৯ বছরের বিবাহিত জীবনে মাত্র ২০ দিন সংসার করেছেন কাঞ্চন

ঢাকা, শনিবার   ৩১ জুলাই ২০২১,   শ্রাবণ ১৬ ১৪২৮,   ২০ জ্বিলহজ্জ ১৪৪২

৯ বছরের বিবাহিত জীবনে মাত্র ২০ দিন সংসার করেছেন কাঞ্চন

বিনোদন ডেস্ক ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

 প্রকাশিত: ১৬:৩৪ ২১ জুন ২০২১  

ফাইল ছবি

ফাইল ছবি

ব্যক্তিগত জীবনে স্ত্রী পিঙ্কি বন্দ্যোপাধ্যায়ের সঙ্গে সম্পর্কে টানাপড়েন, শ্রীময়ী চট্টরাজের সঙ্গে সম্পর্কের গুঞ্জন নিয়ে বিতর্ক চলছেই। তবে তারই মাঝে চরম ব্যস্ততায় দিন কাটছে কৌতুক অভিনেতা কাঞ্চন মল্লিকের। 

এদিকে নিজের ব্যক্তিগত জীবন নিয়ে তেমন একটা কথা বলতে দেখা যায়নি কাঞ্চন মল্লিককে। অবশেষে বিস্তারিত জানালেন তিনি। তার ভাষায়— নোংরামি, কাদা ছোড়াছুড়ির জঘন্যতম পর্যায় চলছে। আমি চুপচাপ দেখে গিয়েছি। জলঘোলা করতে চাইনি। কিন্তু আমি না চাইলে কী হবে! পিংকি চেয়েছে। আর চেয়েছে বলেই সংবাদমাধ্যমে যা ইচ্ছে বলে যাচ্ছে। এই পিংকি বন্দ্যোপাধ্যায়কে আমি চিনি না। যাকে ৯ বছর আগে বিয়ে করেছিলাম, যে মানুষ আমার ৮ বছরের একমাত্র ছেলের মা! কেন এ রকম করছে পিংকি? আমি জানি না।

৯ বছর আগে বিবাহবন্ধনে আবদ্ধ হন পিংকি-কাঞ্চন। কিন্তু তারা সংসার করেছেন মাত্র ২০ দিন। বিষয়টি জানিয়ে কাঞ্চন মল্লিক বলেন, বিয়ের পরে মাত্র ২০ দিন সংসার করে পিংকি তার বাবার বাড়িতে চলে যায়। কেন গিয়েছে? আমার মায়ের সঙ্গে নাকি থাকা যায় না! আমি মেনে নিয়েছি। এরপর আমার মা গুরুতর অগ্নিদগ্ধ হন। দ্বিতীয়বার মৃত্যুর মুখ থেকে ফিরেছেন। এক সময় চির বিদায় নিয়েছেন। গত বছর আমার বাবাও চলে যান। কিন্তু পিংকিকে পাশে পাইনি। এসব নিয়েও আমার কোনো অভিযোগ নেই। আমি কোনো দিন মুখও খুলিনি। এখন পিংকির এক তরফা কথা শুনে অনেকেই আমাকে নিয়ে বিস্ময় প্রকাশ করছেন।

সংবাদমাধ্যমে খবরের পর খবর দেখে পিংকিকে ফোন করে মুখোমুখি বসে আলোচনা করার অনুরোধ জানিয়েছিলেন কাঞ্চন। কিন্তু সেই অনুরোধ রাখেননি। 

শনিবার (১৯ জুন) রাতে কলকাতার নিউ আলিপুর থানায় কাঞ্চন ও শ্রীময়ীর বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করেছেন পিংকি। এখন আইনি প্রক্রিয়ার মাধ‌্যমে সব সমস‌্যার সমাধান করতে চান কাঞ্চন। এ অভিনেতা বলেন, আমাকে যখন আইনি পথ দেখানো হয়েছে, এবার আমিও সেই পথেই হাঁটব। আমিও আইনজীবীর পরামর্শ নিয়ে আগামী দিনে কথা বলব। সেই মতো পদক্ষেপ গ্রহণ করব।

ডেইলি বাংলাদেশ/টিএএস