এক ক্লিকেই প্রয়োজনীয় বই পাবেন রুয়েট শিক্ষার্থীরা

ঢাকা, শনিবার   ০২ জুলাই ২০২২,   ১৮ আষাঢ় ১৪২৯,   ০২ জ্বিলহজ্জ ১৪৪৩

Beximco LPG Gas

এক ক্লিকেই প্রয়োজনীয় বই পাবেন রুয়েট শিক্ষার্থীরা

রাবি প্রতিনিধি ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

 প্রকাশিত: ১৬:৫৮ ১৮ এপ্রিল ২০২২   আপডেট: ১৭:১০ ১৮ এপ্রিল ২০২২

রুয়েট কেন্দ্রীয় লাইব্রেরিতে সফটওয়্যার ভিত্তিক এই কার্যক্রমের উদ্বোধন করে ভিসি অধ্যাপক ড. মো. রফিকুল ইসলাম সেখ

রুয়েট কেন্দ্রীয় লাইব্রেরিতে সফটওয়্যার ভিত্তিক এই কার্যক্রমের উদ্বোধন করে ভিসি অধ্যাপক ড. মো. রফিকুল ইসলাম সেখ

বিশাল এক লাইব্রেরি, সেখানে বিভিন্ন সেলফে সাজানো রয়েছে প্রায় ৩০ হাজার বই। সেখান থেকে আপনার পছন্দের বই খুঁজে বের করা খুবই কষ্টকর। এমন যদি হয় লাইব্রেরিতে আপনার প্রয়োজনীয় বইটি কম্পিউটারে একটি ক্লিকের মাধ্যমে খুঁজে পান তাহলে কেমন হয়? এতে একদিকে আপনার সময় বেঁচে যাবে অন্যদিকে বই খোঁজার মতো অস্বস্তিকর অবস্থা থেকে মুক্তি পাবেন। তাই তো বই খুঁজার এমন সমস্যার সমাধানে রাজশাহী প্রকৌশল ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের (রুয়েট) কেন্দ্রীয় লাইব্রেরিতে যাত্রা শুরু করেছে Library Automation based software ‘Koha (Open Source)’ কার্যক্রম।

সোমবার বেলা ১১টায় রুয়েট কেন্দ্রীয় লাইব্রেরিতে সফটওয়্যার ভিত্তিক এই কার্যক্রমের উদ্বোধন করে ভিসি অধ্যাপক ড. মো. রফিকুল ইসলাম সেখ। 

জানা যায়, এই সফটওয়্যারের মাধ্যমে ছাত্র-ছাত্রীরা নিজেরাই বই ইস্যু করতে পারবে। কোন বই কোন গ্যালারিতে আছে, বইটি লাইব্রেরিতে আছে কিনা থাকলে কয়টা আছে, না থাকলে কার কাছে আছে, কবে নাগাদ বইটি পাওয়া যেতে পারে অতি অল্প সময়ে সহজেই তা খুঁজে পাওয়া যাবে।
 
প্রত্যেক ছাত্র এবং শিক্ষকদের নিজস্ব একটি ইউজার আইডি থাকবে। এর মাধ্যমে অনলাইনে জানা যাবে তার কাছে কয়টা বই আছে। বই ফেরত দিতে দেরি হলে কত টাকা জরিমানা হয়েছে তা নিজেরাই অনলাইনের মাধ্যমে পেমেন্ট করতে পারবে। বই ফেরত দিতে দেরি হলে তাদের নম্বরে মেসেজ এবং স্বয়ংক্রিয়ভাবে ইমেইল চলে যাবে। এই প্রক্রিয়ার মাধ্যমে লাইব্রেরি স্টাফ-কর্মকর্তাদের অনেক সময় বেঁচে যাবে এবং সেবা দেয়া সহজতর হবে। এই অটোমেশনটি Open Source software ‘Koha’ এর মাধ্যমে সম্পন্ন করা হয়েছে। অটোমেশন প্রক্রিয়ার আওতায় ইতিমধ্যে ৩০ হাজার বই যুক্ত করা হয়েছে। বিশ্বের বড় বড় লাইব্রেরি এই সফটওয়্যারটি ব্যবহার করে আসছে।

উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে ভিসি অধ্যাপক রফিকুল উসলাম শেখ বলেন, জননেত্রী প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার হাত ধরে বাংলাদেশ মধ্যম আয়ের দেশে পরিণত হয়েছে। লাইব্রেরি অটোমেশন সফটওয়্যার কড়যধ চালু হওয়ার মধ্য দিয়ে রুয়েট প্রধানমন্ত্রী ঘোষিত চতুর্থ শিল্প বিপ্লরের অংশীদার হিসেবে আরো একধাপ এগিয়ে গেলো।

ভিসি আরো বলেন, এই অটোমেশন প্রক্রিয়া শুরুর মাধ্যমে রুয়েটের ছাত্র শিক্ষকের দীর্ঘদিনের আকাঙ্খা পূরণ হলো এবং এর মাধ্যমে সুফল পাবেন রুয়েটের সব ছাত্র-ছাত্রী, শিক্ষক-কর্মকর্তারা।  
   
রুয়েট গবেষণা ও সম্প্রসারণের পরিচালক এবং লাইব্রেরি পরিচালনা কমিটির সভাপতি অধ্যাপক ড. মো. ফারুক হোসেনের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে আরো উপস্থিত ছিলেন যন্ত্রকৌশল অনুষদের অধ্যাপক ড. মো. ইমদাদুল হক, রেজিস্ট্রার (ভারপ্রাপ্ত) অধ্যাপক ড. মো. সেলিম হোসেন, পরিকল্পনা ও উন্নয়ন পরিচালক অধ্যাপক ড. মিয়া মো. জগলুল সাদত, কেন্দ্রীয় কম্পিউটার সেন্টারের প্রশাসক ড. মো. আলী হোসেন, উপ-পরিচালক ছাত্রকল্যাণ মো. মামুনুর রশীদ, লাইব্রেরিয়ান (ভারপ্রাপ্ত) মো. মাহবুবুল আলমসহ বিভিন্ন বিভাগ, দপ্তর, শাখা প্রধানবৃন্দ।

ডেইলি বাংলাদেশ/জেডএম

English HighlightsREAD MORE »