইওর ড্রিমস কাম ট্রু’ প্রজেক্টের মাধ্যমে তার ভাগ্য বদলায়। অধ্যাপক নিকোলা কার্লিসি তার সব পড়ালেখার দায়িত্ব নেন।

সেই সব দিনের কথা স্মরণ করে ২৯ বছর বয়সী রুমন বলেন, পত্রিকায় আমার একটি লেখা পড়ে মুগ্ধ হন শিক্ষকের স্ত্রী। তখন থেকেই তিনি আমার সঙ্গে দেখার করার সিদ্ধান্ত নেন। তিনিই আমার জীবন বদলে দেন। আমার লেখাপড়ার দায়িত্ব নেন। তারা আমার জন্য সবকিছু করেছেন। তাদের ছাড়া কোনোদিন ডাক্তার হতে পারতাম না। নিজেদের ভাতিজার মতো আমাকে তারা গ্রহণ করেন।

নিকোলার পাশাপাশি মেধাবি রুমনের পাশে দাঁড়ান আরো কয়েকজন ব্যক্তি। সালভাতোর অ্যাব্রুস্কাটো তাকে থাকার জন্য একটি বাড়ি দেন। জিউসেপ গ্যালিয়াজো নামের আরেক জন দেন অর্থ। এই সব মানুষদের সাহায্য পেয়ে রুমন রাস্তায় ফুল বিক্রি বাদ দিয়ে পড়ালেখায় মন দেন।

সম্প্রতি ডাক্তারি পাশ করেছেন রুমন। স্বপ্ন আছে দেশে ফিরে মানুষের সেবা করার। তার আগে এই করোনাকালে ইতালিয়ানদের জন্য কিছু করতে চান।

ডেইলি বাংলাদেশ/জেএস