পরীমনির বাসার বাইরে দাঁড়িয়ে মাত্র ৩০ মিনিটেই রমরমা এমদাদ

ঢাকা, সোমবার   ২৭ সেপ্টেম্বর ২০২১,   আশ্বিন ১২ ১৪২৮,   ১৮ সফর ১৪৪৩

পরীমনির বাসার বাইরে দাঁড়িয়ে মাত্র ৩০ মিনিটেই রমরমা এমদাদ

নিজস্ব প্রতিবেদক ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

 প্রকাশিত: ১৯:১১ ৪ আগস্ট ২০২১   আপডেট: ১৩:৪১ ৫ আগস্ট ২০২১

নায়িকার বাসার সামনে ভিড় জমায় হাজারো মানুষ। ছবি: ডেইলি বাংলাদেশ

নায়িকার বাসার সামনে ভিড় জমায় হাজারো মানুষ। ছবি: ডেইলি বাংলাদেশ

ঢাকাই সিনেমার জনপ্রিয় অভিনেত্রী পরীমনির বাসায় অভিযান চালিয়ে তাকে আটক করেছে র‌্যাপিড অ্যাকশন ব্যাটালিয়ন (র‌্যাব) সদস্যরা। বুধবার বিকেল ৪টার দিকে পরীর বাসায় অভিযান শুরু হয়। অভিযানে অংশ নেয় র‍্যাব-১ ও র‍্যাব সদর দফতরের একাধিক টিম। 

সরেজমিনে দেখা গেছে, ঢাকার বনানী ১৯/এ সড়কের ১২ নম্বর বাড়ির পাঁচতলাতে থাকেন চিত্রনায়িকা পরীমনি। তাকে আটকের খবর পেয়ে তার বাসার সামনে ভিড় জমায় হাজার হাজার মানুষ। করোনা পরিস্থিতিতে এমন উৎসুক জনতার ভিড় ঠেকাতে পরীমনির বাসার সামনে মাইকিংও করে বনানী সোসাইটি। সেখানে ছিলেন মো. এমদাদুল হক। তার গ্রামের বাড়ি বরগুনায়। দুই ছেলে এক মেয়েকে নিয়ে টানাপোড়েনের সংসার। জীবিকা নির্বাহ করতে তাই মাস্ক বিক্রির ব্যবসা শুরু করেছেন তিনি। প্রতিদিন তার টার্গেট থাকে কমপক্ষে ২০০ মাস্ক বিক্রি করা। আজ বুধবার সারাদিন বনানীর বিভিন্ন সড়কে ঘুরে ঘুরে মাস্ক বিক্রি করেছেন তিনি। কিন্তু লক্ষ্যমাত্রা অনুযায়ী বিক্রি না হওয়ায় হতাশায় ছিলেন তিনি।

আরো পড়ুন: দেশের যেসব অভিনেত্রী-মডেল পর্নোগ্রাফিতে জড়িত

 মাস্কের ব্যাগ হাতে মো. এমদাদুল হক - সংগৃহীত

বিকেল সাড়ে ৪টার দিকে চিত্রনায়িকা পরীমনিকে তার বনানীর বাসা থেকে আটকের খবর পান এমদাদুল। রাস্তার পাশের একটি ক্যান্টিনের টেলিভিশনের সংবাদ প্রতিবেদনে তিনি দেখেন- নায়িকার বাসার সামনে ভিড় জমিয়েছে হাজার হাজার মানুষ। সংবাদ দেখেই মাস্কের ব্যাগ হাতে নিয়ে চলে যান পরীর বাসার সামনে। সেখানেই ঘটে চমক। সারাদিন বনানীর বিভিন্ন সড়কে ঘুরে ঘুরে মাস্ক যে পরিমাণ বিক্রি করেছেন পরীমনির বাসার সামনে মাত্র ৩০ মিনিটে বিক্রি করেন ওই পরিমাণ মাস্ক। পরে স্ত্রীর মাধ্যমে বাসা থেকে আরো কিছু মাস্ক আনান এমদাদুল। সেগুলোও বিক্রি করেন সুযোগ বুঝে। এতেই মাত্র ৩০ মিনিটেই রমরমা হয়ে যান এমদাদ।

আরো পড়ুন: টাকার নেশায় পর্নোগ্রাফি জগতে প্রবেশ করেন পরীমনি

এদিকে, এ সংবাদ লেখা পর্যন্ত র‍্যাবের পক্ষ থেকে পরীমনিকে আটকের কথা বলা হলেও এখনো বাসা থেকে বের করা হয়নি তাকে। তবে, জানা গেছে পরীমনিকে র‌্যাব সদর দফতরে নিয়ে যাওয়া হবে কিছুক্ষণের মধ্যে। র‍্যাবের বেশিরভাগ সদস্য নায়িকার অ্যাপার্টমেন্টের গ্যারেজে অবস্থান করছেন। পরীর ফ্ল্যাটের মূল দরজা লাগিয়ে দিয়ে ভেতর থেকে বাইরে বা বাইরে থেকে ভেতরে কাউকেই যাতায়াত করতে দেওয়া হচ্ছে না।

ডেইলি বাংলাদেশ/টিআরএইচ/এনকে