লুঙ্গি পরে অনলাইন পরীক্ষা, হাবিপ্রবির ৩ শিক্ষার্থী বহিষ্কার

ঢাকা, বুধবার   ০৮ ডিসেম্বর ২০২১,   অগ্রহায়ণ ২৫ ১৪২৮,   ০২ জমাদিউল আউয়াল ১৪৪৩

লুঙ্গি পরে অনলাইন পরীক্ষা, হাবিপ্রবির ৩ শিক্ষার্থী বহিষ্কার

হাবিপ্রবি প্রতিনিধি ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

 প্রকাশিত: ১৩:১৪ ৩০ সেপ্টেম্বর ২০২১   আপডেট: ১৩:২০ ৩০ সেপ্টেম্বর ২০২১

হাজী মোহাম্মদ দানেশ কৃষি কলেজকে বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রশাসনিক ভবনে আলোকসজ্জা

হাজী মোহাম্মদ দানেশ কৃষি কলেজকে বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রশাসনিক ভবনে আলোকসজ্জা

অনলাইন পরীক্ষায় লুঙ্গি পরে অংশগ্রহণের দায়ে হাজী মোহাম্মদ দানেশ বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের (হাবিপ্রবি) তিন শিক্ষার্থীকে বহিষ্কারের অভিযোগ উঠেছে। ইঞ্জিনিয়ারিং অনুষদের ফুড প্রসেস অ্যান্ড ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের ২০তম ব্যাচের সেমিস্টার ফাইনাল পরীক্ষা চলাকালীন সময়ে এই ঘটনা ঘটে। 

এছাড়াও একই পরীক্ষায় অসুদাপায় অবলম্বনের অভিযোগে আরো দুই শিক্ষার্থীকে বহিষ্কার এবং আরেক শিক্ষার্থীর নির্দিষ্ট সময়ের আগে খাতা জমা নেয়ার ঘটনা ঘটেছে। 

অন্যদিকে অনুষদের ডিন বলছেন, লুঙ্গি পরার অভিযোগে বহিষ্কার করার যে বিষয়টি মোটেও সত্য নয়। বরং পরীক্ষার হলে অসদুপায় এবং পরীক্ষার নিয়ম অনুসরণ না করার কারণে বহিষ্কার হয়েছে শিক্ষার্থীরা।

জানা যায়, সোমবার (২৭ সেপ্টেম্বর) ফুড অ্যান্ড প্রসেস ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের জেনারেল ক্যামিস্ট্রি কোর্সের (কোর্স কোড CHE-111) পরীক্ষা ছিলো। দুপুর সাড়ে ১২টা থেকে শুরু হওয়া ঐ অনলাইন পরীক্ষার কয়েক মিনিটের মধ্যে ইম্প্রুভ পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করা ফাহাদ (ছদ্মনাম) নামে এক শিক্ষার্থীকে প্রথম বহিষ্কার করা হয়।

ফাহাদ জানায়, পরীক্ষা শুরু হওয়ার কয়েক মিনিটের মধ্যে আমাকে ক্যামেরা এঙ্গেল ঠিক করতে বলা হয়। তখন ক্যামেরা উপর-নিচ করার সময় আমার লুঙ্গি স্যারের দৃষ্টি গোচর হয়। তখন স্যার লুঙ্গি নিয়ে কথা তোলেন। এছাড়াও আমাকে স্যার কয়েকবার ডাকলে আমি না শোনায় স্যার আমাকে জুম মিটিং থেকে বের করে দেন এবং বহিষ্কার করেন।

এ ব্যাপারে জানতে ফুড সাইন্স অ্যান্ড নিউট্রিশন বিভাগের চেয়ারম্যান এবং ঐ পরীক্ষার প্রধান সুপারভাইজার সহযোগী অধ্যাপক ড. এনএইচএম রুবেল মজুমদারের সাথে কথা বলতে চাইলে তিনি অনুষদীয় ডিন এবং পরীক্ষা নিয়ন্ত্রকের সাথে যোগাযোগ করতে বলেন।

তবে অনলাইন পরীক্ষা নীতিমালা অনুযায়ী এসব শিক্ষার্থীদের বহিষ্কার করা সঠিক হয়েছে কিনা এ ব্যাপারে জানতে বিশ্ববিদ্যালয়ের পরীক্ষা নিয়ন্ত্রক অধ্যাপক ড. সাইফুর রহমানের সাথে মুঠোফোনে যোগাযোগ করার চেষ্টা করা হলে তিনি ফোন রিসিভ করেননি।

উল্লেখ্য, করোনা মহামারির ফলে সৃষ্ট সেশনজট নিরসনের লক্ষ্যে একাডেমিক কাউন্সিলের মাধ্যমে চলতি বছরের ৪ আগষ্ট থেকে অনলাইন পরীক্ষা কার্যক্রম শুরু করে হাবিপ্রবি।

ডেইলি বাংলাদেশ/জেডএম

English HighlightsREAD MORE »