পঁচাত্তরের পর প্রথম বঙ্গবন্ধু বইমেলা

ঢাকা, শুক্রবার   ০৭ অক্টোবর ২০২২,   ২২ আশ্বিন ১৪২৯,   ১০ রবিউল আউয়াল ১৪৪৪

Beximco LPG Gas

পঁচাত্তরের পর প্রথম বঙ্গবন্ধু বইমেলা

শাকিল আহমেদ, তিতুমীর কলেজ ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

 প্রকাশিত: ১৬:৩২ ১৪ আগস্ট ২০২২  

বঙ্গবন্ধুকে নিয়ে বঙ্গবন্ধু বইমেলার আয়োজন করেছে সরকারি তিতুমীর কলেজ শাখা ছাত্রলীগ। ছবি: ডেইলি বাংলাদেশ

বঙ্গবন্ধুকে নিয়ে বঙ্গবন্ধু বইমেলার আয়োজন করেছে সরকারি তিতুমীর কলেজ শাখা ছাত্রলীগ। ছবি: ডেইলি বাংলাদেশ

১৫ আগস্ট জাতীয় শোক দিবসকে সামনে রেখে বঙ্গবন্ধুকে নিয়ে বঙ্গবন্ধু বইমেলার আয়োজন করেছে সরকারি তিতুমীর কলেজ শাখা ছাত্রলীগ। দুইদিন ব্যাপী বঙ্গবন্ধু বইমেলা চলবে আগামী ১৫ আগস্ট পর্যন্ত।

রোববার (১৪ আগস্ট) বইমেলা উদ্বোধন করেন বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের দপ্তর সম্পাদক ব্যারিস্টার বিপ্লব বড়ুয়া।

বঙ্গবন্ধুকে নিয়ে বঙ্গবন্ধু বইমেলা সাজানো হয়েছে। তবে বঙ্গবন্ধুকে নিয়ে লেখা বইয়ের পাশাপাশি রয়েছে রবীন্দ্রনাথ, নজরুলসহ বিখ্যাত লেখকদের লেখা গল্প, উপন্যাস ও কবিতা।

জানা যায়, বঙ্গবন্ধুকে নিয়ে ৮০টি, মুক্তিযুদ্ধের ইতিহাস নিয়ে ১২০টি ও গল্প-কবিতার বই পাওয়া যাচ্ছে বইমেলাতে। 

বঙ্গবন্ধু বইমেলায় উল্লেখযোগ্য কয়েকটি বইয়ের মধ্য রয়েছে ‘ডাকটিকিট ও মুদ্রায় বঙ্গবন্ধু’, বঙ্গবন্ধুকে নিয়ে ইংরেজি অনুবাদ ‘ব্লাড অব আওয়ার হিরো বঙ্গবন্ধু’, ‘বঙ্গবন্ধুর কারাজীবন’, ‘বঙ্গবন্ধুর অসমাপ্ত আত্মজীবনী’ ইত্যাদি।

বঙ্গবন্ধু বইমেলায় বই বিক্রি করছেন বিশ্ব সাহিত্য প্রকাশনার বিক্রেতা মো. তোফাজ্জল হোসেন। তিনি বলেন, বইমেলাতে বঙ্গবন্ধুকে নিয়ে লেখা বইগুলো বেশি বিক্রি হচ্ছে। বইমেলায় বঙ্গবন্ধু, মুক্তিযুদ্ধ, গল্প, উপন্যাস ও কবিতাসহ হরেকরকমের বই পাওয়া যাচ্ছে। 

কলেজের অনার্স চতুর্থ বর্ষের অর্থনীতি বিভাগের শিক্ষার্থী মেহেরুন্নেসা মিম বলেন, এমন আয়োজন তিতুমীর কলেজে প্রথম। আমরা অনেক আনন্দিত ও উৎসাহিত। আমি বঙ্গবন্ধুকে নিয়ে একটি বই কিনেছি। আমরা চাই এমন আয়োজন প্রতিবছর আয়োজন করা হোক। 

বঙ্গবন্ধু বইমেলা আয়োজক কমিটির আহবায়ক ও বাংলা বিভাগের অধ্যাপক রতন সিদ্দিকী বলেন, ১৯৭৫ সালের পর বঙ্গবন্ধুকে নিয়ে বইমেলা বাংলাদেশ ছাত্রলীগের পক্ষ থেকে এর আগে হয়নি। তিতুমীর কলেজ শাখা ছাত্রলীগের পক্ষ থেকে বঙ্গবন্ধু বইমেলার আয়োজন করা হয়েছে।

তিনি আরো বলেন, বাংলাদেশের সামাজিক অবস্থার দিক বিবেচনা করে এদেশে ষাটের দশকের ছাত্রলীগের মতো সাংস্কৃতিক রুপান্তর দরকার। ১৯৬৬ সালের ১৪ থেকে ২১ ফেব্রুয়ারি বাংলাদেশ ছাত্রলীগ বাংলা ভাষা প্রচলন আন্দোলন করেছিল। পূর্ব বাংলার রাস্তার সাইনবোর্ডগুলোতে তখন উর্দু লেখা থাকত তখন তৎকালীন ছাত্রলীগের কর্মীরা বাংলা লিখে তার প্রতিবাদ করেছিল। এখন আবারো একটা সাংস্কৃতিক রুপান্তর দরকার। যেটা তিতুমীর কলেজ শাখা ছাত্রলীগের হাত ধরে শুরু হয়েছে। 

ডেইলি বাংলাদেশ/কেবি

English HighlightsREAD MORE »