শিক্ষার্থীদের এগিয়ে রাখতে চবি ক্যারিয়ার ক্লাব

ঢাকা, মঙ্গলবার   ২৮ সেপ্টেম্বর ২০২১,   আশ্বিন ১৩ ১৪২৮,   ১৯ সফর ১৪৪৩

শিক্ষার্থীদের এগিয়ে রাখতে চবি ক্যারিয়ার ক্লাব

চবি প্রতিনিধি  ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

 প্রকাশিত: ১৬:০১ ২৬ জুলাই ২০২১  

২০১৯ সালের ২৯ জানুয়ারি সমাজবিজ্ঞান অনুষদের নবীনবরণ অনুষ্ঠানে ক্যারিয়ার ক্লাবের স্টল বসানোর মাধ্যমে যাত্রা শুরু হয় ‘চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয় ক্যারিয়ার ক্লাব’র।

২০১৯ সালের ২৯ জানুয়ারি সমাজবিজ্ঞান অনুষদের নবীনবরণ অনুষ্ঠানে ক্যারিয়ার ক্লাবের স্টল বসানোর মাধ্যমে যাত্রা শুরু হয় ‘চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয় ক্যারিয়ার ক্লাব’র।

শুধু একাডেমিক পড়াশোনাই যে ভবিষ্যৎ ক্যারিয়ার স্থির করে, তা ঠিক নয়। প্রতিযোগিতামূলক সময়ে পৃথিবী যেমন দ্রুতগতিতে এগিয়ে যাচ্ছে এক্ষেত্রে নিজেকে তৈরি করতে পারার চ্যালেঞ্জ নিয়েই এগোতে হবে, নইলে পিছিয়ে পড়তে হবে। সে কথা চিন্তা করেই পথচলা চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয় ক্যারিয়ার ক্লাবের। 

শুরুটা ২০১৮ হলেও আনুষ্ঠানিক কার্যক্রম ২০১৯ থেকে। সংগঠনের কাঠামো তৈরি থেকে শুরু করে লোগো, সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে প্রচার কাজ চলতে থাকে। সব কিছু গুছানোর পর ২০১৯ সালের ২৯ জানুয়ারি সমাজবিজ্ঞান অনুষদের নবীনবরণ অনুষ্ঠানে ক্যারিয়ার ক্লাবের স্টল বসানোর মাধ্যমে যাত্রা শুরু হয় ‘চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয় ক্যারিয়ার ক্লাব’র। ঐদিনই সদস্য সংগ্রহ শুরু হয়। নবীনরা উৎসাহ নিয়ে সদস্য হতে শুরু করে। 

যতো কাজে ক্যারিয়ার ক্লাব:

সদস্যদের জন্য নিয়মিত দক্ষতা ভিত্তিক কর্মশালার আয়োজন ছাড়াও বিভিন্ন জব সেক্টর থেকে বিশেষজ্ঞদের আমন্ত্রণ জানিয়ে সেমিনার আয়োজন করা। বিভিন্ন ধরনের দক্ষতা ভিত্তিক প্রতিযোগিতা এবং জব ফেয়ারের আয়োজন করা। বিভিন্ন কোম্পানির জন্য ক্যাম্পাস ভিত্তিক প্রোগ্রাম আয়োজন করা। প্রতিনিয়ত দক্ষ শিক্ষার্থীদের সিভি বিভিন্ন কোম্পানির কাছে প্রদান করার মাধ্যমে কর্মস্থানের সৃষ্টি করা। 

এ পর্যন্ত পরিচালিত কার্যক্রমের মধ্যে রয়েছে- ক্যাম্পাস রিক্রুইটম্যান্ট অব লাফার্জহলচিম বাংলাদেশ (Campus Recruitment of LafargeHolcim Bangladesh) যেটি ফরাসি-সুইস মাল্টিন্যাশনাল নির্মাণ সামগ্রী তৈরিকারী প্রতিষ্ঠান। চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয় ক্যারিয়ার ক্লাব প্রতিষ্ঠানটির চবি ক্যাম্পাস নিয়োগ প্রোগ্রাম আয়োজন করে যেখানে দুইশর অধিক শিক্ষার্থী মূল্যায়ন পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করে এবং এর মাধ্যমে অনেকেরই কর্মস্থানের সুযোগ হয়। বিদেশে উচ্চশিক্ষা গ্রহণের সুযোগ-সুবিধা নিয়ে আয়োজন করে ‘সেমিনার অন হায়ার এডুকেশন’ (ইউএসএ)। পাশাপাশি ‘হোয়াট আর হিউম্যান রাইটস? ফাইন্ড আউট’ শিরোনামে মানবধিকার বিষয়ক আলোচনা সভা আয়োজন করে ক্লাবটি। প্রতিযোগিতামূলক আয়োজনের মধ্যে ‘স্টুডেন্ট টু স্টার্টআপ, চ্যাপ্টার১’। এছাড়াও বাংলালিংক এর সৌজন্যে চবি ক্যাম্পাস নিয়োগ ভিত্তিক ও প্রতিযোগিতামূলক আয়োজন ছিলো কয়েকবার। 

