ফিলিস্তিনে গণহত্যা বন্ধ করার আহ্বান ঢাবি শিক্ষক সমিতির 

ঢাকা, শনিবার   ১২ জুন ২০২১,   জ্যৈষ্ঠ ২৯ ১৪২৮,   ০১ জ্বিলকদ ১৪৪২

ফিলিস্তিনে গণহত্যা বন্ধ করার আহ্বান ঢাবি শিক্ষক সমিতির 

ঢাবি প্রতিনিধি ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

 প্রকাশিত: ১৯:৪৯ ১৮ মে ২০২১  

মঙ্গলবার দুপুরে বিশ্ববিদ্যালয়ের অপরাজেয় বাংলার পাদদেশে আয়োজিত এক প্রতিবাদী মানববন্ধনে এই দাবি জানান বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষক সমিতি। 

মঙ্গলবার দুপুরে বিশ্ববিদ্যালয়ের অপরাজেয় বাংলার পাদদেশে আয়োজিত এক প্রতিবাদী মানববন্ধনে এই দাবি জানান বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষক সমিতি। 

ফিলিস্তিনে ইসরায়েলের চলমান গণহত্যা ও ধ্বংসযজ্ঞ বন্ধ করার আহ্বান জানিয়েছে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষক সমিতি। ইসরায়েলের এই চলমান আগ্রাসন রুখে দিতে সারাবিশ্বের মানুষকে জেগে ওঠার আহ্বান জানান সংগঠনটির নেতাকর্মীরা। 

মঙ্গলবার দুপুরে বিশ্ববিদ্যালয়ের অপরাজেয় বাংলার পাদদেশে আয়োজিত এক প্রতিবাদী মানববন্ধনে এই দাবি জানান বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষক সমিতি। 

মানববন্ধনে সংগঠনটির সভাপতি ও বিশ্ববিদ্যালয়ের আইন অনুষদের ডিন অধ্যাপক রহমত উল্লাহর সভাপতিত্বে এবং সাধারণ সম্পাদক, পুষ্টি ও খাদ্য বিজ্ঞান ইনস্টিটিউটের অধ্যাপক নিজামুল হক ভূঁইয়ার সঞ্চালনায় মানববন্ধনে বক্তব্য রাখেন বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ড. আখতারুজ্জামান, উপ-উপাচার্য (শিক্ষা) অধ্যাপক ড. এ এস এম মাকসুদ কামাল, সমিতির সাবেক ভারপ্রাপ্ত সভাপতি অধ্যাপক ড. লুৎফর রহমান, প্রক্টর অধ্যাপক ড. এ কে এম গোলাম রব্বানীসহ বিশ্ববিদ্যালয়ের বিভিন্ন বিভাগের শিক্ষকরা। 

মানববন্ধনে উপাচার্য অধ্যাপক ড. মো. আখতারুজ্জামান বলেন, ১৯৪৮ সালে ইসরায়েল রাষ্ট্র প্রতিষ্ঠার মাধ্যমে ফিলিস্তিনিরা প্রতারিত হয়েছেন। তখন ইসরায়েল স্বীকৃতি পেলেও ফিলিস্তিন স্বীকৃতি পায়নি। দ্বিতীয়বার প্রতারণার স্বীকার হয় ১৯৬৭ সালে। আর এই প্রতিটি ঘটনায় ফিলিস্তিনিরা ভূমি ও নিরীহ মানুষের প্রাণ হারিয়েছেন। সে কারণেই বলা হয় ইসরায়েলি অকুপেশন। ইসরায়েলের এই নারকীয় বর্বরোচিত গণহত্যা, শিশু হত্যা, নারী হত্যার তীব্র নিন্দা জ্ঞাপন করছি। 

উল্লেখ্য, গাজায় ইসরাইল ও ফিলিস্তিনিদের মধ্যে গত আটদিন ধরে সহিংসতা চলছে। নতুন করে শুরু হওয়া সংঘর্ষে এখন পর্যন্ত ২১২ জন নিহত হয়েছেন। যাদের মধ্যে ৬১টি শিশু রয়েছে। এই সংঘর্ষ বন্ধ করার জন্য আন্তর্জাতিক আহবান অব্যাহত রয়েছে। গড়ে প্রতিদিন একশ থেকে দেড়শ বার ইসরায়েলি যুদ্ধ বিমান গাজায় উড়ে গিয়ে বোমা ফেলছে।

ডেইলি বাংলাদেশ/জেডএম