আইয়ুব বাচ্চুর মৃত্যুবার্ষিকীতে ছেলে-মেয়ের আবেগঘন স্ট্যাটাস

ঢাকা, শুক্রবার   ৩০ অক্টোবর ২০২০,   কার্তিক ১৬ ১৪২৭,   ১২ রবিউল আউয়াল ১৪৪২

আইয়ুব বাচ্চুর মৃত্যুবার্ষিকীতে ছেলে-মেয়ের আবেগঘন স্ট্যাটাস

বিনোদন প্রতিবেদক ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

 প্রকাশিত: ১৭:১৬ ১৭ অক্টোবর ২০২০  

প্রয়াত সঙ্গীত শিল্পী আইয়ুব বাচ্চু এবং তার পরিবার

প্রয়াত সঙ্গীত শিল্পী আইয়ুব বাচ্চু এবং তার পরিবার

কিংবদন্তি গিটারিস্ট ও ব্যান্ড তারকা আইয়ুব বাচ্চুর তুমুল জনপ্রিয় গান ‘রূপালি গিটার’। রূপালি গিটার ছেড়ে বহুদূর চলে গিয়েছেন তিনি। তবে তার শোক আজও বয়ে বেড়াচ্ছে তার ভক্তকুল এবং পরিবার। 

আগামীকাল এই শিল্পীর দ্বিতীয় মৃত্যুবার্ষিকী। ভক্তরা তাকে শ্রদ্ধাভরে স্মরণ করবেন।  তাকে নিয়ে আবেগঘন স্ট্যাটাস দিয়েছেন তার মেয়ে ফাইরুজ সাফরা আইয়ুব ও ছেলে আহনাফ তাজওয়ার আইয়ুব। তারা বাবার জন্য সবার কাছে দোয়া চেয়েছেন।

বাবাকে নিয়ে স্মৃতিচারণ করে দু’জন এলআরবি’র ভেরিফাইড ফেসবুকে একটি স্ট্যাটাস দিয়েছেন। লিখেছেন: বাবুইকে (আইয়ুব বাচ্চু) ছাড়া চলে গেল দুই বছর। আরো ক’বছর এভাবে যাবে জানি না। আমাদের মতো আপনাদেরও (ভক্তদের) অনেক কষ্টের দিন ১৮ অক্টোবর। বাবুইয়ের জন্য সবাই মন থেকে দোয়া করবেন।

দ্বিতীয় মৃত্যুবার্ষিকীর পরিকল্পনা জানিয়ে তারা লিখেছেন: বাবুইয়ের জন্মদিনে ও গত বছর চলে যাওয়ার এই দিনে যতটুকু করলে আল্লাহ্ খুশি হন ততটুকুই করেছি এবং করে যাব ইনশাআল্লাহ। শুরুতেই বলে নেই, আমরা ঘোষণা দিয়ে কখনোই কিছু করিনি। কারণ বাবুইয়ের কাছ থেকে একটা জিনিস খুব ভালো করে শিখেছি যে ডান হাত দান করলে যেন বাম হাত জানতে না পারে। এবার পেনডেমিক-এর জন্য সবকিছু একটু থমকে গেছে। আমরা পারিবারিকভাবে বাবুইয়ের পছন্দের জায়গাগুলোতে যেখানে তিনি আগেও দিতেন সেসব জায়গায় দোয়া খায়ের করবো। বাসার পাশে মসজিদে মাসজুড়ে কোরান খতম, পারিবারিকভাবে খতম এবং এতিম খানায় খাওয়ানো- এসব করছি। আল্লাহপাক যেন আমাদের এই দান ও ইবাদত কবুল করেন।

ভক্তদের নামাজ পরে দোয়া করার অনুরোধ জানিয়ে দু’জন আরো লিখেছেন: আমাদের জন্য দোয়া করবেন যেনো আমরা দুই ভাই-বোন আর কাছের কয়েকজন মিলে যতদিন বেঁচে থাকবো ততদিন তার জন্য এভাবেই যেন নিঃশব্দে করে যেতে পারি। তার সব সৃষ্টিকে যেন আমরা রক্ষা করতে পারি। তার জন্য যা যা করা ও যতটুকু করার তা আমরা করবো আমাদের শেষ নিঃশ্বাস পর্যন্ত। আমাদের আশা আপনারাও আমাদের এই পথ চলায় সঙ্গে থাকবেন।

এদিকে, আইয়ুব বাচ্চুর গান এবার সরকারিভাবে সংরক্ষণের জন্য ব্যবস্থা নেয়া হচ্ছে। কপিরাইট রেজিস্টার জাফর রাজা চৌধুরী বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। এর মধ্য দিয়ে প্রথমবারের মতো বাংলাদেশের কোনো শিল্পীর গান সংরক্ষণ করা হচ্ছে সরকারি উদ্যোগে। বিষয়টিকে সংগীতের মানুষেরা সাধুবাদ জানিয়েছেন।

ডেইলি বাংলাদেশ/টিএএস