সাত কলেজের শিক্ষার্থীদের টিকা নিয়ে ধোঁয়াশা

ঢাকা, শনিবার   ৩১ জুলাই ২০২১,   শ্রাবণ ১৬ ১৪২৮,   ২০ জ্বিলহজ্জ ১৪৪২

সাত কলেজের শিক্ষার্থীদের টিকা নিয়ে ধোঁয়াশা

ঢাকা কলেজ প্রতিনিধি  ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

 প্রকাশিত: ১৭:০৩ ১২ জুন ২০২১   আপডেট: ১৭:১৫ ১২ জুন ২০২১

সরকারি সাত কলেজের স্নাতক ও স্নাতকোত্তর পর্যায়ের প্রায় আড়াই লাখ শিক্ষার্থীর মধ্যে আবাসিক শিক্ষার্থীর সংখ্যা প্রায় ২০-২৫ হাজার

সরকারি সাত কলেজের স্নাতক ও স্নাতকোত্তর পর্যায়ের প্রায় আড়াই লাখ শিক্ষার্থীর মধ্যে আবাসিক শিক্ষার্থীর সংখ্যা প্রায় ২০-২৫ হাজার

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় অধিভুক্ত সরকারি সাত কলেজের স্নাতক ও স্নাতকোত্তর পর্যায়ের প্রায় আড়াই লাখ শিক্ষার্থীর মধ্যে আবাসিক শিক্ষার্থীর সংখ্যা প্রায় ২০-২৫ হাজার। এখন পর্যন্ত এই বিপুল সংখ্যক শিক্ষার্থীকে করোনা টিকার আওতায় আনতে কোনো তথ্য সংগ্রহ, পরিকল্পনা গ্রহণ বা পদক্ষেপ নেয়নি সাত কলেজ প্রশাসন। এরইমধ্যে অন্যান্য পাবলিক ক্যাম্পাস ও হল খোলার আগে টিকা কার্যক্রম শুরু করেছে। তবে এক্ষেত্রে পিছিয়ে আছে সাত কলেজ। 

এই সাত কলেজের মধ্যে ঢাকা কলেজ, ইডেন মহিলা কলেজ, সরকারি তিতুমীর কলেজ, বেগম বদরুন্নেসা সরকারি মহিলা কলেজ, মিরপুর বাংলা কলেজ ও কবি নজরুল সরকারি কলেজে আবাসিক হল রয়েছে। 

তিতুমীর কলেজের ইংরেজি বিভাগের শিক্ষার্থী মামুনুর রশীদ বলেন, করোনা পরিস্থিতি স্বাভাবিক হলেই শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান কিংবা আবাসিক হল খুলবে। তখন শিক্ষার্থীরা আগেই মতোই আসা-যাওয়া করবেন। ইচ্ছা করলেও স্বাস্থ্যবিধি মানা সম্ভব হবে না। তাই শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খোলার আগেই সাত কলেজের শিক্ষার্থীদের করোনা টিকার আওতায় আনতে হবে। এরই মধ্যে অন্যান্য বিশ্ববিদ্যালয়ে শিক্ষার্থীরা টিকা সংগ্রহতের তথ্য জমা দিয়েছেন। অথচ আমাদের এখনো তথ্য সংগ্রহের কোনো খবর নেই। করোনা থেকে সুরক্ষায় টিকা নিয়ে আমরা এখনো অনিশ্চয়তায় আছি।     

ঢাকা কলেজের ম্যানেজমেন্ট বিভাগের শিক্ষার্থী ফাতেমী আহমেদ রুমী বলেন, অন্যান্য বিশ্ববিদ্যালয়গুলোর তুলনায় সাত কলেজের শিক্ষার্থীরা একেবারেই নিরুপায়। শিক্ষা কার্যক্রম যেমন পিছিয়ে তেমনই অন্যান্য সুযোগ-সুবিধায়ও। এদিকে ক্যাম্পাস ও আবাসিক হল খোলার আগেই টিকা কার্যক্রম শুরু করেছে অন্যসব বিশ্ববিদ্যালয়। সেক্ষেত্রে এখনো খোঁজ নেই সাত কলেজ কর্তৃপক্ষের। তাই ক্যাম্পাস আর ক্লাস শুরুর আগেই প্রয়োজন সাত কলেজের সব শিক্ষার্থীদের টিকি নিশ্চিত করা। 

সরকারি বাঙলা কলেজের শিক্ষার্থী মামুন কবীর বলেন, শিক্ষার্থীদের অগ্রাধিকার ভিত্তিতে করোনা টিকা প্রদানের নির্দেশনা দিয়েছে সরকার। এরইমধ্যে বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষার্থীদের টিকা দেয়ার বিষয়ে তোড়জোড় শুরু করেছে। এক্ষেত্রে ৭ কলেজের শিক্ষার্থীদের টিকা দেয়ার ব্যাপারে কর্তৃপক্ষ এখন পর্যন্ত কোনো পদক্ষেপ নেয়নি। আশা করি, কর্তৃপক্ষ ৭ কলেজের শিক্ষার্থীদের করোনা টিকা দেয়ার ব্যাপারে দ্রুত পদক্ষেপ নেবেন।

এ ব্যাপারে কোনো নির্দেশনা এখনও পাওয়া যায়নি বলে জানিয়েছেন ঢাকা কলেজের অধ্যক্ষ ও সাত কলেজের সমন্বয়ক অধ্যাপক আইকে সেলিম উল্লাহ খোন্দকার। তিনি বলেন, শিক্ষার্থীদের করোনা টিকার আওতায় আনতে তথ্য সংগ্রহের বিষয়ে আমরা এখন পর্যন্ত ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়, শিক্ষা মন্ত্রণালয় কিংবা ইউজিসি থেকে কোনো সিদ্ধান্ত পাইনি। যদিও সাত কলেজের বিপুল সংখ্যক শিক্ষার্থী আবাসিক হলে থেকে পড়াশোনা করে। সামনে অধ্যক্ষদের মিটিং রয়েছে। এ ব্যাপারে মিটিংয়ে আলোচনা করব। আমাদের শিক্ষার্থীদের করোনা টিকা প্রাপ্তির ব্যাপারে কোনো ধোঁয়াশা নয় বরং প্রয়োজনে শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের সঙ্গে যোগাযোগ করে এটি নিশ্চিত করব।

ডেইলি বাংলাদেশ/জেডএম