ম‌ডেল-অভি‌নেত্রী খেতাব প্রস‌ঙ্গে মুখ খুল‌লেন জয়া আহসান

ঢাকা, শুক্রবার   ২৪ সেপ্টেম্বর ২০২১,   আশ্বিন ১০ ১৪২৮,   ১৫ সফর ১৪৪৩

ম‌ডেল-অভি‌নেত্রী খেতাব প্রস‌ঙ্গে মুখ খুল‌লেন জয়া আহসান

বিনোদন প্রতিবেদক ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

 প্রকাশিত: ১৮:৩৫ ৫ আগস্ট ২০২১   আপডেট: ১৯:১৩ ৫ আগস্ট ২০২১

জয়া আহসান ও আলোচিত পরীমনি। ছবি: সংগৃহীত

জয়া আহসান ও আলোচিত পরীমনি। ছবি: সংগৃহীত

মডেল-অভিনেত্রীদের মাদক ও পর্নকাণ্ডে রীতিমতো হইচই পড়ে গেছে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে। এক এক করে পর্দা ফাঁস হচ্ছে, বেরিয়ে আসছে নানা অজানা তথ্য। আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর বক্তব্য অনুযায়ী, বিভিন্ন অপরাধে অভিযুক্ত এসব তরুণীরা মডেলিং বা অভিনয় দুনিয়ার সঙ্গে যুক্ত। ‘মডেল’ বা ‘অভিনেত্রী’ শব্দের ব্যবহার হচ্ছে তাদের নামের আগে। সেখানেই আপত্তি জানিয়েছেন অভিনেত্রী জয়া আহসান।

এই নিয়ে সামাজিক মাধ্যমে নিজের মতামত প্রকাশ করেছেন জয়া। পাশাপাশি একরাশ ক্ষোভও উগড়ে দেন তিনি। অভিনেত্রীর কথায়, ‘ব্যাক্তিগত পরিচয়, প্রভাব, কখনো বাহ্যিক সৌন্দর্য, কিছু ক্ষেত্রে কপালের জোড়ে দু-একটি বিজ্ঞাপন বা নাটকে কাজ করলেই তাকে মডেল বা অভিনেত্রী বলা যায় কি না সেই ভাবনাটা জরুরী হয়ে উঠছে।’

তিনি লেখেন, অনেক ক্ষেত্রে দেখা যায় কেউ কোন টাইম পাসিং সোস্যাল প্লাটফর্মে, ফ্রেন্ডলি মেইড ভিডিওতে অভিনয় করেছে। মডেল হিসেবে হয়তো ছবি আছে বাড়ির পাশের কোনো টেইলরের দোকানে অথবা একটা দুটি বিলবোর্ডে, সেও সোস্যাল মিডিয়াতে নিজেকে অভিনেত্রী বা মডেল দাবি করছে। অথচ মডেল বা অভিনেতা/অভিনেত্রী হয়ে ওঠার জন্য যে নিষ্ঠা, একাগ্রতা, জ্ঞান, দর্শন, প্রস্তুতি, সামাজিক ও পেশাদার দায়বদ্ধতা প্রয়োজন সেসবের কিছুই তার নেই।

জয়ার অনুরোধ, ‘যাকে খুশি মডেল বা অভিনেত্রী বলবেন না। এতে প্রকৃত শিল্পী অসম্মানিত হচ্ছেন’ আচমকা কেন তার এই প্রতিক্রিয়া? সেই কথাও পোস্টে জানিয়েছেন নায়িকা। তিনি বলেন, কোথাও পুলিশি অভিযানে ধর-পাকড় হলে অনেক ক্ষেত্রেই দেখা যায় হেডলাইন হয় অমুক মডেল বা অভিনেতা/অভিনেত্রী গ্রেফতার; যা অবধারিতভাবে হয়ে ওঠে আকর্ষনীয় সংবাদ। যা বিনোদন মাধ্যমে নিষ্ঠার সঙ্গে কর্মরত সবার জন্য সামাজিকভাবে অত্যন্ত বিব্রতকর এবং অসম্মানজনক হয়ে ওঠে।

বুধবার রাতে বিপুল মাদকদ্রব্যসহ পরীমনিকে আটক করা হয়। এরপর প্রযোজক নজরুল ইসলাম রাজকে তার কার্যালয় থেকে আটক করা হয়। এসময় বিপুল পরিমাণে বিদেশি মদ, ইয়াবা বড়ি, সেক্স টয় উদ্ধার করা হয়। এর আগে রোববার রাতে বারিধারার ৯ নম্বর রোড এলাকায় মডেল পিয়াসার বাসায় অভিযান চালায় গোয়েন্দা (ডিবি) পুলিশ। পরে তাকে নিয়ে মোহাম্মদপুরের বাবর রোডে মডেল মৌয়ের অভিযান চালানো হয়।

ডেইলি বাংলাদেশ/এনকে/টিআরএইচ