৫৯তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উদযাপন করলো ঢাবির সাংবাদিকতা বিভাগ 

ঢাকা, রোববার   ১৯ সেপ্টেম্বর ২০২১,   আশ্বিন ৫ ১৪২৮,   ১০ সফর ১৪৪৩

৫৯তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উদযাপন করলো ঢাবির সাংবাদিকতা বিভাগ 

ঢাবি প্রতিনিধি  ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

 প্রকাশিত: ২১:২১ ২ আগস্ট ২০২১  

প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষে বিকেল ৪টায় অনলাইন প্ল্যাটফর্ম জুমের মাধ্যমে বিভাগের শিক্ষক-শিক্ষার্থীরা অনুভূতি প্রকাশ করেছেন

প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষে বিকেল ৪টায় অনলাইন প্ল্যাটফর্ম জুমের মাধ্যমে বিভাগের শিক্ষক-শিক্ষার্থীরা অনুভূতি প্রকাশ করেছেন

১৯৬২ সালের ২ আগস্ট যাত্রা শুরু করে ৫৯ বছরে পা দিলো ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের (ঢাবি) গণযোগাযোগ ও সাংবাদিকতা বিভাগ। এ উপলক্ষে সোমবার (২ আগস্ট) বিকেলে বিভাগ দিবস- ২০২১ উদযাপিত হয়েছে। 

প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষে বিকেল ৪টায় অনলাইন প্ল্যাটফর্ম জুমের মাধ্যমে বিভাগের শিক্ষক-শিক্ষার্থীরা অনুভূতি প্রকাশ করেছেন। অন্যান্য বছর ক্যাম্পাসে দিনব্যাপী কর্মসূচি গ্রহণ করা হয়, থাকে শিক্ষক-শিক্ষার্থীদের টি-শার্টের সাজ, দিবস বিভাগের র‍্যালি, আলোচনা সভা, ক্রীড়া ও সাংস্কৃতিক প্রতিযোগিতার পুরস্কার বিতরণ ও কৃতী শিক্ষার্থীদের বৃত্তি প্রদান। 

সবার জন্য শুভ কামনা জানিয়ে বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক শাওন্তী হায়দার বলেন, আমরা মহামারির একটা সময় পাড় করছি, আমরা আশা রাখি সামনে খুব সুদিন আসবে। আজকে চেয়েছিলাম সবার গান, গল্প শুনতে। অনেকটা পেয়েছি। বিভাগ দিবসকে নিয়ে আমাদের সবার অনন্য অনভূতি থাকে। সবাই আনন্দ করি, র‍্যালি করি কিন্তু এবার তা হলো না, এতে খুব খারাপ লাগছে। তবে করোনার কারণে এবার না পাড়লেও আশা করি সামনের বছর সবাই একত্রে আনন্দ করে এই দিবসকে উদযাপন করবো। চেয়ারপার্সন স্যারকে ধন্যবাদ অনলাইনে এমন একটি আয়োজন করার জন্য। 

সাংবাদিক বিভাগে এসে শিক্ষার্থীদের অনুভূতি প্রকাশের সুযোগ দেয়া হয় অনলাইন এই আলোচনা অনুষ্ঠানে। অনুভূতি প্রকাশ করে গণযোগাযোগ ও সাংবাদিকতা বিভাগের দ্বিতীয় বর্ষের শিক্ষার্থী তাহসীন নাওয়ার প্রাচী বলেন, করোনা পরিস্থিতির কারণে প্রায় দুবছর বিশ্ববিদ্যালয় বন্ধ আছে, এরই মাঝে আমাদের গণযোগাযোগ ও সাংবাদিকতা বিভাগ ৫৯ বছরে পদার্পণ করেছে। উদযাপন সরাসরি না করতে পারলেও এই ভার্চুয়াল মিটিংয়ের মাধ্যমে বিভাগের শিক্ষকবৃন্দ, অগ্রজ, সহপাঠী, অনুজদের সাথে যোগ দিতে পেরে ভালো লেগেছে। অনেকেই বিভাগ নিয়ে নিজেদের স্মৃতিচারণ করলেন, আশা-আকাঙ্ক্ষা-স্বপ্নের কথা শোনালেন৷ আশা করছি, আগামী প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী সবার সঙ্গে বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাসে দেখা করে উদযাপনের সুযোগ হবে, প্রাণের আড্ডায় মেতে ওঠা হবে।

বিভাগের সাবেক যারা প্রয়াণ হয়েছেন তাদের স্মৃতিচারণ করে তিনি বলেন, বিভাগের সব শিক্ষকদের ধন্যবাদ, তাদের অক্লান্ত পরিশ্রমে বিভাগ এগিয়ে যাচ্ছে। আমাদের বিভাগের সম্মানিত দুজন শিক্ষক ভিসি ছিলেন। একজন অধ্যাপক আ আ ম স আরেফিন সিদ্দিক ও অন্যজন ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়, কুষ্টিয়ার বর্তমান উপাচার্য অধ্যাপক আব্দুস সালাম, আমরা তাদের স্মরণ করছি। সামনের দিনে কিভাবে পরিকল্পনা নিয়ে আরো সুন্দরভাবে বিভাগকে সাজিয়ে গুছিয়ে শিক্ষার্থীদের আরো সুন্দর একটি শিক্ষার পরিবেশ দিতে পারি সে লক্ষ্যে আমরা কাজ করছি। আমরা এখন সামাজিক বিজ্ঞান ভবনে একটি বড় ফ্লোরে সিফট হয়েছি। এতে বড় জায়গা পেয়েছি আমরা নিজেদের সুন্দরভাবে সাজাতে। আশাকরি সামনের দিনে আমাদের শিক্ষার্থীরা আরো ভালো সুযোগ সুবিধা পাবে।

ডেইলি বাংলাদেশ/জেডএম