আয়ারল্যান্ডে পাড়াশোনা, মিলবে চাকরি

ঢাকা, রোববার   ২০ জুন ২০২১,   আষাঢ় ৬ ১৪২৮,   ০৮ জ্বিলকদ ১৪৪২

আয়ারল্যান্ডে পাড়াশোনা, মিলবে চাকরি

রুমান হাফিজ ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

 প্রকাশিত: ১৬:০৯ ১৮ মে ২০২১  

ছবি: সংগৃহীত

ছবি: সংগৃহীত

ব্যবসায় শিক্ষায় পড়াশোনা শেষে মিলবে চাকরি। তবে পড়শোনা করতে হবে আয়ারল্যান্ডে। আন্তর্জাতিক মান বজায় রেখে দেশটিতে দেয়া হচ্ছে ব্যবসায় শিক্ষায় ডিগ্রি। এ সম্পর্কে আরো বিস্তারিত।

যেসব বিশ্ববিদ্যালয়ে সুযোগ আছে:

ইউনিভার্সিটি কলেজ ডাবলিন আইন বিষয়ে পড়াশোনার সেরা হলেও ব্যাচেলর অব কমার্স কোর্সে পড়ার সুযোগ আছে। এছাড়াও আছে ট্রিনিটি (Trinity college) কলেজে আছে বিজনেস ইকোনমিক অ্যান্ড সোশ্যাল স্টাডিজ ডিগ্রি, ইউনিভার্সিটি অব লিমেরিকের (University of Limerick), ডাবলিন সিটি ইউনিভার্সিটি (Dublin city university),  ইউনিভার্সিটি অব লিমেরিকে ল অ্যান্ড অ্যাকাউন্টিংয়ে ব্যবসায় বিষয়ে পড়াশোনার সুযোগ আছে।   

এ ছাড়াও ময়নুথ ইউনিভার্সিটি (Maynooth university), ডান লুরির ইস্টিটিউট অব আর্ট ডিজাইন টেকনোলজি (Dun laogaire), ন্যাশনাল কলেজ অব আয়ারল্যান্ডে (National college of ireland) লেভেল ৮ কোর্স রয়েছে ব্যবসা, হিসাববিজ্ঞান, মানবসম্পদ ব্যবস্থাপনায় পড়াশোনার সুযোগ রয়েছে। 

উপার্জন কেমন: অন্যসব ডিগ্রিধারীদের বেশি আয়ের সুযোগ রয়েছে ব্যবসায় শিক্ষায় ডিগ্রিধারীদের। অভিজ্ঞতা আর দক্ষতা বৃদ্ধির সঙ্গে সঙ্গে বাড়তে থাকে বেতন। সঙ্গে রয়েছে বোনাস। 

আইরিশ রিক্রুটমেন্ট ফার্ম সিপিএলের (CPL) তথ্যমতে, দেশটিতে একজন অর্থায়ন বিশ্লেষক বছরে ৪৫ থেকে ৬০ হাজার ইউরো আয় করতে পারেন। আবার বড় প্রতিষ্ঠানের অর্থায়ন নিয়ন্ত্রকের মতো পদগুলোতে বার্ষিক আয় এক লাখ ইউরো ছাড়িয়ে যেতে পারে। একজন সাপ্লাই চেইন ম্যানেজার ৫৫ থেকে ৭৫ হাজার ইউরো আয় করেন, হিসাবরক্ষকেরা ৭০ হাজার ইউরোর আশপাশে আয় করেন। মার্কেটিং ম্যানেজারদের উপার্জন বছরে ৯০ হাজার ইউরো পর্যন্ত উঠতে পারে।

অন‌্য একটি জরিপ সংস্থার তথ্যমতে, একজন প্রজেক্ট অ্যাকাউন্ট্যান্টের আয় প্রথম বছরে ৬০ হাজার ইউরো হতে পারে। এরপর এটি বাড়তেই থাকবে। আর কেউ যদি ব্যবসায় শিক্ষার ওপর পোস্ট গ্র্যাজুয়েশন করে চাকরি করেন, তাহলে তার উপার্জন আরও অনেক বেশি হবে।

গুরুত্বপূর্ণ হচ্ছে আইইএলটিএসের (IELTS) শর্তপূরণ

আয়ারল্যান্ডের বিশ্ববিদ‌্যালয়ে ভর্তি আবেদনের ক্ষেত্রে গুরুত্বপূর্ণ হচ্ছে বিশ্ববিদ্যালয়ের চাহিদা মোতাবেক আইইএলটিএসের (IELTS) শর্ত পূরণ। এ ক্ষেত্রে একেক বিশ্ববিদ্যালয়ের জন্য স্কোর চাহিদা একেক রকম হতে পারে। সাধারণত শিক্ষার্থী হিসেবে সফলভাবে আয়ারল্যান্ডের ভিসা প্রসেস ও বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তি হওয়ার জন্য আইইএলটিএস একাডেমিক কোর্স করা দরকার। 

আবার আপনি যে বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তির আবেদন করবেন বা যে যে কোর্সে পড়তে চাইবেন, তার ওপর ভিত্তি করেও কিছু পৃথক যোগ্যতা চাওয়া হতে পারে। শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের সঙ্গে সরাসরি যোগাযোগ করে জেনে নিতে পারেন আপনার পছন্দের সাবজেক্টের কত টিউশন ফি। তা ছাড়া যেকোনো সহযোগিতার জন্য যোগাযোগ করতে পারেন ([email protected]) এই মেইলে।

ডেইলি বাংলাদেশ/জেডএম