কোভিড চলাকালীন সময়ে বন্ধ নেই কার্যক্রম। অনলাইনে বিভিন্ন ক্যারিয়ার ভিত্তিক প্রতিযোগিতা, ইন্টার্নশিপ, আলোচনা সভা ইত্যাদির নিয়মিত আয়োজন করছে সংগঠনটি।

স্বল্প সময়ে ক্লাবের নানামুখী সৃজনশীল কার্যক্রম যুগান্তর সৃষ্টি করেছে। সফলতার সঙ্গে যোগ্য নেতৃত্ব তৈরি ও বর্তমানে দেশের সরকারি-বেসরকারি, করপোরেট সেক্টরসহ বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ জায়গায় ক্লাবের সদস্য নিজেকে প্রমাণ করতে সক্ষম হচ্ছে। 

ক্যারিয়ার ক্লাবের সদস্য আবু তাহের জানালেন, ক্যারিয়ার গঠনের লক্ষ্যে রিক্রুটিং ফেস্টিভ্যাল, সিভি ব্যাংক এবং সেমিনার ও কর্মশালাগুলো গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখছে। বিশেষ করে কোভিড’র কারণে আমরা যারা সরাসরি ইন্টার্নশিপ করতে পারছি না তাদেরকে অনলাইনে ইন্টার্নিশিপের সুযোগ করে দেয়াতে খুবই উপকার হয়েছে।
 
সংগঠন নিয়ে আগামী দিনের পরিকল্পনার কথা জানালেন বর্তমান সভাপতি শাহরিয়ার আলম। তিনি বলেন, ক্যারিয়ার গড়ার লক্ষ্যই মূলত আমরা চবি ক্যারিয়ার ক্লাবটি প্রতিষ্ঠা করেছি।

সংগঠন নিয়ে আগামী দিনের পরিকল্পনার মধ্যে রয়েছে চবি শিক্ষার্থীদের দক্ষতা অর্জনে আরো বেশি সহযোগিতা করার পাশাপাশি তাদের কর্মস্থানের সুযোগ করে দেয়া, শিক্ষার্থীদের সু্ন্দর ক্যারিয়ার গড়ার ক্ষেত্রে সচেতনতা বৃদ্ধি করা, তাদের ক্যারিয়ারের প্রয়োজনীয় দক্ষতা অর্জনের জন্যে নিত্য নতুন কর্মশালার আয়োজন করা। এছাড়াও বিভিন্ন প্রতিষ্ঠান যাতে সহজে চবি থেকে দক্ষ শিক্ষার্থী নিয়োগ করতে পারে সেই পরিবেশ তৈরি করে যাওয়া। এতে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসনের সহযোগিতা সুদুরপ্রসারী ভূমিকা পালন করবে। 

ক্লাবের মডারেটর ও বিশ্ববিদ্যালয়ের আন্তর্জাতিক সম্পর্ক বিভাগের সহকারী অধ্যাপক আফজালুর রহমান বলেন, চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয় ক্যারিয়ার ক্লাব শিক্ষার্থীদের দক্ষতা অর্জনের উদ্দেশে তিন বছর ধরে কার্যক্রম পরিচালনা করে আসছে। শিক্ষার্থীদের দক্ষতা অর্জনের পাশাপাশি কর্মস্থানের বিভিন্ন ক্ষেত্রসমূহ বিষয়ে তাদের অবগত করছে অনলাইন এবং অফলাইন ট্রেনিং আয়োজনের মাধ্যমে। আমি মনে করি চবি প্রশাসনের সহযোগিতায় এটি আরো বহুদূর এগিয়ে যাবে এবং চতুর্থ শিল্প বিপ্লবের এই সময়ে শিক্ষার্থীদের ক্যারিয়ার গঠনে সামগ্রিকভাবে ভূমিকা রাখবে।

ডেইলি বাংলাদেশ/জেডএম